১ আশ্বিন  ১৪২৬  বৃহস্পতিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: বুধবার শেষ হল রাজীব কুমার বনাম সিবিআই মামলার শুনানি। কলকাতা হাই কোর্টের বিচারপতি মধুমতী মিত্রর এজলাসে এই শুনানি শেষ হওয়ার পর তিনি রায়দান স্থগিত রেখেছেন।আগামী সপ্তাহে মামলার রায় দেওয়া হবে।

[আরও পড়ুন: খুলবে ‘লাল ডায়েরির’ জট? অবশেষে সিবিআই দপ্তরে রাজীব কুমার]

শুনানি শেষে কলকাতা পুলিশের প্রাক্তন নগরপালকে কিছুটা স্বস্তি দিয়ে বিচারপতি জানান,  যতদিন না রায় দেওয়া হচ্ছে, ততদিন অন্তর্বতী নির্দেশ বহাল থাকবে। অর্থাৎ এখনই রাজীব কুমারের গ্রেপ্তার করতে পারবে না কেন্দ্রীয় তদন্তকারী সংস্থাটি। গত মে মাসেই এই মামলা শুরু হয় কলকাতা হাই কোর্টে। কিন্তু বিভিন্ন কারণে তারিখ পিছিয়ে যায় বারবার। আগস্টের মাঝামাঝি সময় থেকে প্রতিদিন শুনানি শুরু হয় হাই কোর্টে। রাজীবের আইনজীবীর দীর্ঘ সওয়ালের পর পালটা সওয়াল করেন সিবিআইয়ের আইনজীবী। তারপরই দীর্ঘ শুনানি শেষ হল এদিন।

সারদা মামলায় জিজ্ঞাসাবাদ করতে চেয়ে বেশ কয়েকবার রাজীব কুমারকে তলব করেছিল সিবিআই। কিন্তু প্রত্যেকবারই কেন্দ্রীয় গোয়েন্দা সংস্থার আধিকারিকদের সামনে হাজিরা এড়িয়ে যান কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার। শেষপর্যন্ত যখন কলকাতায় রাজীব কুমারের বাড়িতে হানা দেন সিবিআই আধিকারিকরা, তখন তাঁর গ্রেপ্তারির জল্পনা তুঙ্গে ওঠে। সারদা মামলায় ‘গ্রেপ্তারি’ এড়াতে কলকাতা হাই কোর্টের দ্বারস্থ হন রাজীব কুমার। তাঁর গ্রেপ্তারিতে স্থগিতাদেশ জারি করেন হাই কোর্টের বিচারপতি প্রতীক প্রকাশ বন্দ্যোপাধ্যায়। তবে জিজ্ঞাসাবাদের জন্য ডাকলে যে রাজীব কুমারকে সিবিআই দপ্তরে হাজিরা দিতে হবে, তা স্পষ্টই জানিয়ে দিয়েছে আদালত। বস্তুত, আদালতের নির্দেশে সিবিআই দপ্তরের হাজিরাও দিয়েছেন কলকাতার প্রাক্তন পুলিশ কমিশনার।

[আরও পড়ুন: সিবিআই থেকে ‘বাঁচতে’ হাই কোর্টের দ্বারস্থ রাজীব কুমার]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং