BREAKING NEWS

২৪  মাঘ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৯ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

জোর ধাক্কা বিজেপির, রথযাত্রায় থাকতে নারাজ কুমার শানু

Published by: Tanujit Das |    Posted: December 3, 2018 2:40 pm|    Updated: December 3, 2018 10:02 pm

 Kumar Sanu denies to attend in WB BJP's Rath Yatra

স্টাফ রিপোর্টার, কলকাতা: রথযাত্রা শুরুর আগেই বড় ধাক্কা খেলে রাজ্য বিজেপি৷ অতিথি তালিকায় নাম থাকলেও, এই কর্মসূচিতে উপস্থিত থাকবেন না বলে স্পষ্ট ভাষায় জানিয়ে দিলেন গায়ক কুমার শানু৷ অভিযোগ তুললেন ষড়যন্ত্র করার ও তাঁর নামে গুজব ছড়ানোর৷ যদিও গায়কের এই অভিযোগে কর্ণপাত করতে নারাজ বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব৷ তাঁদের পালটা যুক্তি, বিজেপির সদস্য বলেই তাঁর নাম দিল্লির কাছে প্রস্তাব করা হয়েছিল৷ তবে আসা বা না আসা, কুমার শানুর একান্তই ব্যক্তিগত বিষয়৷

[রাজ্যে শিক্ষক নিয়োগে কাটল জটিলতা, স্থগিতাদেশ প্রত্যাহার হাই কোর্টের]

আগামী ৭ ডিসেম্বর, কোচবিহার থেকে শুরু হতে চলেছে বিজেপির এই রথযাত্রা কর্মসূচি৷ যাকে কেন্দ্র করে দীর্ঘদিন ধরেই জোর জল্পনা চলছে রাজ্য রাজনীতিতে৷ একযোগে গেরুয়া শিবিরের এই কর্মসূচিকে আক্রমণ শানিয়েছে তৃণমূল-বাম-কংগ্রেস৷ তবে রথযাত্রা কর্মসূচি নিয়ে এবার নজিরবিহীন ভাবে নিজেদের ঘরেই বিরোধের মুখে পড়তে হল বিজেপিকে৷ কর্মসূচিতে উপস্থিত থাকবেন না বলে জানিয়ে দিলেন কুমার শানু৷ সোমবার বিখ্যাত এই গায়ক বলেন, “এই কর্মসূচির বিষয়ে আমি কিছুই জানি না৷ আমারা সঙ্গে কথা না বলেই আমন্ত্রণপত্রে নাম ছাপানো হয়েছে৷” এমনকী, এই ঘটনার পিছনে ষড়যন্ত্র করার ও গুজব ছড়ানোরও অভিযোগ তুলেছেন তিনি৷ যদিও তাঁর এই অভিযোগে কান দিতে নারাজ বঙ্গ বিজেপি নেতৃত্ব৷ দলের রাজ্য সাধারণ সম্পাদক সায়ন্তন বসু বলেন, “কুমার শানু বিজেপির সদস্যপদ নিয়েছিলেন বলে জানতাম৷ সেইজন্যই রথযাত্রা কর্মসূচিতে তাঁর নাম প্রস্তাব করে দিল্লির নেতৃত্বের কাছে পাঠানো হয়৷ এখন তিনি কেন আসবেন না সেই বিষয়ে আমাদের কিছু জানা নেই৷”

[শিয়ালদহ ডাউন লাইনে ফাটল, ব্যাহত রেল পরিষেবা]

২০১৪-তে বেশ ঢাকঢোল পিটিয়েই বিজেপিতে নাম লেখান গায়ক কুমার সানু৷ তাঁর হাতে দলীয় পতাকা তুলে দেন খোদ সর্বভারতীয় সভাপতি অমিত শাহ৷ অভিযোগ, দলে থাকলেও গত চার বছরে দলীয় কর্মসূচিতে যোগ দিতে তেমন একটা দেখা যায়নি এই গায়ককে৷ এমনকী, দলের শীর্ষ নেতৃত্বের সঙ্গেও যোগাযোগও রাখতেন না তিনি৷ যদিও এই সমস্ত অভিযোগ উড়িয়ে দিয়েছেন বিখ্যাত এই গায়ক৷ তাঁর পালটা যুক্তি, স্কুলের কাজের অগ্রগতির জন্যই তিনি বিজেপিতে নাম লিখিয়েছিলেন৷ কিন্তু বাস্তবে কোনও কাজ হয়নি৷ তিনি আর কোনও রাজনৈতিক দলের সঙ্গে যুক্ত নন।

এই রথযাত্রা কর্মসূচিকে কেন্দ্র করে বিজেপির কর্মীদের মধ্যে উত্তেজনা তুঙ্গে৷ বিজেপি সূত্রে খবর, কোচবিহার, কাকদ্বীপ ও তারাপীঠে হতে চলা এই কর্মসূচির প্রচারের মুখ হিসাবে বেছে নেওয়া হয়েছে দলের রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ, কেন্দ্রীয় সাধারণ সম্পাদক রাহুল সিনহা, সাংসদ বাবুল সুপ্রিয় ও মুকুল রায়কে৷ তাঁদের নাম প্রস্তাব করেছে বিজেপির কেন্দ্রীয় নেতৃত্বই৷ মূল অনুষ্ঠানের আগে সমগ্র রাজ্যজুড়ে এই কর্মসূচির প্রচার করবেন এঁরাই৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে