১১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  সোমবার ২৫ মে ২০২০ 

Advertisement

‘ফিরে আসুন শোভনদা’! পুরভোটের মুখে কলকাতা ছয়লাপ প্রাক্তন মেয়রের হোর্ডিংয়ে

Published by: Subhamay Mandal |    Posted: February 21, 2020 2:12 pm|    Updated: February 21, 2020 4:07 pm

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: পুরভোটে বিজেপির মেয়র পদপ্রার্থী করা হোক শোভন চট্টোপাধ্যায়কে। কলকাতার প্রাক্তন মেয়র শোভন চট্টোপাধ্যায়ের সমর্থনে হোর্ডিংয়ে ছয়লাপ দক্ষিণ কলকাতার একাধিক জায়গা। শোভনের ছবি দিয়ে হোর্ডিংয়ে আবেদন, ‘কলকাতাকে স্বমহিমায় ফেরাতে আপনি ফিরুন শোভনদা’। সেই হোর্ডিংয়ে আবার বিজেপির প্রতীক পদ্মফুলও রয়েছে। হোর্ডিংয়ের নিচের দিকে লেখা রয়েছে, প্রচারে কলকাতা নাগরিকবৃন্দ।

এই হোর্ডিং নজরে আসতেই জল্পনা রাজনৈতিক মহলে। বিজেপি নেতৃত্বের দাবি, শোভনের সঙ্গে তারা এখনও যোগাযোগ করেননি পুরভোটের বিষয়ে। তবে বিজেপি সূত্রে খবর, দলের নেতৃত্বের একটি অংশের সঙ্গে কথাবার্তা হচ্ছে শোভনের। গত বছর ১৯ আগস্ট তৃণমূল ছেড়ে বিজেপিতে যোগ দেওয়ার পর রাজনৈতিক সভা-মিছিলে খুব একটা দেখা যায়নি শোভন চট্টোপাধ্যায়কে। একপ্রকার রাজনীতি থেকে অঘোষিত সন্ন্যাসে রয়েছেন তিনি। এই অবস্থায় শোভনকে মুখ করেই কি পুরভোটে বৈতরণি পার করতে চাইছে বিজেপি, প্রশ্ন রাজনৈতিক মহলে।

[আরও পড়ুন: মার্চের প্রথম দিনেই শহিদ মিনারে সভা অমিত শাহর, মিলল সেনার অনুমতি]

কিন্তু বিজেপি নেতৃত্ব বেশ কিছু বিষয়ে শোভনকে নিয়ে অস্বস্তি পড়েছেন। রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ-সহ বঙ্গ নেতৃত্বের একাধিক নেতা-নেত্রী শোভনকে নিয়ে বেশ কিছু আলটপকা মন্তব্যও করেছেন প্রকাশ্যে। যা নিয়ে সংবাদমাধ্যমের কাছে বিড়ম্বনায় পড়তে হয়েছে দলকে। শোভন আদৌ দলের সঙ্গে আছেন না নেই সে বিষয়েও ধোঁয়াশা রেখেছে বঙ্গ বিজেপি। তার মধ্যে এই হোর্ডিংগুলি নতুন করে জল্পনার সৃষ্টি করেছে। 

প্রসঙ্গত, ২০১০ সাল থেকে দুদফায় মোট সাড়ে আট বছর কলকাতার মহানাগরিকের দায়িত্ব সামলেছেন শোভন চট্টোপাধ্যায়। কলকাতার নাগরিকদের কাছে খুবই জনপ্রিয় মুখ শোভন। শহরকে নিজের হাতের তালুর মতো চেনেন। কিন্তু পুরভোটে তাঁকে এখনও তেমন গুরুত্ব দেওয়া হচ্ছে না বলে বিজেপির একাংশের মত। 

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement