২ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২১ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

অব্যাহত প্রেসিডেন্সির হস্টেল জট! উপাচার্য ও পড়ুয়াদের বৈঠকেও মিলল না সমাধানসূত্র

Published by: Soumya Mukherjee |    Posted: March 12, 2020 9:25 pm|    Updated: March 12, 2020 9:25 pm

An Images

ফাইল ফটো

দীপঙ্কর মণ্ডল: প্রেসিডেন্সি বিশ্ববিদ্যালয়ের হিন্দু (Hindu) ও মহিলা হস্টেলের নানা ইস্যুতে অবস্থান বিক্ষোভ চলবে। কারণ, উপাচার্য অনুরাধা লোহিয়ার সঙ্গে বিক্ষোভকারী পড়ুয়াদের আলোচনা ফলপ্রসূ হয়নি। বৃহস্পতিবার আন্দোলনকারীদের প্রতিনিধি দলের সঙ্গে রাজারহাট ক্যাম্পাসে বৈঠক হয় উপাচার্য অনুরাধা লোহিয়ার। এরপর উপাচার্য জানান, আলোচনা সদর্থক। যদিও পড়ুয়াদের দাবি, পুরোপুরি সমাধান সূত্র বেরোয়নি। তাই অবস্থান চলবে।
গত মাসে টানা ঘেরাও থাকার পর থেকে আর কলেজ স্ট্রিট ক্যাম্পাসে আসছেন না উপাচার্য। রাজারহাট ক্যাম্পাস থেকেই প্রশাসনিক কাজ চালাচ্ছেন। এর মাঝে গত ৩ ফেব্রুয়ারি হিন্দু হস্টেল ইস্যুতে ৩ ফেব্রুয়ারি শুরু হয় অবস্থান। যা এখনও চলছে। এদিন পড়ুয়াদের সঙ্গে দীর্ঘ বৈঠক হয়। হিন্দু হস্টেলের বাকি অংশ ফেরানোর বিষয়ে কোনও ডেটলাইন দেওয়া সম্ভব নয় বলে জানিয়ে দিয়েছেন উপাচার্য। আলোচনায় হিন্দু হস্টেলের ৩, ৪ এবং ৫ নম্বর ওয়ার্ড দ্রুত চালুর দাবি জানান পড়ুয়ারা।

আন্দোলনকারীদের তরফে আনিসুর রহমান জানিয়েছেন, উপাচার্য দাবিপূরণের আশ্বাস দিলেও সমস্যা মেটেনি। পড়ুয়াদের দাবিগুলি হল, হস্টেলের মেস স্টাফের সংখ্যা বাড়াতে হবে। বিনা নোটিসে মেস স্টাফ ছাঁটাই করা যাবে না। ছাত্রীদের হস্টেলে ঢোকার সময়ের উপর বিধিনিষেধ হঠাতে হবে। হস্টেল আবাসিকদের নিয়ে ওয়েলফেয়ার কমিটি গঠন করতে হবে। এই সমস্ত দাবি মন দিয়ে শুনেছেন উপাচার্য। এরপর পড়ুয়াদের তিনি জানান, দ্রুত ওয়েলফেয়ার কমিটি তৈরি হবে। তবে হিন্দু হস্টেলের বাকি অংশ চালু নিয়ে কোনও ডেটলাইন তিনি পারবেন না।

[আরও পড়ুন: রক্ষকই ভক্ষক! এবার মেট্রোকর্মীর হাতে হেনস্থার শিকার মহিলা সাংবাদিক ]

 

এছাড়া জলের সমস্যা নিয়ে কথা হয়ও উপাচার্যর সঙ্গে। তিনি জানান, কয়েকদিন আগেই হিন্দু হস্টেলে দু’টি কুলার বসেছে। মেস স্টাফদের ছাঁটাই কর্তৃপক্ষের হাতে নেই বলেও জানিয়ে দেন তিনি। একটি বেসরকারি সংস্থা ওই স্টাফদের নিয়োগ করে। সংস্থার সঙ্গে কথা বলার পরামর্শ দেন উপাচার্য। তাঁর কথা মতো আগামিকাল সংস্থার কর্তাদের সঙ্গে দেখা করবেন আন্দোলনকারীরা।

[আরও পড়ুন: ইস্টবেঙ্গল নিয়ে বিতর্কিত পোস্ট বিজেপির? দিলীপ বললেন,’ওটা পিকের ষড়যন্ত্র’]

হিন্দু হস্টেলের সমস্যা সমাধানের দাবি নিয়ে কয়েকবছর ধরে আন্দোলন চলছে। এর জন্য ২০১৮ সালে ক্যাম্পাসে সমাবর্তন করতে দেয়নি ছাত্র-ছাত্রীদের একটি অংশ। গত মাসে ফের শুরু হয় অবস্থান। দোলের আগে কলেজ স্ট্রিট ২৪ ঘণ্টার জন্য অবরোধও করেন পড়ুয়ারা। এদিনও তাঁরা জানিয়ে দেন, সমস্যার পূর্ণ সমাধান না হওয়া পর্যন্ত আন্দোলন চলবে। বিছানা নিয়ে বিশ্ববিদ্যালয়ের করিডরেই রাতে ঘুমনোর ব্যবস্থা করেছেন পড়ুয়ারা।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement