৬ মাঘ  ১৪২৬  সোমবার ২০ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

৬ মাঘ  ১৪২৬  সোমবার ২০ জানুয়ারি ২০২০ 

BREAKING NEWS

অর্ণব আইচ: নাগরিকত্ব সংশোধনী বিল (CAA) আন্দোলনে ফুঁসছে গোটা রাজ্য। কলকাতাতেও উত্তেজনার আঁচ লাগতে শুরু করেছে সবেমাত্র। বেশ কয়েকটি জায়গায় মিছিল শুরু হতে না হতেই কড়া পদক্ষেপ কলকাতা পুলিশের। অবরোধ হলেই কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার নির্দেশিকা জারি করলেন নগরপাল। শহরের প্রত্যেকটি থানার ওসিদের এ বিষয়ে সতর্কও করা হয়েছে।

গত শুক্রবার থেকেই বিক্ষোভের আগুনে জ্বলছে গোটা রাজ্য। কখনও মুর্শিদাবাদ তো কখনও হাওড়া। আবারও কখনও দক্ষিণ ২৪ পরগনা। বিক্ষোভের আগুনে জ্বলছে প্রায় গোটা রাজ্য। বিক্ষোভকারীদের টার্গেট কখনও ট্রেন তো আবার কখনও বাসে আগুন লাগিয়ে দিচ্ছেন তাঁরা। কলকাতার ছবি এতটা উত্তপ্ত না হলেও মিছিল, পথ অবরোধ এবং কুশপুতুল দাহর মতো ঘটনা লেগেই রয়েছে। দিনকয়েক আগেই পার্ক সার্কাস, ওয়েলিংটন, রাজারহাটে বিক্ষোভ দেখান CAA বিরোধীরা।

[আরও পড়ুন: ‘সরকারি বিজ্ঞাপনে CAA বিরোধী প্রচার করতে পারেন না’, মমতাকে কটাক্ষ ধনকড়ের]

রাজ্যের বর্তমান পরিস্থিতিতে শহর নিয়ে সতর্ক কলকাতা পুলিশ। এই পরিস্থিতিতে শহরের থানার ওসিদের পরিস্থিতির দিকে নজর রাখার নির্দেশ দিয়েছেন নগরপাল। যাতে কোনও ইস্যুকে ফাঁপিয়ে ফুলিয়ে গুজব না রটে সেদিকে নজর রাখতে বলা হয়েছে। এছাড়াও শহরজুড়ে নাকা তল্লাশি চালানোর নির্দেশিকা জারি করা হয়েছে। কোথাও যেন অবরোধ হলে কড়া ব্যবস্থা নেওয়ার হুঁশিয়ারিও দিয়েছেন নগরপাল। এর আগে যেকোনও রকম অশান্তি রুখতে কড়া হুঁশিয়ারি দিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। সরকারি সম্পত্তি নষ্ট করলে তাদের বিরুদ্ধে আইনানুগ ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলেও বারবার বিজ্ঞপ্তি জারি করে জানিয়েছিলেন তিনি। তবে তা সত্ত্বেও অশান্তি রোখা যাচ্ছে না। তাই বাধ্য হয়ে রবিবার বিকালের পর থেকেই মোট ৬টি জেলায় ইন্টারনেট পরিষেবা বন্ধ রাখারও সিদ্ধান্ত নিয়েছে রাজ্য প্রশাসন।

 

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং