৪ অগ্রহায়ণ  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ২১ নভেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বিধ্বংসী অগ্নিকাণ্ড হাওড়ার এক তুলোর গুদামে। দাউদাউ করে জ্বলছে সালকিয়ার বাঁধাঘাটের তুলোর গুদাম। খবর পেয়ে ঘটনাস্থলে পৌঁছায় দমকলের ৪টি ইঞ্জিন। তুলো অত্যন্ত দাহ্য পদার্থ হওয়ায় আগুনের লেলিহান শিখা দ্রুত আশেপাশে ছড়িয়ে পড়েছে। এলাকাটি ঘন জনবসতিপূর্ণ এবং ঘিঞ্জি হওয়ায় আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে বেশ বেগ পেতে হচ্ছে দমকল কর্মীদের।
আজ দুপুর দেড়টা নাগাদ সালকিয়ার বাঁধাঘাটের তুলোর গুদাম থেকে দাউদাউ করে আগুন জ্বলতে দেখেন স্থানীয় বাসিন্দারা। সপ্তাহের কাজের দিনে, ব্যস্ত সময়ে এলাকাটি বেশ জমজমাট ছিল। আগুন দেখে আতঙ্কিত হয়ে পড়েন আশেপাশের মানুষজন। সকলেই ঘটনাস্থল থেকে নিরাপদ দূরত্বে চলে যাওয়ার চেষ্টা করতে থাকেন। হুড়োহুড়ি পড়ে যায়।

[ আরও পড়ুন: প্রয়াত বর্তমান পত্রিকার সম্পাদক শুভা দত্ত, শোকপ্রকাশ মুখ্যমন্ত্রীর]

খবর পৌঁছায় দমকলের কাছে। সঙ্গে সঙ্গে ৪টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নেভানোর কাজ শুরু করে। কিন্তু এলাকাটি ঘিঞ্জি হওয়ায় হাইড্রোলিক ল্যাডার নামিয়ে কাজ করা বেশ কষ্টসাধ্য হয়ে দাঁড়ায় দমকল বাহিনীর কাছে। ততক্ষণে আগুন ছড়িয়ে গিয়েছে অনেকটাই। আশেপাশের ছোট গুদামগুলিও ধীরে ধীরে আগুনের গ্রাসে চলে যায়। দমকল কর্মীদের প্রাথমিক অনুমান, প্রায় ১২০০ বর্গফুট এলাকা জুড়ে আগুন ছড়িয়ে পড়েছে।
এই আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা দমকলের পক্ষে কার্যত চ্যালেঞ্জ হয়ে দাঁড়ায়। কী কারণে এবং ঠিক কোথায় আগুন লেগেছে, তার উৎস জানা যায়নি এখনও। মূল গুদামটির আগুন নিয়ন্ত্রণে আনা মুশকিল হচ্ছে স্থানাভাবের জন্য। সাধারণ পাইপ থেকে জল ছিটিয়ে আগুন নেভানোর মরিয়া চেষ্টা করছেন দমকল কর্মীরা। গুদামের ভিতরে কেউ আটকে আছেন কি না, কতটা কী ক্ষয়ক্ষতি হয়েছে, সেসব কিছুই জানা যায়নি এখনও পর্যন্ত। আপাতত আগুন নিয়ন্ত্রণে আনাই মূল লক্ষ্য দমকলের। পরিস্থিতি জটিল হওয়ায় দমকলের আরও কয়েকটি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পাঠানো হয়েছে বলে খবর।

[ আরও পড়ুন: ছাত্র আত্মহত্যার ঘটনায় প্রিন্সিপালকে সরানোর দাবি, স্কুলের আশ্বাসে উঠল বিক্ষোভ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং