Advertisement
Advertisement

Breaking News

Lok Sabha Election 2024

ভোটের মাঝে বিজেপির বিজ্ঞাপনে অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশ কলকাতা হাই কোর্টের

বিজেপির বিজ্ঞাপন নিয়ে বিচারপতির আরও পর্যবেক্ষণ, বিজ্ঞাপন নিয়ে তৃণমূল যে অভিযোগ করেছিল, তাতে দ্রুত পদক্ষেপ করা প্রয়োজন ছিল। কিন্তু নির্বাচন কমিশন সেটা করেনি। 

Lok Sabha Election 2024: Calcutta HC issues gag order on BJP political ad
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:May 20, 2024 2:55 pm
  • Updated:May 20, 2024 4:28 pm

গোবিন্দ রায়: লোকসভা ভোটের মাঝে বিজেপির নির্বাচনী বিজ্ঞাপনে অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশ জারি করল কলকাতা হাই কোর্ট। গত ৪, ৫, ১০ ও ১২ মে বিভিন্ন সংবাদপত্রে বিজেপি যে বিজ্ঞাপন দিয়েছিল, সেই জাতীয় কোনও বিজ্ঞাপন আর প্রকাশ করতে পারবে না বিজেপি। সেগুলি পরীক্ষিত নয় বা Unverified বলে উল্লেখ করে এমনই নির্দেশ দিলেন হাই কোর্টের বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্য।

বিজেপির (BJP) নির্বাচনী বিজ্ঞাপন নিয়ে তৃণমূলের তরফে উচ্চ আদালতে (Calcutta HC) মামলা জানানো হয়েছিল। তা নিয়ে শুনানি ছিল সোমবার। বিচারপতি সব্যসাচী ভট্টাচার্যর এজলাসে মামলাটি ওঠে। তবে বিজেপির তরফে কোনও আইনজীবী উপস্থিত ছিলেন না। বিজেপিকে মামলা সংক্রান্ত নথি দেওয়া হয়েছে, এই মর্মে কোন তথ্য আদালতে জমা দিতে পারেননি তৃণমূল কংগ্রেসের (TMC) আইনজীবীরাও। তার পরও মামলার গুরুত্ব বিবেচনা করে বিচারপতি অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশ দেন। তিনি জানান, যে কোনও ধরনের সংবাদমাধ্যমে এই বিজ্ঞাপন (Political Ad) দিতে পারবে না বিজেপি, যা Unverified. পাশাপাশি তাঁর আরও পর্যবেক্ষণ, বিজ্ঞাপন নিয়ে তৃণমূল যে অভিযোগ করেছিল, তা নিয়ে দ্রুত পদক্ষেপ করা প্রয়োজন ছিল। কিন্তু নির্বাচন কমিশন (Election Commission) সেটা করেনি। যদিও ইতিমধ্যে কমিশন ওই বিজ্ঞাপন নিয়ে পদক্ষেপ নিয়েছে। বিজেপি রাজ্য সভাপতি সুকান্ত মজুমদারকে শোকজ করা হয়েছে। মঙ্গলবার বিকেলের মধ্যে তাঁকে জবাবদিহি করতে হবে।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ‘১৩ বছর আগে মুখ্যমন্ত্রী হিসাবে প্রথম শপথ’, পুরনো কথা স্মরণ মমতার]

উল্লেখ্য, ওই বিজ্ঞাপন  সম্পর্কে ‘আনভেরিফায়েড’ বলছে আদালত। যার অর্থ, ভাল করে যাচাই না করা বিজ্ঞাপন দেওয়া। বিজেপির যে দুই বিজ্ঞাপন নিয়ে তৃণমূল আপত্তি করেছে, তার একটিতে ‘দুর্নীতির মূল মানেই তৃণমূল’ এবং অন্যটিতে ‘সনাতন বিরোধী তৃণমূল’ স্লোগান ছিল।  এই দুটি বিষয়ই বিভ্রান্তিকর এবং অবমাননামূলক বলেই মনে করছে তৃণমূল। তার ভিত্তিতে উচ্চ আদালত এই ধরনের বিজ্ঞাপনে স্থগিতাদেশ দিয়েছে। 

Advertisement

[আরও পড়ুন: লকেটের ‘চোরে’র পালটা অসীমার ‘ডাকাত’, ধনেখালিতে ধুন্ধুমার]

এনিয়ে তৃণমূলের তরফে রাজ্যের মন্ত্রী তথা মহিলা সংগঠনের নেত্রী চন্দ্রিমা ভট্টাচার্যর দাবি, এধরনের বিজ্ঞাপন অত্যন্ত অসম্মানজনক।  উচ্চ আদালতের অন্তর্বর্তী স্থগিতাদেশের জেরে এখন সেই বিজ্ঞাপন আর দেওয়া যাবে না। তবে চন্দ্রিমা প্রশ্ন তুলেছেন, যেসব সংবাদমাধ্যম বা সংবাদপত্রে এই বিজ্ঞাপন প্রকাশিত হয়েছে, তাদের থেকে কোনও জবাব চাওয়া হয়নি কেন?

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ