BREAKING NEWS

২ আশ্বিন  ১৪২৭  রবিবার ২০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

কলকাতা পুলিশের রবিস্মরণ, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই রবীন্দ্রজয়ন্তী পালন

Published by: Sandipta Bhanja |    Posted: May 8, 2020 12:11 pm|    Updated: May 8, 2020 1:12 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা মোকাবিলায় জরুরী পরিষেবার সঙ্গে যুক্ত চিকিৎসকদের পাশাপাশি পুলিশদের ভূমিকাও সাধুবাদ জানানোর মতো। কখনও কোনও রোগিকে হাসপাতাল পৌঁছে দিচ্ছেন তো আবার কখনও বা কোনও সার্জেন্টকে দেখা যাচ্ছে অভুক্ত বয়স্কের মুখে খাবার তুলে দিতে। আবার গৃহবন্দি জনগণের মনোবল বাড়াতে তাঁরাই রাস্তায় রাস্তায় মাইক হাতে গেয়ে উঠছেন নানা গান। সাধারণ মানুষের মনোরঞ্জনের পাশাপাশি সচেতনরা বার্তাও দিয়েছেন এভাবেই। দেশের স্বার্থে, দশের স্বার্থে উদয়াস্ত কর্তব্যে অবিচল থেকেও তাঁদের মুখে সর্বদা হাসি। দেশজুড়ে এই লকডাউন পরিস্থিতিতেও ভালবাসা, সম্পর্ক, জ্ঞান, দয়া, আশা, ভক্তি কোনও কিছুর উপরই যে ‘লকডাউন’ জারি হয়নি, সেকথাই যেন একাধিকবার কাজের মধ্য দিয়ে বলতে চাইছেন পুলিশরা। তাই বোধহয় বিবিধ চ্যালেঞ্জের সম্মুখীন হয়েও হাজারো ব্যস্ততার মাঝে ‘রবিস্মরণ’-এ ছেদ পড়েনি তাঁদের।

[আরও পড়ুন: ‘লাশের রাজনীতিতে স্পেশ্যালাইজড মমতা’, মুখ্যমন্ত্রীকে বেনজির আক্রমণ দিলীপের]

২৫ বৈশাখ অভিনবভাবে কলকাতার বিভিন্ন প্রান্তে সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে কবিগুরু রবীন্দ্রনাথকে স্মরণ করছেন কলকাতা পুলিশের কর্মীরা। পরনে উর্দি, মুখে মাস্ক, সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখে রাস্তায় দাঁড়িয়ে গান গেয়েই ১৫৯তম রবীন্দ্রজয়ন্তী পালনে মেতেছেন তাঁরা। সারি করে লাইনে দাঁড়ানো একদল পুলিশ। একে অপরের থেকে দূরত্ব বজায় রেখেই গাইছেন। অভূতপূর্ব দৃশ্য। লকডাউনে ২৫ বৈশাখের মতো বাঙালির গর্বের দিন উদযাপন করতে যে তাঁরাও ভুলে যাননি, শহর তিলোত্তমার বুকজুড়ে সেই বার্তাই যেন দিচ্ছে কলকাতা পুলিশ।

[আরও পড়ুন: কলকাতা পুরসভার কাজকর্ম দেখভালের জন্য শাসক গোষ্ঠীকে এক মাসের সময় দিল হাই কোর্ট]

বিগত দেড় মাস ধরে ‘লকডাউন’ চলছে দেশজুড়ে। কিন্তু মানবিকতা, সহমর্মিতাবোধ, ভালবাসা, বন্ধুত্ব এই সব মানবিক দিকগুলির উপর লকডাউন জারি করা হয়নি। তাই শহরের আইন-শৃঙ্খলা বজায় রাখতে একদিকে এই কলকাতা পুলিশ যেমন কড়া মনোভাব পোষণ করছেন তেমনই অসহায় ও সম্বলহীনদের জন্যও এগিয়ে আসছেন তারাই। গোটা শহর যখন সচেতনতার চাদরে মুড়েছে তখন ওঁদের কিন্তু ছুটি নেই। রসবোধেও তাঁদের জুড়ি মেলা ভার! জনগণকে সচেতনতার বার্তা দিতে কখনও সিনেমার দৃশ্যের আশ্রয় নিচ্ছেন তো কখনও বা আবার মজার মিম শেয়ার করছেন। এই কঠিন পরিস্থিতিতেও যেভাবে তাঁরা মানুষের পাশে দাঁড়িয়েছেন, শ্রদ্ধা ও ধন্যবাদ ওঁদেরও প্রাপ্য, এমনটাই বলছেন শহরবাসীরা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement