BREAKING NEWS

১৪ কার্তিক  ১৪২৭  শনিবার ৩১ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

কর্মপ্রার্থীদের জন্য সুখবর, করোনা আবহেও বাংলায় প্রচুর কর্মসংস্থানের ঘোষণা মুখ্যমন্ত্রীর

Published by: Sayani Sen |    Posted: September 23, 2020 4:37 pm|    Updated: September 23, 2020 5:19 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাখির চোখ আসন্ন নির্বাচন। তার আগে কর্মসংস্থানেই নজর মু্খ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের (Mamata Banerjee)। বুধবার তাই সাংবাদিক বৈঠকে রাজ্যে কর্মসংস্থানের দিশা দেখালেন তিনি। বানতলা, দিঘা, মেদিনীপুরের মতো একাধিক জায়গায় বিনিয়োগ হচ্ছে। রাজ্যে প্রচুর কর্মসংস্থান হবে বলেও আশ্বাস। নির্বাচনের আগে ভোটবাক্সকে মজবুত করতেই মুখ্যমন্ত্রী এমন প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন বলেই খোঁচা বিরোধীদের।

এদিন নবান্নে সাংবাদিক বৈঠকে মুখ্যমন্ত্রী বলেন, “বানতলায় চর্মশিল্পে কমপক্ষে পাঁচ লক্ষ কর্মসংস্থান হবে। জার্মানের বিনিয়োগের মেদিনীপুরে সৌরবিদ্যুৎ প্রকল্প হচ্ছে। তাতেও প্রচুর মানুষ কাজের সুযোগ পাবেন। দিঘাতেও নতুন শিল্পে কাজ পাবেন বহু বেকার যুবক-যুবতী। ক্ষুদ্র ও মাঝারি শিল্পে পশ্চিমবঙ্গ প্রথম। আমাদের এখানে জঙ্গল, সমুদ্র, পাহাড় সবই রয়েছে। সেক্ষেত্রে পর্যটন ব্যবসারও উন্নতি করা সম্ভব।” এর আগেও দিঘায় কেবল ল্যান্ডিং স্টেশন তৈরি হচ্ছে বলে জানিয়েছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। ওই কেবল ল্যান্ডিং স্টেশনে প্রায় ১ হাজার কোটি টাকা জিও লগ্নি করছে বলেও জানিয়েছিলেন তিনি। এবারও সেকথা উল্লেখ করেন মুখ্যমন্ত্রী। এছাড়াও রাজ্যের বর্তমান প্রকল্পগুলির কথাও আবার তুলে ধরেন তিনি। সবুজসাথী প্রকল্প, সবুজশ্রী প্রকল্পের কথা তুলে ধরেন তিনি। এছাড়াও পরিবেশ রক্ষার কথা মাথায় রেখেও রাজ্য সরকার পরিবেশবান্ধব নানা প্রকল্পের কথা ভাবছে বলেও জানান মুখ্যমন্ত্রী।

[আরও পড়ুন: সিবিআইয়ের নজরে গরুপাচার কাণ্ড, কলকাতা-সহ রাজ্যের বিভিন্ন প্রান্তে জারি তল্লাশি]

রাজ্যে কর্মসংস্থানের বন্দোবস্ত নেই বলে বারবার অভিযোগ করেছেন বিরোধীরা। একাধিকবার রাজ্য সরকারকে কটাক্ষ করেছেন তাঁরা। ওয়াকিবহাল মহলের মতে, রাজ্যে বিভিন্ন প্রকল্পে বিনিয়োগ আসছে। কর্মসংস্থান হবে। এই সমস্ত কথা বলে পরোক্ষে বিরোধীদেরই জবাব দিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। এছাড়াও সামনেই নির্বাচন। তার আগে কর্মসংস্থানের প্রতিশ্রুতির মাধ্যমে ভোটবাক্সকে আরও শক্তিশালী করার কাজ চলছে বলেও মত রাজনৈতিক মহলের একাংশের। যদিও বিরোধীদের দাবি, রাজ্যে শিল্প হবে না। শুধুমাত্র নির্বাচনের জন্য মিথ্যা প্রতিশ্রুতি দিয়ে যুবসমাজের ভোট পাওয়ার চেষ্টা করছেন রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান।
[আরও পড়ুন: ক্যাফেতে বোমাবাজি-গুলি, কচুরিপানা ভরা পুকুরে লুকিয়েও শেষরক্ষা হল না অভিযুক্তদের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement