২ আশ্বিন  ১৪২৭  শনিবার ১৯ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লকডাউনে বন্ধ রাজ্যের সমস্ত রেশন দোকান, পরিবর্ত ব্যবস্থার কথা জানালেন খাদ্যমন্ত্রী

Published by: Sulaya Singha |    Posted: July 22, 2020 10:06 pm|    Updated: July 22, 2020 10:06 pm

An Images

ফাইল ফটো

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: রাজ্যজুড়ে করোনার প্রকোপ ক্রমেই বৃদ্ধি পাওয়ায় নতুন করে লকডাউনের পথে হেঁটেছে বাংলা। চলতি মাসে ২৩, ২৫ ও ২৯ তারিখ সম্পূর্ণ লকডাউন ঘোষণা করেছে নবান্ন। ফুড ডেলিভারি, ই-কমার্স, ডেয়ারি, পুলিশ, মেডিক্যাল স্টোর, পেট্রল পাম্প-সহ বেশ জরুরি পরিষেবা পাওয়া গেলেও অনেক কিছুই বন্ধ রাখার সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়েছে। যেমন এই তিনদিন বন্ধ থাকবে সমস্ত ব্যাংক। তেমনই লকডাউনে বন্ধ রাখা হবে রেশন দোকানও। তার পরিবর্তে রবি ও সোমবার, তাদের দুই ছুটির দিন পূর্ণদিবস খুলে রাখা হবে রেশন দোকান।

[আরও পড়ুন: লালগড় থানা থেকে অস্ত্র চুরি করে মাওবাদীদের পাচার, বিহার থেকে গ্রেপ্তার লিংকম্যান]

বুধবার জরুরি ভিত্তিতে রেশন ডিলারদের সংগঠনের সঙ্গে আলোচনার ভিত্তিতে এই আবেদন জানান খাদ্যমন্ত্রী জ্যোতিপ্রিয় মল্লিক। আবেদন মেনে নিয়েছেসংগঠন। তারপরই চূড়ান্ত সিদ্ধান্ত হয়। সাধারণত, রবিবার অর্ধেক দিন ও সোমবার পুরোদিন রেশন দোকান বন্ধ থাকে। প্রথম দিকে পূর্ণ লকডাউনের শুরুতে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় বিনামূল্যে রেশন চালুর কথা ঘোষণা করলে রেশন দোকান জরুরি ভিত্তিতে প্রতিদিন খোলা রাখার সিদ্ধান্ত হয়েছিল। পরে আবার পুরনো নিয়মে ফিরে যায় তারা। নতুন করে সপ্তাহে দু’দিন করে লকডাউন করার সিদ্ধান্তের পর রেশন দোকান খুলে রাখার ক্ষেত্রেও এই সিদ্ধান্ত বদল করা হল বলে জানিয়েছেন সংগঠনের সাধারণ সম্পাদক বিশ্বম্ভর বসু।

এর মধ্যে এদিনই জারি হয়েছে, আগামী বছরের জুন মাস পর্যন্ত বিনামূল্যে রেশন দেওয়ার বিজ্ঞপ্তিও। অন্তদ্যয় অন্ন যোজনা, পি এইচ এইচ, এসপি এইচ এইচ, আর কে এসওয়াই, আর কে এসওয়াই ২- সব মিলিয়ে রাজ্যের প্রায় ১০ কোটি গ্রাহকের জন্যই পরের বছর অর্থাৎ ২০২১ সালের জুন পর্যন্ত বিনামূল্যের রেশন ঘোষণা করেছিলেন মুখ্যমন্ত্রী। সেই অনুযায়ীই খাদ্য দপ্তর বিজ্ঞপ্তি জারি করেছে এদিন।

[আরও পড়ুন: গত ২৪ ঘণ্টায় করোনায় রেকর্ড মৃত্যু রাজ্যে, আশা জোগাচ্ছে সুস্থতার হার বৃদ্ধি]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement