Advertisement
Advertisement
Rajbhaban

কাঁদতে কাঁদতে আসছিলেন তরুণী! রাজভবনের ফুটেজ নিয়ে বিস্ফোরক দাবি পুলিশের

বৃহস্পতিবার রাজভবন যে ফুটেজ প্রকাশ্য়ে এনেছে, তা হাতে পাওয়ার পর পরীক্ষা করে এই দাবি কলকাতা পুলিশের।

Rajbhaban Controversy: Kolkata Police claims new clue regarding CCTV footage released by Rajbhaban
Published by: Sucheta Sengupta
  • Posted:May 10, 2024 4:06 pm
  • Updated:May 10, 2024 4:11 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্যপালের বিরুদ্ধে মহিলা কর্মীর শ্লীলতাহানির অভিযোগ ঘিরে পুলিশের বয়ানে নয়া মোড়। বৃহস্পতিবার প্রকাশিত সিসিটিভি ফুটেজ পুলিশের (Kolkata Police) হাতে এসেছে। হেয়ার স্ট্রিট থানার পুলিশের দাবি, সেই ফুটেজ পরীক্ষা করে দেখা গিয়েছে, তরুণী কাঁদতে কাঁদতে আসছেন। তার পর তিনি রাজভবনের স্পেশাল সেক্রেটারির ঘরে যান। আর এই ফুটেজই প্রমাণ করে, রাজভবনের ওই মহিলার সঙ্গে কোনও না কোনও ‘অবিচার’ ঘটেছে। এমনই দাবি পুলিশের। তাতেই এই মামলা নতুন করে মোড় নিল।

লোকসভা ভোটের (Lok Sabha Election 2024) মাঝে বাংলার রাজ্যপালের বিরুদ্ধে নজিরবিহীনভাবে শ্লীলতাহানির অভিযোগ উঠেছে। রাজভবনেরই এক অস্থায়ী মহিলা কর্মী পুলিশের কাছে গিয়ে এই অভিযোগ দায়ের করেছেন। তরুণীর অভিযোগ, তাঁর সঙ্গে একাধিকবার রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস (CV Anand Bose) অশালীন আচরণ করেন, শ্লীলতাহানি করেন। তা নিয়ে স্বভাবতই একেবারে তোলপাড় পড়েছে। তরুণীর অভিযোগকে গুরুত্ব দিলেও রাজ্যের সর্বোচ্চ সাংবিধানিক পদে থাকা ব্যক্তির বিরুদ্ধে ঠিক কী পদক্ষেপ নেওয়া উচিত, তা বুঝে উঠতে পারছিলেন না পুলিশ কর্তারা। এনিয়ে বিশেষজ্ঞদের সঙ্গেও তাঁরা আলোচনা করেছেন বলে সূত্রের খবর।

Advertisement

[আরও পড়ুন: ৫০ দিন পর অবশেষে জামিন কেজরির, ‘সুপ্রিম দরবারে’ ঝুলেই হেমন্তের ভাগ্য]

আর এই পরিস্থিতিতে রাজভবনও (Rajbhaban) কড়া পদক্ষেপ নিয়েছে। পুলিশের সঙ্গে কোনওরকম কথা বলা কিংবা সংবাদমাধ্যমে মুখ খোলা নিয়ে রাজভবনের তরফে সমস্ত কর্মীদের কার্যত নিষেধাজ্ঞা জারি হয়েছে। পরে চাপে পড়ে রাজ্যপাল নিজেই জানান, শ্লীলতাহানির অভিযোগে যেদিনের কথা উল্লেখ করা হয়েছে, ওইদিনের সিসিটিভি ফুটেজ (CCTV Footage) প্রকাশ করা হবে। সেইমতো বৃহস্পতিবার ১ ঘণ্টা ৯ মিনিটের ফুটেজ প্রকাশ্যে আনা হয়। কিন্তু তাতে রাজভবনের কোনও ফুটেজ নেই। নর্থ গেটের কিছু ভিডিও রয়েছে, যাতে অভিযোগকারিণীকে কাঁদতে কাঁদতে ছুটে যেতে দেখা যায় বলে দাবি পুলিশের। আর তা নিয়েই নতুন করে জল্পনা শুরু হয়েছে। এনিয়ে রাজভবনের তরফে এখনও কোনও প্রতিক্রিয়া মেলেনি।

Advertisement

[আরও পড়ুন: সোশাল মিডিয়ায় ঘনঘন সঙ্গীর প্রাক্তনের প্রোফাইলে নজর? ‘রেবেকা সিনড্রোম’ নয় তো?]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ