২৮ আশ্বিন  ১৪২৭  সোমবার ২৬ অক্টোবর ২০২০ 

Advertisement

বয়স্ক নাগরিকদের জন্য সুখবর, দিনের যে কোনও সময়ে ই-পাস ছাড়াই মেট্রো সফর

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: October 13, 2020 6:30 pm|    Updated: October 13, 2020 6:32 pm

An Images

নব্যেন্দু হাজরা: শুধুমাত্র পরিচয়পত্র দেখিয়ে, কোনও ই-পাস ছাড়া দিনের নির্দিষ্ট সময়ে কলকাতা মেট্রোয় (Kolkata Metro) সফর করতে পারতেন বর্ষীয়ান নাগরিকরা। পুজোর মুখে তাঁদের জন্য আরেক দফা সুখবর। বুধবার থেকে আর নির্দিষ্ট সময়ে না, দিনের যে কোনও সময়েই ই-পাস ছাড়া মেট্রো সফর করতে পারবেন তাঁরা। সঙ্গে শুধু পরিচয়পত্র (I-card) থাকলেই হবে। আজ এমনই ঘোষণা করেছে কলকাতা মেট্রো কর্তৃপক্ষ।

নিউ নর্মালে কলকাতায় মেট্রো পরিষেবা চালু হওয়ার পর আগেকার স্মার্ট কার্ডে আর সফর করা যাচ্ছে না। সমস্তই নতুন করে শুরু হয়েছে। যাত্রীদের আগে থেকে ই-পাস সংগ্রহ করতে হচ্ছে। শারীরিক দূরত্ববিধি বজায় রেখে মেট্রোযাত্রীদের নিরাপদে সফর করানোর লক্ষ্যেই এই ই-পাসের ব্যবস্থা। তবে তাতেও যাত্রী সংখ্যা বেড়েই চলেছিল। ফলে দফায় দফায় মেট্রোর সংখ্যা বাড়িয়ে পরিষেবা আরও মসৃণ করেছে কলকাতা মেট্রোরেল।

[আরও পড়ুন: পুজোয় তিলোত্তমাকে মুখ্যমন্ত্রীর উপহার দোতলা বাস, জেনে নিন কোন রুটে মিলবে পরিষেবা]

এর মধ্যে অবশ্য স্মার্টফোনের মাধ্যমে ই-পাস সংগ্রহ করতে বেশ সমস্যার মুখে পড়ছিলেন শহরের প্রবীণ নাগরিকরা। কারণ, তাঁরা অনেকেই স্মার্টফোন ব্যবহারে তেমন সড়গড় নন। তা’বলে কি তাঁরা মেট্রোয় যাতায়াত থেকে বঞ্চিত হবেন? মোটেই না। তাঁদের সুবিধার কথা ভেবে মেট্রো কর্তৃপক্ষ ই-পাসে ছাড় দিয়েছিল। বলা হয়েছিল, বেলা ১১.৩০ থেকে বিকেল ৪.৩০ পর্যন্ত মেট্রোয় যাতায়াত করলে প্রবীণদের কোনও ই-পাস নিতে হবে না। শুধু কাউন্টারে পরিচয়পত্র দেখিয়ে টোকেন সংগ্রহ করেই মেট্রোয় উঠতে পারবেন।

[আরও পড়ুন: কলকাতা-লন্ডন সরাসরি বিমান পরিষেবার আরজি, ফের কেন্দ্রকে চিঠি পাঠাচ্ছে রাজ্য]

এবার সেই সুবিধা আরও বাড়ানো হল। মঙ্গলবার মেট্রো কর্তৃপক্ষ জানিয়েছে, বেলা ১১.৩০ থেকে বিকেল ৪.৩০ নয়, এখন দিনের যে কোনও সময়েই পরিচয়পত্র দেখিয়ে, টোকেন নিয়ে মেট্রো সফর করতে পারবেন কলকাতার বয়স্ক নাগরিকরা। কোনও ই-পাস লাগবে না। বুধবার থেকে চালু হচ্ছে নয়া নিয়ম। মেট্রোর তরফে জানানো হয়েছে, সম্প্রতি পুজোর মরশুমে দিনে মেট্রোর সংখ্যা বাড়ানোর ফলে তারা এই পরিষেবা দিতে পারবেন। এমনকী দিনের ব্যস্ত সময়েও এভাবে যদি বয়স্করা যাতায়াত করেন, তাতেও কোনও সমস্যা হবে না। কলকাতা মেট্রোরেলের তরফে তেমনই ব্যবস্থা করা হয়েছে।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement