BREAKING NEWS

৫ মাঘ  ১৪২৮  বুধবার ১৯ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

সন্তান চাই না, শ্বশুরবাড়ি গিয়ে অন্তঃসত্ত্বা মহিলাকে খুন করল স্বামী!

Published by: Tanumoy Ghosal |    Posted: August 4, 2018 5:03 pm|    Updated: August 4, 2018 5:03 pm

Pregnant woman allegedly murdered by husband in Narkeldanga

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: দাম্পত্যে পূর্ণতা আনে সন্তান৷ কিন্তু, অন্তঃসত্ত্বা অবস্থায়ই এক গৃহবধূকে খুন করল তাঁর স্বামীই!  অন্তত তেমনই অভিযোগ মৃতার বাপের লোকেদের৷ ফুলবাগান থানায় দীপক জৈন নামে এক ব্যক্তির বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করেছেন তার শ্বশুরবাড়ির লোকেরা৷ অভিযুক্ত পলাতক৷ তাঁকে খুঁজছে পুলিশ৷  

[ জন্মদিনের শুভেচ্ছার মধ্যেই ব্যাংক জালিয়াতের ফোন! কী করলেন বিধায়ক?]

ঘটনাটি ঠিক কী? মধ্য তিরিশের গৃহবধূ স্মিতা জৈন৷ তাঁর বাপের বাড়ি নারকেলডাঙায়৷ অন্তঃসত্ত্বা ছিলেন স্মিতা৷ এই সময়ে সাধারণত বাপের বাড়িতেই থাকতে পছন্দ করেন মহিলারা৷ নারকেলডাঙায় বাপের বাড়িতে ছিলেন ওই গৃহবধূও৷ বাপের লোকেদের দাবি, বৃহস্পতিবার ফোন করে স্মিতার স্বামী দীপক জৈন জানান, স্ত্রীকে দেখতে শ্বশুরবাড়িতে আসবেন তিনি৷ শুক্রবার সন্ধ্যায় যখন দীপক আসেন, তখন বাড়িতে স্মিতা ছাড়া আর কেউ ছিলেন না৷ অসুস্থ বাবাকে দেখতে নার্সিংহোমে গিয়েছিলেন ওই গৃহবধুর দিদি৷ ওই মহিলার অভিযোগ, দীপক চলে যাওয়ার পর বাড়িতে ফেরেন তিনি৷ তখন ঘরে ছিলেন না স্মিতা৷ রাতে ফুলবাগান থানায় স্মিতা জৈনের নামে নিখোঁজ ডায়েরি করা হয়৷ মৃতার দিদির দাবি, থানা থেকে ফিরে শোওয়ার ঘরে খাটের তলায় স্মিতা জৈনের রক্তাক্ত দেহ পড়তে থাকতে দেখেন৷ মৃতদেহটি চাদর দিয়ে মোড়া ছিল৷ মৃতদেহটি উদ্ধার করে ময়নাতদন্তে পাঠিয়েছে ফুলবাগান থানার পুলিশ৷ এদিকে আবার স্মিতা জৈনের স্বামী দীপকও বেপাত্তা৷ হাওড়ার ব্যাঁটরা থানায় নিখোঁজ ডায়েরি করেছেন তাঁর পরিবারের লোকেরাও৷

কিন্তু, কীভাবে মারা গেলেন অন্তঃসত্ত্বা গৃহবধূ স্মিতা জৈন? দানা বেঁধেছে রহস্য৷ শুক্রবার সকালে স্বামী দীপক জৈনের বিরুদ্ধে ফুলবাগান থানায় খুনের অভিযোগ দায়ের করেন ওই গৃহবধূর বাপের বাড়ির লোকেরা৷ তাঁদের অভিযোগ, বিয়ে করলেও, সন্তান চাইত না দীপক৷ বিয়ের পর পরপর দুবার গর্ভবতী হয়েছিলেন স্মিতা৷ কিন্তু, মা হতে পারেননি৷ দুবারই গর্ভপাত হয় তাঁর৷ বাপের বাড়ির লোকেদের দাবি, স্মিতা তাঁদের বলেছিলেন, শ্বশুরবাড়ির লোকেরাই ওষুধ খাইয়ে গর্ভপাত করিয়েছিলেন৷ তাই তৃতীয়বার অন্তঃসত্ত্বা হওয়ায় স্মিতাকে খুন করেছে তাঁর স্বা্মী দীপকই৷ ঘটনার পর থেকে বেপাত্তা হয়ে গিয়েছে সে৷ অভিযুক্ত দীপক জৈনের খোঁজে তল্লাশি চালাচ্ছে ফুলবাগান থানার পুলিশ৷  

[ নিয়মিত পালটে ফেলুন এটিএমের পিন নম্বর, গ্রাহকদের পরামর্শ ব্যাংকের]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে