১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  সোমবার ৫ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Primary TET: প্রাথমিক টেটের দিনক্ষণ ঘোষণা করল পর্ষদ, ১১ হাজার শূন্যপদে হবে নিয়োগ

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 26, 2022 5:08 pm|    Updated: September 26, 2022 5:31 pm

Primary Education council announces date for primary TET exam on December 11 | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: প্রাইমারি টেটের (Primary TET) দিনক্ষণ ঘোষণা করল প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। সোমবার সাংবাদিক বৈঠকে পর্ষদের তরফে জানানো হল, আগামী ১১ ডিসেম্বর হবে প্রাথমিকে শিক্ষক নিয়োগের পরীক্ষা। মোট ১১ হাজার শূন্যপদের জন্য পরীক্ষা নেওয়া হবে। পুজোর (Durga Puja) আগেই বিজ্ঞপ্তি জারি হবে। গোটা প্রক্রিয়া হবে অনলাইনে। কালীপুজোর পর থেকে শুরু হয়ে যাবে রেজিস্ট্রেশন। পুজোর মুখে পর্ষদের এই ঘোষণায় খুশি চাকরিপ্রার্থীরা। এদিন সাংবাদিক বৈঠকে পর্ষদের তরফে আরও আশ্বাস দেওয়া হয়েছে, এবার থেকে প্রতি বছর টেট হবে। 

ডিসেম্বরের টেটের জন্য পোর্টাল চালু করবে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ। তার মাধ্যমেই দিতে আবেদন করতে হবে পরীক্ষার্থীদের। পুজোর আগে বিজ্ঞপ্তি জারির পর অনলাইনে রেজিস্ট্রেশন (Registration) শুরু হবে কালীপুজোর পর থেকে। এমনই জানিয়েছে পর্ষদ। আপাতত ১১ হাজার শূন্যপদে নিয়োগের জন্য পরীক্ষা নেওয়া হবে। ফল কবে প্রকাশিত হবে, তা এখনও জানায়নি পর্ষদ। 

[আরও পড়ুন: ২০১৪ প্রাইমারি টেট: প্রায় ৪ হাজার শূন্যপদে শিক্ষক নিয়োগের নির্দেশ বিচারপতি গঙ্গোপাধ্যায়ের]

দিন দুই আগে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের অ্যাডহক কমিটির বৈঠক হয়। সেখানেই জানানো হয়েছিল, আগামী ডিসেম্বরের মধ্যে নতুন করে প্রাথমিক শিক্ষক নিয়োগের যোগ্যতা নির্ণায়ক পরীক্ষা বা টেট নেওয়া হবে। পরীক্ষার দিনক্ষণ ঠিক করতে রাজ্যের শিক্ষামন্ত্রী ব্রাত্য বসুর সঙ্গে বৈঠকের কথা জানানো হয়েছিল। সেইমতো সোমবার ব্রাত্য বসুর সঙ্গে পর্ষদের আধিকারিকরা বৈঠক করেন। তারপরই ঘোষণা করা হয়েছে দিনক্ষণ। 

[আরও পড়ুন: উপত্যকায় নতুন রাজনৈতিক দল, আত্মপ্রকাশ গুলাব নবি আজাদের ‘ডেমোক্র্যাটিক আজাদ পার্টি’র]

পর্ষদের এই ঘোষণা চাকরিপ্রার্থীরা খুশি হলেও প্রক্রিয়া নিয়ে অনিশ্চয়তা থাকছেই। যেভাবে শিক্ষক নিয়োগের প্রতিটি পদ্ধতিতে জালিয়াতির বিষয় প্রকাশ্যে আসছে এবং আইনি গেরোয় জড়িয়ে পড়ছে, তাতে নতুন পরীক্ষা নিয়েও জটিলতার আশঙ্কা করছেন তাঁরা। কিন্তু নিয়োগ প্রক্রিয়ায় স্বচ্ছতা আনতে পর্ষদও সাবধানী। পোর্টালের মাধ্যমে পরীক্ষা নেওয়া-সহ অন্যান্য পদ্ধতি সম্পন্ন করতে তৎপর প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের আধিকারিকরা। সেদিক থেকে নিঃসন্দেহে বড় চ্যালেঞ্জ।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে