BREAKING NEWS

৪ আশ্বিন  ১৪২৭  মঙ্গলবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

স্বাস্থ্য কমিশন হস্তক্ষেপ করতেই করোনায় মৃত চিকিৎসকের বিল সাড়ে ৩ লক্ষ টাকা কমাল মেডিকা

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: August 13, 2020 2:26 pm|    Updated: August 13, 2020 2:26 pm

An Images

অভিরূপ দাস: স্বাস্থ্য কমিশনের মেসেজ পাওয়ার পরই পদক্ষেপ নিল মেডিকা। করোনায় প্রয়াত শ্যামনগরের চিকিৎসকের বিল রিভিউ করে কমানো হল ৩ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা। হাসপাতালের এই পদক্ষেপের প্রশংসা করেছেন স্বাস্থ্য কমিশনের চেয়ারম্যান।

কিছুদিন আগেই করোনা (Corona Virus) আক্রান্ত হন প্রথম সারির যোদ্ধা শ্যামনগরের বাসিন্দা চিকিৎসক প্রদীপ ভট্টাচার্য। বাইপাসের ধারের হাসপাতালে দীর্ঘ লড়াইয়ের পর মৃত্যু হয় তাঁর। এরপর হাসপাতালের বিল দেখেই হতবাক হয়ে যায় পরিবার। কারণ, হাসপাতালের তরফে দাবি করা হয় ১৯ লক্ষ টাকা। বিষয়টি প্রকাশ্যে আসার পরই বুধবার মেডিকা সুপার স্পেশ্যালিটি হাসপাতালকে টেক্সট মেসেজ করে করোনা আক্রান্ত মৃত চিকিৎসকের আকাশছোঁয়া বিল ফের রিভিউ করে কিছু টাকা পরিবারের হাতে দেওয়ার জন্য আবেদন জানান রাজ্যের স্বাস্থ্য নিয়ন্ত্রক কমিশন। জানা গিয়েছে, মিনিট পাঁচেকের মধ্যেই হাসপাতালের তরফে জানানো হয় যে বিল রিভিউ করা হচ্ছে।

[আরও পড়ুন: কোভিড যোদ্ধাদের প্রতি আরও মানবিক রাজ্য সরকার, মৃত্যুতে পরিবারের কাউকে চাকরির সিদ্ধান্ত]

এরপর বৃহস্পতিবার স্বাস্থ্য কমিশনের চেয়ারম্যান অসীম বন্দ্যোপাধ্যায় জানান, বিল রিভিউ করে ৩ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা ছাড় দিয়েছে হাসপাতাল। অর্থাৎ বিল হয়েছিল ১৮ লক্ষ ৩৪ হাজার টাকা। তার মধ্যে পরিবারকে দিতে হয়েছিল ১১ লক্ষ ৭৫ হাজার টাকা। সেখান থেকেই ছাড় দেওয়া হল ৩ লক্ষ ৬০ হাজার টাকা। অবিলম্বে টাকা ফেরানো হবে বলে জানা গিয়েছে। প্রসঙ্গত, বিল রিভিউর জন্য স্বতঃপ্রণোদিতভাবে স্বাস্থ্য কমিশনের মেসেজ পাঠানোর ঘটনা এ রাজ্য এই প্রথম। উল্লেখ্য, হাসপাতালের বিল দেখে ক্ষোভ প্রকাশ করেছিলেন শ্যামনগরের বাসিন্দারাও। তাঁদের কথায়, “উনি নিজে চিকিৎসক হয়ে অনেক সময়েই দরিদ্র রোগীর কাছ থেকে ভিজিট নিতেন না। নিজেই পকেট থেকে ওষুধের টাকা দিয়ে দিতেন। এমন একজন চিকিৎসকের মৃত্যুতে তাঁর সহকারীরা ১৯ লক্ষ টাকা বিল করল। এটা অমানবিক।” হাসপাতালের নয়া সিদ্ধান্ত খুশি তাঁরাও।

[আরও পড়ুন: টাকা নিয়ে দর কষাকষির মধ্যেই ডিসানের বাইরে মৃত্যু বৃদ্ধার, স্বতঃপ্রণোদিত মামলা স্বাস্থ্য কমিশনের]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement