৫ মাঘ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১৯ জানুয়ারি ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

বাংলার রাজ্যপাল ‘বিজেপির মুখপাত্র’, জগদীপ ধনকড়কে পালটা খোঁচা নুসরতের

Published by: Sayani Sen |    Posted: November 23, 2020 3:57 pm|    Updated: November 23, 2020 4:00 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পাখির চোখ বিধানসভা নির্বাচন। সময় যত এগোচ্ছে ততই চড়ছে ভোটের উত্তাপ। আপাতত শাসক-বিরোধী বাকযুদ্ধে সরগরম রাজ্য রাজনীতি। সোমবার তৃণমূল ভবন থেকে সাংবাদিক বৈঠকে একাধিক ইস্যুতে বিজেপিকে চাঁচাছোলা ভাষায় বিঁধলেন বসিরহাটের তারকা সাংসদ নুসরত জাহান (Nusrat Jahan)। রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়কেও একহাত নেন তিনি।

দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে রাজ্যের সঙ্গে রাজ্যপালের সম্পর্ক মোটেও ভাল নয়। কখনও প্রশাসনিক আবার কখনও শিক্ষাক্ষেত্রে দুর্নীতির অভিযোগে সুর চড়িয়েছেন জগদীপ ধনকড় (Jagdeep Dhankhar)। তাই রাজভবন এবং নবান্নের মধ্যে টুইট-পালটা টুইট এবং পত্রবোমা আদানপ্রদান লেগেই থাকে। সম্প্রতি গরুপাচার এবং কয়লা কাণ্ড নিয়ে জোরাল আক্রমণের পথে হেঁটেছেন রাজ্যপাল। একাধিক সংঘাতের প্রসঙ্গে রাজ্যপালকে এদিন বিঁধলেন নুসরত। তাঁকে ‘বিজেপির মুখপাত্র’ বলে কটাক্ষ করেন। 

[আরও পড়ুন: কলকাতায় চিরস্থায়ী ‘অপুর সংসার’, সৌমিত্রর স্মৃতি আঁকড়ে ধরে রাখতে অভিনব উদ্যোগ হিডকোর]

অন্যদিকে, সোমবার দুপুরে  বাঁকুড়ার সভায় যখন কর্মসংস্থান নিয়ে বক্তব্য রাখছিলেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee), ঠিক সেই সময় একই ইস্যুতে বাংলাকে কোণঠাসা করে টুইট রাজ্য বিজেপির সহ পর্যবেক্ষক অমিত মালব্যর (Amit Malviya)। টুইটে তিনি লেখেন, “মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় তাঁর মুখ্যমন্ত্রিত্বের মেয়াদ শেষের পর্যায়ে এসে ৩৫ লক্ষ চাকরির প্রতিশ্রুতি দিচ্ছেন। কিন্ত বাস্তব হল তৃণমূল কংগ্রেসের দুর্নীতি এবং সিন্ডিকেট নীতি, অবশিষ্ট চাকরিগুলিও ছিনিয়ে নিয়েছিল যুবক-যুবতীদের থেকে। সিএমআইই(CMIE) এর তথ্য অনুযায়ী, ২০১৬ অক্টোবর থেকে ২০২০ পর্যন্ত পশ্চিমবঙ্গে বেকারত্ব বৃদ্ধি পেয়েছে ২১৭ শতাংশ। “

সাংবাদিক বৈঠক করে তার পালটা জবাব দিলেন বসিরহাটের তৃণমূল সাংসদ নুসরত জাহান। কর্মসংস্থান ইস্যুতে কেন্দ্র সরকারকে বিঁধলেন তিনি। সাংসদের খোঁচা, “প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদি বলেছিলেন বছরে ২ লক্ষ কর্মসংস্থান হবে। একটিও হয়নি। এখন দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh) একই কথা বলছেন। ঢপবাজি বাংলায় চলবে না। বাংলার মানুষ অশিক্ষিত নন।” এছাড়াও বাংলা দখলের স্বপ্ন দেখার আগে বাংলা ভাষা এবং শিক্ষা সম্পর্কে বিজেপিকে ওয়াকিবহাল হওয়ার বার্তাও দিয়েছেন তিনি।

[আরও পড়ুন: ‘উর্দিধারীদের দুর্নীতি ফাঁস করা দরকার’, ফের ধনকড়ের নিশানায় পুলিশ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement