Advertisement
Advertisement
মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়

কেন্দ্রের চাপে আত্মঘাতী ক্যাফে কফি ডে’র কর্ণধার, বিস্ফোরক মমতা

ফেসবুকে ভি জি সিদ্ধার্থের পরিবারকে সমবেদনা জানিয়েছেন মুখ্যমন্ত্রী।

Mamata Banerjee blames Centre for CCD owner's death
Published by: Tanumoy Ghosal
  • Posted:July 31, 2019 5:23 pm
  • Updated:August 1, 2019 1:03 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক:  ‘বিভিন্ন এজেন্সিকে ব্যবহার করে ভয় দেখানো হচ্ছিল। শান্তিতে ব্যবসা করতে পারছিলেন না। মানসিক চাপ আর সহ্য করতে পারলেন না।’ ‘ক্যাফে কফি ডে’র প্রতিষ্ঠাতা ভি জি সিদ্ধার্থের মৃত্যুতে কেন্দ্রের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। বুধবার সকালে ফেসবুকে পোস্ট করে মৃত শিল্পপতির পরিবারকে সমবেদনা জানিয়েছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: সুনীল গঙ্গোপাধ্যায়কে বিশেষ সম্মান, সাহিত্যিকের নামে নামকরণ হচ্ছে কলকাতার এই রাস্তার]

পারিবারিক কফির ব্যবসা ছিলই। এ দেশে বৃহত্তম কফি চেন ‘ক্যাফে কফি ডে’ প্রতিষ্ঠা করে ব্যবসা জগতে বিপ্লব ঘটিয়ে দিয়েছিলেন ভি জি সিদ্ধার্থ। সোমবার রাতে বেঙ্গালুরু থেকে ম্যাঙ্গালুরুর দিকে রওনা হয়েছিল তিনি। কিন্তু মাঝরাস্তায় গাড়ি থামিয়ে নেমে যান সিদ্ধার্থ। তারপর আর কোনও খোঁজ মিলছিল না। পুলিশের আশঙ্কা ছিল, উলাল সেতু থেকে নেত্রাবতী নদীতে ঝাঁপ দিয়েছেন ওই শিল্পপতি। সিদ্ধার্থের খোঁজে সোমবার রাত থেকে উদ্ধারকাজেও নেমে পড়ে পুলিশ। উদ্ধারকাজ চলাকালীন একটি রহস্যময় চিঠির হদিশ মেলে। তদন্তকারীদের দাবি, চিঠিতে ‘কফি ক্যাফে ডে’ বা সিসিডি-র মালিক লিখেছিলেন, উন্নতির পথে বারবার ব্যর্থ হয়েছেন। যাঁরা তাঁর পর ভরসা করেছিলেন, তাঁদেরও হতাশ করেছেন। তাই ব্যবসায় বিপুল ক্ষতির মুখে পড়ে ভি জি সিদ্ধার্থ যে আত্মহত্যা করেছেন, তা নিয়ে আর কোনও সন্দেহ ছিল না। শেষপর্যন্ত বুধবার ভোরে ম্যাঙ্গালুরুর হুইগে বাজারে কাছে নেত্রীবতী নদী থেকে সিসিডি-র মালিক  ভি জি সিদ্ধার্থের দেহ উদ্ধার করে পুলিশ। সকালে নদীতটের কাছে মৎস্যজীবীরাই প্রথম মৃতদেহটি ভাসতে দেখেন বলে জানা গিয়েছে।

Advertisement

এদিকে পরিবার তো বটেই, সংস্থার মালিক আকস্মিক মৃত্যুতে শোকের ছায়া নেমেছে সিসিডি’র কর্মী মহলেও। দেশের বৃহত্তম কফি চেনে ভবিষ্যত নিয়ে আশঙ্কা দেখা গিয়েছে। বুধবার সকালে ফেসবুকে পোস্ট দিয়ে শিল্পপতি ভি জে সিদ্ধার্থের মৃত্যুতে দুঃখপ্রকাশ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। তিনি লিখেছেন, ‘ চিঠিতে তিনি (সিদ্ধার্থ) যা লিখে গিয়েছেন, তা থেকে স্পষ্ট, বিভিন্ন কেন্দ্রীয় এজেন্সির চাপের মুখে পড়তে হয়েছিল। নিশ্চিন্তে ব্যবসা করতে পারছিলেন না। মানসিক চাপটাই আর সহ্য করতে পারেননি।’  শুধু ভি জে সিদ্ধার্থই নন, মোদি জমানার দেশের অনেক শিল্পপতিকে নানাভাবে হয়রান হতে হচ্ছে বলে অভিযোগ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

Advertisement

 

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ