BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

অসহায়ের সহায় কলকাতা পুলিশ, লকডাউনে পড়ুয়ার সাহায্যে এগিয়ে এলেন সিপি অনুজ শর্মা

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: April 11, 2020 3:47 pm|    Updated: April 11, 2020 3:47 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনের শহরে গত কয়েকদিন ধরে মানবিকতার নজির গড়েছে কলকাতা পুলিশ। কখনও গান গেয়ে মানুষকে ঘরের থাকার গুরুত্ব বুঝিয়ে, কখনও আবার আর্তের সেবা করে। গ্রীষ্মে চরম রক্তসংকট মেটাতে প্রতিদিন সোশ্যাল ডিসটেন্সিং মেনে রক্তদান করছেন কলকাতা পুলিশের করোনা যোদ্ধারা। কেউ সোশ্যাল মিডিয়াতে সাহায্যের আবেদন করলে হাতও বাড়িয়ে দিচ্ছে কলকাতা পুলিশ। তেমনই এক নজির হল শনিবার। পড়ুয়ার আবেদনে ত্রাতার ভূমিকায় অবতীর্ণ হলেন নগরপাল অনুজ শর্মা। মুশকিল আসান করল কলকাতা পুলিশ।

জানা গিয়েছে, কৃষ্ণাভ নামে দ্বাদশ শ্রেণির এক পড়ুয়া সোশ্যাল মিডিয়ায় সাহায্যের আবেদন জানিয়েছিল। অনলাইনে কলেজে ভরতির প্রবেশিকার জন্য প্রস্তুতি নিচ্ছিল সে। কিন্তু শনিবার আচমকা যান্ত্রিক কারণে ল্যাপটপটি খারাপ হয়ে যায়। সে নিজের টুইটার হ্যান্ডেলে লেখে, ল্যাপটপ ছাড়া সে কাজ করতে পারবে না। কিন্তু লকডাউনের জেরে ল্যাপটপ সারানোর কোনও দোকান খোলা পাওয়া যাবে না। উপায় না দেখে সে কলকাতা পুলিশ ও সিপি অনুজ শর্মাকে ট্যাগ করে সাহায্যের আবেদন জানিয়ে টুইট করে।

[আরও পড়ুন: করোনা পজিটিভ ওষুধ ব্যবসায়ী, বাগরি মার্কেটে ব্যাপক আতঙ্ক]

কিছুক্ষণের মধ্যে টুইটের উত্তর দেন অনুজ শর্মা। তিনি টুইটটি কলকাতা পুলিশকে ট্যাগ করে দেন। কলকাতা পুলিশের টুইটার হ্যান্ডেল থেকে জানতে চাওয়া হয় ওই পড়ুয়ার বাড়ির ঠিকানা। মুশকিল আসানে তাঁর বাড়ি পৌঁছে যান পুলিশকর্মীরা। ল্যাপটপের বন্দোবস্তও করে দেন তাঁরা। ল্যাপটপ খারাপ হওয়ার জন্য গোটা একটা বছর জলে যেত ওই পড়ুয়ার। কিন্তু কমিশনার অনুজ শর্মার নেতৃত্বে কলকাতা পুলিশ অসহায়ের সহায় হয়ে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দিল। ফের একবার শহর দেখল মানবিক কলকাতা পুলিশের রূপ।

[আরও পড়ুন: ‘চা কাকু’ মৃদুল দেবের পাশে মিমি চক্রবর্তী, খাদ্যসামগ্রী পাঠালেন সাংসদ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement