১৯ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  মঙ্গলবার ৬ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

Saradha Scam: ‘শুভেন্দু-সুজনের বিরুদ্ধে মিথ্যে বয়ান দিতে মেয়েকে চাপ CIDর’, CBI-কে চিঠি দেবযানীর মায়ের

Published by: Paramita Paul |    Posted: September 8, 2022 1:46 pm|    Updated: September 8, 2022 5:49 pm

Saradha Scam: Debjani Mukherjee's mother writes letter to CBI

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: রাজ্যের তদন্তকারী সংস্থা সিআইডির বিরুদ্ধে বিস্ফোরক সারদা কাণ্ডে (Saradha Scam) অন্যতম মূল অভিযুক্ত দেবযানী মুখোপাধ্যায়ের (Debjani Mukherjee) মা। তাঁর দাবি, মিথ্যে বয়ান দেওয়ার জন্য দেবযানীর উপর চাপ তৈরি করছে সিআইডি (CID)। দেবযানীর উপস্থিতিতে বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari) এবং সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তীকে মোট ১২ কোটি টাকা দিয়েছেন সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেন, দেবযানীকে এমন বয়ান রেকর্ড করতে বাধ্য করা হচ্ছে বলে দাবি তাঁর মা শর্বরী মুখোপাধ্যায়ের। এই বয়ান না দিলে দেবযানীকে ৯টি মিথ্যে মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকিও নাকি দিয়েছে সিআইডি। এই মর্মে সিবিআইকে চিঠিও দিয়েছেন শর্বরীদেবী। স্বাভাবিকভাবে সেই চিঠিকে কেন্দ্র করে ফের তোলপাড় রাজ্য রাজনীতি। যদিও সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছে সিআইডি।

চিঠিতে শর্বরী মুখোপাধ্যায় অভিযোগ করেছেন, “দেবযানী আমাকে জানিয়েছে, সিআইডি ওঁর উপর মারাত্মক চাপ তৈরি করছে। ২৩ আগস্ট জেলে গিয়ে আমার মেয়ের সঙ্গে দেখা করে চাপ তৈরি করেন এক সিআইডি আধিকারিক। দেবযানীর উপস্থিতিতে সুদীপ্ত সেন ৬ কোটি টাকা শুভেন্দু এবং ৬ কোটি টাকা সুজনকে দিয়েছেন, এমন কথা বলার জন্য চাপ দেওয়া হচ্ছে। এই বয়ান না দিলে ন’টি মিথ্যে মামলায় ফাঁসিয়ে দেওয়ার হুমকি দেওয়া হয়েছে। আমার মেয়ে ভীত, সন্ত্রস্ত।” শর্বরীদেবীর চিঠিটি টুইট করে প্রকাশ্যে এনেছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। চিঠিতে দেবযানীর মা আরও লিখেছেন, “আমার মেয়ে শুভেন্দু অধিকারী বা সুজন চক্রবর্তীর সঙ্গে কোনওদিনও দেখা করেনি। আর্থিক লেনদেন সম্পর্কেও কিছু জানে না।” তাঁর আশঙ্কা, “শুভেন্দু অধিকারীর বিরুদ্ধে বয়ান না দিলে আমার মেয়েকে মিথ্যে মামলায় ফাঁসিয়ে দেবে সিআইডি।”

 

[আরও পড়ুন: কেষ্ট না ফেরা পর্যন্ত ৩ গুণ লড়াই, ওকে বীরের সম্মানে বের করে আনবেন: মমতা]

এপ্রসঙ্গে বলে রাখা ভাল, ইতিপূর্বে সুদীপ্ত সেনের লেখা একটি চিঠি নিয়ে জলঘোলা হয়েছে বিস্তর। যেখানে শুভেন্দু অধিকারী, সুজন চক্রবর্তীরা টাকা নিয়েছেন বলে অভিযোগ করা হয়েছিল। সেই চিঠিকে হাতিয়ার করে বিরোধী দলনেতার বিরুদ্ধে সরব হয়েছিল তৃণমূল। তাঁকে গ্রেপ্তারির দাবিতে সরব হয়েছে তৃণমূল নেতৃত্ব। এবার শর্বরী মুখোপাধ্যায়ের চিঠি হাতিয়ার করে মাঠে নামল বিরোধীরা।  

স্বাভাবিকভাবেই এই চিঠিকে হাতিয়ার করে রাজ্য সরকারের বিরুদ্ধে মাঠে নেমেছে বিরোধীরা। সিআইডির ভূমিকা নিয়ে প্রশ্ন তুলে টুইট করেছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী। তাঁর কটাক্ষ, “এ রাজ্যে সিআইডি পিসি-ভাইপোর মাইনে করা দারোয়ানে পরিণত হয়েছে। বন্দ্যোপাধ্যায়দের স্বার্থরক্ষা করতে বিচারাধীন বন্দিকে দিয়ে মিথ্যে বয়ান দিতে বাধ্য করছে সিআইডি।” একইসুর শোনা গিয়েছেন সিপিএম নেতা সুজন চক্রবর্তীর গলাতেও। তাঁর কথায়, “একুশের বিধানসভা ভোটের আগে সুদীপ্ত সেনকে দিয়ে এমন একটা চিঠি লেখানো হয়েছিল। যেখানে বলা হয়েছিল, আমি টাকা নিয়েছি। বিমান বসু টাকা নিয়েছে। লোকে এসব শুনে হাসত। এবারও তাই হবে। রাজ্যের পুলিশের মেরুদণ্ড ভেঙে গিয়েছে।” তৃণমূলের তরফে জয়প্রকাশ মজুমদার বলেন, “এমনটা নয়তো যে বিজেপির চাপে দেবযানী এসব কথা বলছেন? ৭-৮ বছর ধরে এই মামলা চলছে, সিআইডির কিছু করার হলে আরও আগেই করত। শুভেন্দু অধিকারী তো টাকা নিয়েছেন, সবাই দেখেছে।”

 

[আরও পড়ুন: ‘অভিষেক বরাবরই ডেয়ার ডেভিল, ভাল বলে’, নেতাজি ইন্ডোরের সভায় প্রশংসা মমতার]

এদিকে তদন্তকারী সংস্থা সিআইডির বিরুদ্ধে ওঠা সমস্ত অভিযোগ অস্বীকার করেছেন এডিজি সিআইডি রাজশেখরণ। তাঁর কথায়, সম্পূর্ণ মিথ্যে অভিযোগ। দেবযানীদেবী নিজে স্বাক্ষর করে কিছু চেক ইস্যু করেছিলেন। সেটা যাচাই করছিল সিআইডি। ২৩ তারিখ সংশোধনাগারে কর্তৃপক্ষ এবং মহিলা সহকারীর উপস্থিতিতে দেবযানীর বয়ান রেকর্ড করেছিল সিআইডি। এটা একটা তদন্তকারী সংস্থা। প্রমাণের উপর ভিত্তি করে তদন্ত করে।”

এদিকে এই  চিঠি নিয়ে ইতিমধ্যে কলকাতা হাই কোর্টের প্রধান বিচারপতি প্রকাশ শ্রীবাস্তবের দৃষ্টি আকর্ষণ করেন আইনজীবী তরুণজ্যোতি তিওয়ারি। তাঁকে মামলা করার পরামর্শ দিয়েছেন বিচারপতি। 

দেখুন ভিডিও।

 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে