১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৬ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

প্রকাশ্যে সুদীপ্ত সেনের চিঠি, ধরনা মঞ্চ থেকে বিজেপিকে তীব্র আক্রমণ মুখ্যমন্ত্রীর

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: February 5, 2019 7:03 pm|    Updated: February 5, 2019 7:03 pm

Mamata shows Sudipta Sen's letter

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: চিটফান্ড কাণ্ডে নয়া মোড়। সারদাকর্তা সুদীপ্ত সেনের গোপন চিঠি প্রকাশ্যে আনলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। চিঠিতে সুদীপ্ত লিখেছেন, বেশ কয়েকটি ভাউচার সই করে তাঁর কাছ থেকে তিন কোটি টাকা নিয়েছিলেন অসমের মন্ত্রী ও বিজেপি নেতা হিমন্ত বিশ্বশর্মা। কিন্তু সেই টাকা আর ফেরত দেননি। এই চিঠিকে হাতিয়ার করে ধরনা মঞ্চ থেকে বিজেপিকে তীব্র আক্রমণ করেছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়।

[শিলংয়ে রাজীব কুমারকে জেরা করবেন ‘নিগৃহীত’ সিবিআই আধিকারিকই]

লোকসভা ভোটের মুখে চিটফান্ড নিয়ে ফের সরগরম রাজ্য রাজনীতি। সিবিআইয়ের সঙ্গে রাজ্য পুলিশের সংঘাত চরমে। রবিবার বিকেলে কলকাতার পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে জেরা করতে তাঁর বাংলোয় যান কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার আধিকারিকরা। তাঁদের বাধা দেন কলকাতা পুলিশের আধিকারিকরা। এমনকী, সিবিআই আধিকারিকদের আটক করে নিয়ে যাওয়া হয় শেক্সপিয়র সরণি থানায়। সিবিআই হানার প্রতিবাদে কলকাতার মেট্রো চ্যানেলে ধরনায় বসেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। মামলা গড়ায় সুপ্রিম কোর্টে। শীর্ষ আদালতের নির্দেশ, চিটফান্ড কাণ্ডের তদন্তে সিবিআইকে সাহায্য করতে হবে পুলিশ কমিশনার রাজীব কুমারকে। তবে তাঁকে এখনই গ্রেপ্তার করা যাবে না। এই যখন পরিস্থিতি, তখন সারদাকর্তা সুদীপ্ত সেনের চিঠিকে হাতিয়ার করে বিজেপির বিরুদ্ধে সুর চড়ালেন মুখ্যমন্ত্রী।

বছর ছয়েক আগে এ রাজ্যে চিটফান্ড কাণ্ড প্রকাশ্যে আসার পর, কাশ্মীরে গা ঢাকা দেন সারদাকর্তা সুদীপ্ত সেন। জানা গিয়েছে, পালানোর আগে দুর্নীতিদমন শাখার গোয়েন্দাদের একটি চিঠি লিখেছিলেন তিনি। সেই চিঠিই প্রকাশ্যে চলে এসেছে। চিঠির বয়ান অনুযায়ী, বেশ কয়েকটি ভাউচারে সই করিয়ে চিটফান্ড সংস্থা সারদা থেকে তিন কোটি টাকা নিয়েছিলেন অসমের মন্ত্রী ও বিজেপি নেতা হিমন্ত বিশ্বশর্মা। কিন্তু, সেই টাকা আর ফেরত দেননি তিনি। মঙ্গলবার ধরনা মঞ্চ থেকে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বলেন, ‘হিমন্তের বিরুদ্ধে কেন ব্যবস্থা নেওয়া হচ্ছে না? বিজেপি করেন বলেই কি সাতখুন মাফ?’ যদিও পালটা টুইট করে সারদার থেকে টাকা নেওয়ার অভিযোগ অস্বীকার করেছেন হিমন্ত বিশ্বশর্মা।

 

এদিকে আবার সারদাকাণ্ডে অন্যতম অভিযুক্ত দেবযানী মুখোপাধ্যায়কে জেরা করতে চেয়ে বারাসত আদালতে আবেদন করল সিবিআই। এখন দমদম সেন্ট্রাল জেলে বন্দি দেবযানী। ১৩ ফেব্রুয়ারি জেলে গিয়ে তাঁকে জেরার করার জন্য আদালতের অনুমতি চেয়েছে কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থা। সারদাকাণ্ডের তদন্তে রাজীব কুমারের নেতৃত্ব সিট গঠন করেছিল রাজ্য সরকার। সিবিআই সূত্রে খবর, জেরায় দেবযানী মুখোপাধ্যায় জানিয়েছিলেন, তদন্ত চলাকালীন মিডল্যান্ড পার্কের অফিস থেকে বেশ কয়েকটি ইলেকট্রিক ডিভাইস বাজেয়াপ্ত করেছিলেন সিটের সদস্যরা।  

[ মমতার ধরনা মঞ্চে নেই অভিষেক, তুঙ্গে রাজনৈতিক চর্চা

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে