২২  শ্রাবণ  ১৪২৯  সোমবার ৮ আগস্ট ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

প্রতারণা করে সারদা থেকে টাকা নিয়েছে অধিকারী পরিবার, ফের বিস্ফোরক সুদীপ্ত সেন

Published by: Paramita Paul |    Posted: June 30, 2022 1:39 pm|    Updated: June 30, 2022 2:45 pm

Saradha scam: Sudipta Sen alleges extortion by Soumendu Adhikari | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: ফের বিস্ফোরক চিটফান্ড কর্তা সুদীপ্ত সেন। এবার কাঁথির অধিকারী পরিবারের বিরুদ্ধে ক্ষোভ উগরে দিলেন তিনি। জানালেন, বহুতল নির্মাণের জন্য কাঁথি পুরসভায় ৫০ লক্ষ টাকা জমা করেছিলেন। লক্ষ-লক্ষ টাকা খরচ করে লেবার হাটও তৈরি করেছিলেন সারদা কর্তা সুদীপ্ত সেন। তার পরেও কাঁথি পুরসভা বহুতলের প্ল্যান পাশ করাননি শুভেন্দু, অভিযোগ সুদীপ্তর। পাশাপাশি চিটফান্ড কান্ডে মুকুল রায়, অধীররঞ্জন চৌধুরীদের বিরুদ্ধেও অভিযোগ আনলেন তিনি।

এদিন ব্যাঙ্কশাল কোর্টে তোলা হয়েছিল সারদাকর্তা সুদীপ্ত সেনকে। আদালতে ঢোকার আগে অধিকারী পরিবারের বিরুদ্ধে বিস্ফোরক অভিযোগ করেন তিনি। বলেন, “আমি শুধু শুভেন্দু অধিকারী নয়, এর আগের চিঠিতে মুকুল রায়, অধীর চৌধুরীর নাম দিয়েছি। দ্বিতীয় চিঠিতে শুভেন্দুর বিরুদ্ধে অভিযোগ করেছি।”

[আরও পড়ুন: উদয়পুর হত্যাকাণ্ড: ধৃত রিয়াজ ISIS স্লিপার সেলের প্রধান! হামলার ছক ছিল জয়পুরেও]

সারদাকর্তার দাবি, “শুভেন্দু অধিকারী অনেকভাবে টাকা তুলেছে। কন্টাইতে (কাঁথি) আমাদের একটা হাইরাইজ (বহুতল) করার জন্য কাঁথি পুরসভায় ৫০ লক্ষ টাকা জমা করেছিলাম। সমস্ত কাজকর্ম করালেন। লেবার হাটের কাজ যখন শেষ করলাম তারপরেও তিনি আমাদের প্ল্যান পাশ করাননি।” সুদীপ্ত সেনের আরও দাবি, “আগেও ৯০ লক্ষ টাকা নিয়েছিলেন। কন্টাই পুরসভায় টাকা জমা করেছিলাম।” তাঁর আরও অভিযোগ, টাকা নিয়েছিলেন শুভেন্দু অধিকারীর ভাই সৌমেন্দু অধিকারীও। 

 

[আরও পড়ুন: ‘বাই বাই মোদি, মানুষ মারবেন না’, সেকেন্দ্রাবাদে বিরাট হোর্ডিং ঘিরে বিতর্ক]

যদিও এ বিষয়টি জানা নেই বলে দাবি করেছেন বিধায়ক মুকুল রায়। পাশাপাশি কংগ্রেস সাংসদ অধীর চৌধুরীর দাবি, “সুদীপ্ত সেন সামনাসামনি বসুন।” তৃণমূলের রাজ্য সম্পাদক কুণাল ঘোষের কথায়, “সুদীপ্ত সেন যাদের নাম বলেছেন তাদের কাস্টডিতে নিয়ে জেরা করুন। যারা নগদ নিয়েছে তাদের সুদীপ্ত সেনের মুখোমুখি বসিয়ে জেরা করা হোক। বিজেপিতে গিয়ে লুকিয়েছে বলে তাদের রেহাই দেওয়া উচিত নয়।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে