BREAKING NEWS

৫ আশ্বিন  ১৪২৮  বুধবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

লালবাজারের Special অফিসারের পরিচয় দিয়ে গ্রেপ্তার ভুয়ো IPS, বাজেয়াপ্ত নীল বাতির গাড়িও

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: July 27, 2021 8:52 am|    Updated: July 27, 2021 10:53 am

Lalbazar police arrests fake IPS with his two aids, blue beacon car seized | Sangbad Pratidin

অর্ণব আইচ: ভুয়ো IAS’এর পর এবার শহরে গ্রেপ্তার ভুয়ো IPS (Fake IPS)। তার নিরাপত্তারক্ষী এবং গাড়িচালককেও গ্রেপ্তার করা হয়েছে। বাজেয়াপ্ত হয়েছে নীল বাতি লাগানো গাড়ি। লালবাজার (Lalbazar) সূত্রে খবর, রাজর্ষি ভট্টাচার্য নামে ধৃত ওই ব্যক্তি নিজেকে কলকাতা পুলিশের স্পেশ্যাল দায়িত্বপ্রাপ্ত অফিসারের পরিচয় দিত। অনেকদিন ধরেই নীল বাতির গাড়ি চড়ে ঘুরে বেড়াত সে। প্রাথমিকভাবে তার ভুয়ো পরিচয় কেউ ধরতেই পারেনি। কিন্তু তোলা আদায়ের চেষ্টা করতে সংশয় হয়। জাকির হোসেন নামে  এক ব্যক্তি অভিযোগ করেন তার বিরুদ্ধে। অভিযোগ পেতেই লালবাজারের পুলিশ কর্তারা তদন্ত শুরু করে। তারপর সোমবার রাতেই পুলিশের জালে ধরা পড়ে বেলঘরিয়ার বাসিন্দা রাজর্ষি ভট্টাচার্য। তার দুই সঙ্গী অভিজিৎ দাস ও মহম্মদ সিকান্দারও গ্রেপ্তার হয়েছে।

Fake IPS

দেবাঞ্জন দেব – ভুয়ো করোনা ভ্যাকসিন (Fake corona vaccine) টিকাকাণ্ডে গ্রেপ্তার হওয়ার পর নীল বাতির গাড়ি ব্যবহার নিয়ে কার্যত আইনি নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছিল। কে বা কারা এই বাতির গাড়ি ব্যবহার করতে পারবেন, কারা পারবেন না – তা নির্দিষ্ট করে দেওয়া হয়েছিল। কিন্তু তারপরও কলকাতায়া অবৈধভাবে নীল বাতি লাগানো গাড়ির ব্যবহার কমেনি। এর আগেও ভুয়ো সিবিআই আধিকারিকের পরিচয় দেওয়া এক ব্যক্তিকে পার্ক স্ট্রিট থেকে গ্রেপ্তার করার সময় পুলিশ তার নীল বাতির গাড়ি বাজেয়াপ্ত করে। আর সোমবার রাতে ভুয়ো পুলিশ কর্তা রাজর্ষির কাছেও মিলল সেই গাড়ি। তিনি একটি নামী সংস্থার চারচাকার গাড়িতে নীল বাতি লাগিয়ে ঘুরতেন বলে অভিযোগ। রাজর্ষির আজ আদালতে পেশ করে নিজেদের হেফাজতে নিতে চায় পুলিশ। IPS’এর ভুয়ো পরিচয় দিয়ে রাজর্ষি ঠিক কী কী কীর্তিকলাপ করেছে, তার বিশদে জানাই লক্ষ্য কলকাতা পুলিশের।

[আরও পডুন: বৈঠকে বচসার পর অসুস্থ BJP যুবনেতা, পরে মৃত্যু হাসপাতালে

অন্যদিকে, হ্যাকারদের ফাঁদে পড়েছেন রাজ্যের নিরাপত্তা অধিকর্তা IPS বিবেক সহায়। তাঁর ফেসবুক (Facebook) অ্যাকাউন্ট হ্যাক করে মেসেজ বক্স থেকে বার্তা পাঠানো হচ্ছে বলে অভিযোগ। নিজেই ফেসবুক পোস্ট করে সোশ্যাল মিডিয়ার বন্ধুদের এ বিষয়ে সতর্ক করেছেন বিবেক সহায়। কে বা কারা এই ঘটনায় জড়িত, তা নিয়ে তদন্ত শুরু হয়েছে বলে জানান তিনি। IPS বিবেক সহায়ের অনুমান, গাজিয়াবাদ থেকে কোনও একটি চক্র এই অপরাধমূলক কাজের সঙ্গে জড়িত। আরেকদিকে, ভুয়ো কলসেন্টার খুলে বেআইনি কার্যকলাপ চালানোর অভিযোগে পার্ক স্ট্রিট থেকে গ্রেপ্তার করা হয়েছে ১১ জনকে।

[আরও পডুন: Newtown: ভয় দেখিয়ে ২ মডেলের পর্ন ভিডিও শুটের অভিযোগ, কুন্দ্রা-চক্রের যোগ নয়তো?]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

×