BREAKING NEWS

১৯  মাঘ  ১৪২৯  শুক্রবার ৩ ফেব্রুয়ারি ২০২৩ 

READ IN APP

Advertisement

বিতর্ককে হারিয়ে নজির বাঙ্গুর হাসপাতালের, সাত দিনে সুস্থ হলেন প্রায় ২০০ করোনা রোগী

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: May 3, 2020 10:08 am|    Updated: May 3, 2020 10:08 am

MR Bangur Hospital makes headlines as 200 covid patients discharged

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: এক কথায় নজিরবিহীন ঘটনা। গত এক সপ্তাহে কলকাতার এমআর বাঙ্গুর হাসপাতাল থেকে সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন প্রায় ২০০ জন করোনা আক্রান্ত রোগী। এই রেকর্ড সংখ্যক রোগীর সুস্থ হওয়া কলকাতায় নজির। চিকিৎসক থেকে স্বাস্থ্যকর্মী, সবাই বলছেন মিরাকল। কয়েকজন ছাড়া অধিকাংশই করোনার উপসর্গ নিয়ে হাসপাতালে ভরতি হয়েছিলেন। এত অল্প সময়ে বেশি সংখ্যক রোগীকে সুস্থ করে নজির গড়ল এমআর বাঙ্গুর হাসপাতাল।

প্রসঙ্গত, শনিবারই ৪৬ জন রোগী সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরেছেন। গত কয়েকদিন ধরে একের পর এক বিতর্কের সৃষ্টি হয় এমআর বাঙ্গুর হাসপাতালকে ঘিরে। সোশ্যাল মিডিয়ায় ছড়িয়ে পড়ে হাসপাতালের অব্যবস্থার ভিডিও, ছবি। মৃত্যুর ঘটনা নিয়েও ফেসবুক, হোয়াটসঅ্যাপ, টুইটারে প্রচুর শোরগোল হয়। বিতর্কের মুখে কড়া পদক্ষেপ নেয় সরকার। বাড়ানো হয় তৎপরতা। হাসপাতালে করোনা মোকাবিলায় আরও চিকিৎসক পাঠায় রাজ্যের স্বাস্থ্যদপ্তর। শুধু তাই নয়, বেলেঘাটা আইডি হাসপাতাল থেকেও চিকিৎসার জন্য অভিজ্ঞ চিকিৎসকদের পাঠানো হয়। এরপরই বদলাতে শুরু করে এমআর বাঙ্গুর হাসপাতালের চিত্র।

[আরও পড়ুন: ২ সপ্তাহ পর খুলল হাওড়া হাসপাতাল, কাজে যোগ দিলেন করোনা জয়ী সুপার]

হাসপাতাল কর্তৃপক্ষের তথ্য অনুযায়ী, শনিবার থেকে শনিবার পর্যন্ত, গত এক সপ্তাহে প্রায় ২০০ রোগীকে সুস্থ করে তোলা হয়েছে। তাঁরা সুস্থ হয়ে বাড়িও ফিরেছেন। ১০০ জনের বেশি শুধু করোনার উপসর্গ নিয়ে ভরতি হয়েছিলেন। গতকাল যে ৪৬ জন সুস্থ হয়ে বাড়ি ফিরলেন তাঁদের করোনা পরীক্ষার রিপোর্ট দু’বার নেগেটিভ এসেছে। ফলে তাঁদের সুস্থ ঘোষণা করে ডিসচার্জ করা হয়েছে। জানা গিয়েছে, আজ, রবিবার আরও ৪০ জনকে বাড়ি পাঠানো হবে। সংকট-বিতর্ক-রাজনীতির আবহে এই পরিসংখ্যান অন্ধকারের মধ্যে আশার আলো বইকি!

[আরও পড়ুন: তালতলায় করোনায় মৃত ৩০! হোয়াটসঅ্যাপ মেসেজ ঘিরে ব্যাপক চাঞ্চল্য]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে