২২ আষাঢ়  ১৪২৭  মঙ্গলবার ৭ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

বিরোধ ভুলিয়ে দিল পরিযায়ী শ্রমিকের দল, তৃণমূল সরকারের পাশে ১৭ বামপন্থী সংগঠন

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: May 28, 2020 5:30 pm|    Updated: May 28, 2020 5:47 pm

An Images

ক্ষীরোদ ভট্টাচার্য: যে কোনও ইস্যুতে রাজনৈতিক বিরোধিতা থাকলেও পরিযায়ী শ্রমিকদের নিয়ে রাজ্যের তৃণমূল সরকারের পাশে দাঁড়ালেন বামপন্থীরা। সিপিএম, সিপিআই-সহ একযোগে ১৭ টি বাম দল কেন্দ্রের সমালোচনা করে কার্যত রাজ্যের শাসকদলের পক্ষই নিল। আজ, বৃহস্পতিবার রেড রোডে আম্বেদকরের মূর্তির সামনে বামপন্থী দলগুলি কর্মসূচি থেকে নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করল। আমফান ইস্যু নিয়েও এদিন সরব হয়েছে বাম নেতৃত্ব।

Left-agi

লকডাউন শেষের মুখে। তারপর অন্যান্য রাজনৈতিক দলের মতোই ফের কর্মসূচিতে ফিরে আসছে সিপিএম-সহ বামপন্থী দলগুলি। উল্লেখযোগ্য বিষয়, গত তিন মাস নানা কর্মসূচিতে শুধুমাত্র সংগঠনের রাজ্য নেতৃত্বকেই দেখা গিয়েছিল। কিন্তু বৃহস্পতিবার রেড রোডে আম্বেদকর মূর্তির সামনে কর্মসূচিতে চোখে পড়ার মতো কর্মী-সমর্থক জমায়েত হন। সিপিএম, সিপিআই-সহ ১৭টি বাম দল কিন্তু এদিন রাজ্য সরকারের পাশে দাঁড়িয়েছে পরিযায়ী শ্রমিক ইস্যুতে।

[আরও পড়ুন: স্বাস্থ্যকর্মীদের থেকে সংক্রমণ পরিবারেও, বেলেঘাটা আইডি’র কর্মী আবাসনে করোনা আক্রান্ত ৭]

তিন মাস আগে করোনা সংক্রমণ বাড়ার জন্য রাজ্য সরকারের সমালোচনা করলেও এদিন কিন্তু ভিন্ন সুর বাম নেতৃত্বর গলায়। বামফ্রন্ট চেয়ারম্যান বিমান বসু বা সিপিএম রাজ্য সম্পাদক সূর্যকান্ত মিশ্র-সহ সিপিআই, আরএসপি এবং ফরওয়ার্ড ব্লক নেতৃত্বের স্পষ্ট অভিযোগ, অতি শক্তিশালী ঘূর্ণিঝড় আমফানের জন্য কেন্দ্র আর্থিক সাহায্য দিলেও, করোনা মোকাবিলায় একটি কানাকড়িও রাজ্যকে দেওয়া হয়নি। বরং কেন্দ্রীয় দল পাঠিয়ে দফায় দফায় খোঁজ নিয়েছে।

[আরও পড়ুন: পাতানো বাবাই জামাইষষ্ঠীতে মুশকিল আসান, বাজার করে পঞ্চব্যঞ্জনের বন্দোবস্ত করলেন বৃদ্ধ]

বামফ্রন্ট নেতৃত্বের আরও অভিযোগ, ভিন রাজ্য থেকে ফেরা পরিযায়ী শ্রমিকদের ট্রেন ভাড়ার ৭৫ শতাংশ বহন করতে হচ্ছে। কিন্তু কেন্দ্র বলছে, নিখরচায় শ্রমিকদের আনা হচ্ছে। এ নিয়ে কেন্দ্রীয় সরকার নিজেদের অবস্থান স্পষ্ট করুক। এদিন বাম নেতৃত্ব দাবি করে, রাজ্যে করোনা ভাইরাসের সংক্রমণ লাফিয়ে লাফিয়ে বাড়ছে। যত বেশি পরিযায়ী শ্রমিক রাজ্যে ফিরবেন, ততই রোগ বাড়বে। তাই রাজ্য প্রশাসনকে এই বিষয়ে সমস্ত তথ্য জানানো হোক। করোনা সংক্রমণ রুখতে জন্য রাজ্য সরকারকে আর্থিক সাহায্য দেওয়া উচিত বলেও একমত হন বাম নেতারা। লকডাউনের মাঝে কর্মসূচি। তাই সামাজিক দূরত্ব বজায় রেখেই সমাবেশ হল এদিন। প্ল্যাকার্ড, পোস্টার, ফেস্টুন নিয়ে বাম কর্মীদের অনেকেই হাজির ছিলেন রেড রোডে। লকডাউন উঠলে এই ইস্যুতে আরও বড় সমাবেশ হবে বলে এদিন জানিয়েছে বাম নেতৃত্ব।

ছবি: পিন্টু প্রধান।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement