BREAKING NEWS

১৩ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  বুধবার ২৭ মে ২০২০ 

Advertisement

লকডাউন না মানলে রাজ্যে আধাসেনা মোতায়েন, মমতাকে আশ্বস্ত করলেন অমিত শাহ

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: March 28, 2020 3:52 pm|    Updated: March 28, 2020 3:52 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা মোকাবিলায় দেশজুড়ে চলছে লকডাউন। তবু অনেকেই নিয়ম লঙ্ঘন করে রাস্তায় বেরচ্ছেন। পুলিশ-প্রশাসনের নিষেধাজ্ঞাকে বুড়ো আঙুল দেখিয়ে রাস্তায় জমায়েত করছেন। লকডাউন সুনিশ্চিত করতে এবার মুখ্যমন্ত্রীকে আধাসেনা মোতায়েন করার ব্যাপারে সুপারিশ করল কেন্দ্র। কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ ফোন করে মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে প্রয়োজনে আধাসেনা নামিয়ে পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণ করার কথা বলেন। মুখ্যমন্ত্রী চাইলেই কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক আধাসেনা মোতায়েন করবে বলে জানা গিয়েছে।

করোনা মোকাবিলায় গোটা দেশে চলছে লকডাউন। কিন্তু সাধারণ মানুষের একাংশ লকডাউন বিধি মানছেন না বলে অভিযোগ উঠেছে। বিভিন্ন রাজ্য থেকে সেই রিপোর্ট গিয়েছে কেন্দ্রীয় স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকের কাছে। সূত্রের খবর, রাজ্যের লকডাউন পরিস্থিতি নিয়ে মমতার কাছে খোঁজখবর নেন অমিত শাহ। তখনই মুখ্যমন্ত্রীকে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী পরামর্শ দেন, ‘মানুষ নিয়ম না মানলে সেনা নামাতে হবে। প্রয়োজন হলে বলবেন, আধাসেনা মোতায়েন করা হবে রাজ্যে। দ্বিধা করবেন না।’ স্বাস্থ্যমন্ত্রকও হুঁশিয়ারি দিয়েছে, ১০০ শতাংশ লকডাউন সফল না হলে করোনার তৃতীয় ধাপ অর্থাৎ গোষ্ঠী সংক্রমণ ঠেকানো যাবে না। তাতেই উদ্বেগ বেড়েছে কেন্দ্রের। মানুষ লকডাউন না মানলে সরকারের প্রচেষ্টা বিফলে যাবে।

[আরও পড়ুন: করোনা মোকাবিলায় রাজ্যের ভূমিকা ‘সন্তোষজনক’, প্রশংসায় পঞ্চমুখ কেন্দ্র]

বিদেশমন্ত্রী এস জয়শংকরও ফোনে কথা বলেন মুখ্যমন্ত্রীর সঙ্গে। মন্ত্রকের সাহায্যের আশ্বাস দিয়েছেন বিদেশমন্ত্রী। উল্লেখ্য, বিদেশ থেকে কারা এসেছে এবং তাঁদের অবস্থা কী সেই সংক্রান্ত রিপোর্ট গিয়েছে মন্ত্রকের কাছে। প্রসঙ্গত, করোনার বিরুদ্ধে যুদ্ধ ঘোষণা করেছে গোটা বিশ্ব। পিছিয়ে নেই ভারতও। করোনা মোকাবিলায় তৈরি রাজ্যও। আর রাজ্যবাসীর সেই লড়াইয়ে নেতৃত্ব দিচ্ছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়। রীতিমতো রাস্তায় নেমে আমজনতার পাশে দাঁড়াচ্ছেন তিনি। লকডাউন থেকে কোয়ারেন্টাইন, চিকিৎসা সরঞ্জাম থেকে নিত্য প্রয়োজনীয় সামগ্রীর সরবরাহ-সর্বক্ষেত্রেই তাঁর সজাগ দৃষ্টি। এবার তাঁর সেই ভূমিকা নিয়ে সন্তোষ প্রকাশ করল কেন্দ্র সরকারও। জানিয়ে দিল, ‘করোনা রুখতে রাজ্যের ভূমিকা সন্তোষজনক’। একইসঙ্গে বুলবুলের ক্ষয়ক্ষতি বাবদ রাজ্যের বকেয়া টাকাও পাঠাল কেন্দ্র সরকার।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement