৩ শ্রাবণ  ১৪২৬  শুক্রবার ১৯ জুলাই ২০১৯ 

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: খোদ ফোর্ট উইলিয়ামের ভিতরেই নাবালিকাকে ধর্ষণ৷ অভিযোগ উঠল সাগর মল্লিক নামের এক যুবকের বিরুদ্ধে৷ অভিযুক্ত ওই নাবালিকার প্রতিবেশীর আত্মীয় বলে জানা গিয়েছে৷ ইতিমধ্যে তাকে গ্রেপ্তার করেছে ময়দান থানার পুলিশ৷

[ আরও পড়ুন: ম্যানড্রেকের সংস্থার বিরুদ্ধে মামলা পুলিশের, জেরার মুখে জাদু সঙ্গীরা ]

জানা গিয়েছে, ওই নাবালিকা ফোর্ট উইলিয়ামের এক নির্মাণ কর্মীর মেয়ে৷ তাঁরা ফোর্ট উইলিয়ামের ভিতর এক কামরার একটি ঘরে থাকে৷ এবং অভিযুক্ত যুবক মাঝে মধ্যেই প্রতিবেশীর বাড়িতে আসত৷ পুলিশ সূত্রে খবর, গত ১৫ জুন সন্ধ্যা ৬টা থেকে ৮টার মধ্যে ওই নাবালিকার বাড়িতে কেউ ছিল না৷ তার বাবা-মা বাজারে গিয়েছিলেন৷ সেই সুযোগ নিয়েই ঘরে ঢুকে নাবালিকাকে ধর্ষণ করে অভিযুক্ত সাগর মল্লিক৷ এরপর পালিয়ে যায় সে৷ রাতে বাবা-মা বাড়ি ফিরলে, তাঁদের কাছে সমস্ত ঘটনা খুলে বলেন ওই নাবালিকা৷ এরপর ওইদিন রাতেই ময়দান থানায় যান নাবালিকার বাবা৷ অভিযোগ দায়ের করেন তিনি৷

[ আরও পড়ুন: সার্ভিস রিভলভার থেকে গুলি, সহকর্মীদের সামনেই আত্মঘাতী কনস্টেবল ]

পুলিশ জানিয়েছে, অভিযোগ পাওয়া মাত্রই তৎপর হন তাঁরা৷ নাবালিকার মেডিক্যাল পরীক্ষা করানো হয়৷ নেওয়া হয় গোপন জবানবন্দি৷ এরপরই অভিযুক্তের খোঁজ শুরু করে পুলিশ৷ মঙ্গলবার তার খোঁজ পান তদন্তকারীরা৷ জানতে পারেন ময়দান এলাকাতেই গা ঢাকা দিয়েছে অভিযুক্ত সাগর মল্লিক৷ এরপর মঙ্গলবারই অভিযুক্তকে গ্রেপ্তার করেন তদন্তকারীরা৷ ভারতীয় দণ্ডবিধির ৩৭৬/২/এফ ধারা এবং পকসো আইনে অভিযুক্তের বিরুদ্ধে মামলা রুজু করা হয়। ওইদিনই  তাকে পেশ করা হয় আদালতে৷ অভিযুক্তকে পুলিশি হেফাজতে রাখার নির্দেশ দেয় আদালত৷ জানা গিয়েছে, পুলিশের পাশাপাশি ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে ফোর্ট উইলিয়ামের মিলিটারি পুলিশও৷

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং