২২  আশ্বিন  ১৪২৯  শুক্রবার ৭ অক্টোবর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

নিমতলার কাঠের গুদামে ভয়াবহ অগ্নিকাণ্ড, ঘিঞ্জি এলাকায় আগুন নেভাতে নাজেহাল দমকল

Published by: Sulaya Singha |    Posted: July 30, 2022 11:18 am|    Updated: July 30, 2022 12:15 pm

massive fire breaks out in Kolkata market, 6 fire engines rushed to spot | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: সাতসকালে শহর কলকাতার নিমতলা এলাকার এক কাঠের গুদামে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনায় ছড়াল তীব্র চাঞ্চল্য। ঘিঞ্জি এলাকায় ওই গুদাম হওয়ায় আগুন নেভাতে রীতিমতো হিমশিম খেতে হয় দমকল কর্মীদের।

শনিবার সকালে নিমতলার (Nimtala) একটি কাঠের গুদামে আচমকাই আগুন লেগে যায়। স্থানীয়দের মধ্যে ছড়িয়ে পড়ে আতঙ্ক। গোটা এলাকা কালো ধোঁয়ায় ঢেকে যায়। গুদামে দাহ্য পদার্থ থাকায় সেই আগুন দ্রুত আশপাশের দোকানেও ছড়িয়ে পড়ে বলে খবর। প্রথমে দমকলের ছ’টি ইঞ্জিন ঘটনাস্থলে পৌঁছে আগুন নিয়ন্ত্রণে আনার চেষ্টা করে। কিন্তু আগুনের ভয়াবহতা দেখে পরে আরও চারটি ইঞ্জিন এসে পৌঁছায়। নিরাপদ স্থানে সরানো হয় ওই এলাকার বাসিন্দাদেরও। তবে ঘিঞ্জি এলাকায় গুদামটি অবস্থিত হওয়ায় যেমন দ্রুত আগুন ছড়িয়ে পড়ার সম্ভাবনা তৈরি হয়, তেমনই আগুন নেভাতেও বেগ পেতে হয় দমকল কর্মীদের।

[আরও পড়ুন: অর্পিতাকে জেরায় ৬টি কোম্পানির খোঁজ, ফ্রিজ প্রাক্তন মন্ত্রী ‘ঘনিষ্ঠে’র আটটি ব্যাংক অ্যাকাউন্ট]

যদিও প্রায় ঘণ্টা দুয়েকের চেষ্টায় আগুন অনেকটাই নিয়ন্ত্রণে আনা সম্ভব হয়েছে বলে খবর। গুদামের ভিতর থেকে দাহ্য পদার্থগুলি সরিয়ে ফেলার কাজ চলছে। পাশাপাশি আর কোনও ফায়ার পকেট রয়ে গিয়েছে কি না, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। আগুনে বিপুল ক্ষয়ক্ষতির আশঙ্কা করা হচ্ছে।

ইতিমধ্যেই ঘটনাস্থলে পৌঁছেছেন রাজ্যের মন্ত্রী শশী পাঁজা। এরপরই যান দমকল মন্ত্রী সুজিত বসুও। আগুন নিয়ন্ত্রণে আনতে কোনও সমস্যা হচ্ছে কি না কিংবা কী প্রয়োজন, তা তদারকি করছেন তাঁরা। কিন্তু ঠিক কীভাবে অগ্নিকাণ্ডের ঘটনা ঘটল? দমকল কর্মীদের প্রাথমিক অনুমান, শর্ট সার্কিট থেকেই আগুন লেগেছে। এর নেপথ্যে অন্য কোনও কারণ আছে কি না, তাও খতিয়ে দেখা হচ্ছে। তবে ঘটনায় কোনও হতাহতের খবর নেই।

[আরও পড়ুন: ‘যা পারফরম্যান্স দেখিয়েছেন, আমি চুনোপুঁটি’, পার্থ-অর্পিতার ‘ঘনিষ্ঠতা’ নিয়ে মুখ খুললেন মদন]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে