BREAKING NEWS

৮ আষাঢ়  ১৪২৮  বুধবার ২৩ জুন ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

প্রশাসনের ‘উদাসীনতা’, বেকবাগানে ১৪ ঘণ্টা বাড়িতেই পড়ে রইল করোনায় মৃতের দেহ

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: July 12, 2020 9:36 am|    Updated: July 12, 2020 9:36 am

No police has came to rescue covid positive patient dead body

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের অমানবিকতার নজির শহরে। এবার মৃত্যুর পর ১৪ ঘণ্টা করোনা রোগীর দেহ পড়ে রইল বাড়িতে। ঘটনাস্থল খাস কলকাতার (Kolkata) বেকবাগান।

জানা গিয়েছে, বেকবাগানের বাসিন্দা বছর ৮০-এর ওই বৃদ্ধের শরীরে বেশ কিছুদিন আগেই থাবা বসিয়েছিল করোনা ভাইরাস (Corona Virus)। বাড়িতেই পর্যবেক্ষণে ছিলেন তিনি। শুক্রবার গভীর রাতে করোনার কাছে হার মানেন বৃদ্ধ। মৃত্যু হয় তাঁর। এরপরই অন্য লড়াই শুরু হয় পরিবারের সদস্যদের। সূত্রের খবর, চিকিৎসক বৃদ্ধকে মৃত বলে ঘোষণা করার পরই পুলিশে বিষয়টি জানান পরিবারের সদস্যরা। তাতে কোনও ফল না মেলায় স্বাস্থ্যভবনে যোগাযোগ করেন তাঁরা। অভিযোগ, পুলিশ বা স্বাস্থ্যভবন কেউই পরিবারের পাশে দাঁড়ায়নি। ফলে দীর্ঘ ১৪ ঘণ্টা বাড়িতেই পড়ে থাকে দেহ। এরপর সেটি উদ্ধার করে পুলিশ। যেখানে করোনায় মৃতের দেহ সৎকার নিয়ে এত বিধি-নিষেধ, সেখানে পুলিশের এই উদাসীন মনোভাবে ক্ষুব্ধ পরিবারের সদস্যরা।

[আরও পড়ুন: মানসিক অবসাদে আত্মহত্যার চেষ্টা? পুলিশ আবাসনের ছাদ থেকে পড়ে মৃত্যুর সঙ্গে লড়াই কনস্টেবলের]

প্রসঙ্গত, এই প্রথম নয়, কার্যত এই একই ঘটনা কয়েকদিন আগেও ঘটেছে খাস কলকাতায়। করোনায় মৃত্যুর পর পরিবারের সদস্যের দেহ আগলে দীর্ঘক্ষণ বসে থাকতে হয়েছে আত্মীয়-পরিজনদের। পুলিশ-স্বাস্থ্যভবনে জানিয়েও দীর্ঘক্ষণ কোনও সহযোগিতা মেলেনি। বাধ্য হয়ে ফ্রিজে দেহ রাখার সিদ্ধান্তও নিয়েছে পরিবার। ফের একই ঘটনার পুনরাবৃত্তিতে প্রশ্নের মুখে প্রশাসন।

[আরও পড়ুন: রাজ্যের একাধিক সরকারি হাসপাতালে ঘুরেও মিলল না চিকিৎসা, মৃত্যু করোনা আক্রান্ত তরুণের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement