BREAKING NEWS

৭ আশ্বিন  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ২৪ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

পার্সেলে মোবাইলের বদলে জুতো, পোস্টম্যানকেই মারধর করে গ্রেপ্তার বড়বাজারের ক্রেতা

Published by: Sulaya Singha |    Posted: September 5, 2020 9:53 pm|    Updated: September 5, 2020 9:53 pm

An Images

অর্ণব আইচ: পার্সেল খুলেই হতবাক ক্রেতা! এ কী কাণ্ড! অর্ডার দিয়েছিলেন মোবাইল ফোনের। আর তার বদলে পার্সেল খুলতেই বেরিয়ে এল এক জোড়া জুতো! তারই জেরে মেজাজ হারিয়ে সেই জুতো দিয়ে পার্সেল দিতে আসা পোস্টম্যানকে মারধর শুরু করেন ক্রেতা। পোস্টম্যানের অভিযোগের ভিত্তিতে সন্দীপ সাউ নামে ওই ক্রেতাকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: ‘আন্দোলন করলে শিক্ষকদেরও মুখ্যমন্ত্রীর মুখঝামটা শুনতে হয়’, কটাক্ষ দিলীপের]

শনিবার এই ঘটনাটি ঘটে মধ্য কলকাতার (Kolkata) বড়বাজারের চিনা বাজার এলাকায়। সেখানকারই বাসিন্দা সন্দীপ সাউ। চুক্তি অনুযায়ী, ডাক বিভাগের মাধ্যমে সংস্থাটি ক্রেতার বাড়িতে পৌঁছে দেবে মোবাইল ফোন। জিনিসটির দাম পোস্টম্যানকে দেবেন ক্রেতা। সেইমতো সন্দীপের বাড়িতে পার্সেল নিয়ে পৌঁছে যান পোস্টম্যান। কিন্তু প্যাকেট খুলেই হতবাক সন্দীপ সাউ। কোথায় মোবাইল? তার বদলে পার্সেলে রাখা এক জোড়া জুতো। ফলে জিনিসটির দাম মেটাতে অস্বীকার করেন সন্দীপ সাউ।

পোস্টম্যান সাফ জানিয়ে দেন, পার্সেল যখন তিনি খুলেছেন তখন তাঁকে দাম মেটাতেই হবে। কিন্তু মোবাইল হাতে না পাওয়ায় বেঁকে বসেন ক্রেতা। বিষয়টি নিয়ে দু’জনের মধ্যে বচসা শুরু হয়ে যায়। পোস্টম্যান (Postman) মলয় বর্মনের অভিযোগ, যে জুতোটি পার্সেলে এসেছিল, সেই জুতো দিয়েই এরপর তাঁকে মারধর করা হয়। তিনি বাধা দিতে গেলে তাঁকে ঘুসি মারেন অভিযুক্ত। এমনকী তাঁর কাছ থেকে চার হাজার টাকা কেড়ে নেওয়া হয় বলেও অভিযোগ। আহত অবস্থায় তিনি হাসপাতালে যান। সেখানে চিকিৎসার পর বড়বাজার থানায় অভিযোগ দায়ের করেন। এদিন পুলিশ সন্দীপকে সরকারি কাজে বাধা দেওয়ার অভিযোগে গ্রেপ্তার করেছে। তাঁকে জেরা করা হচ্ছে বলে জানিয়েছে পুলিশ। যদিও যে কোম্পানিটি পার্সেলটি পাঠিয়েছিল, তাদের তরফে এখনও পর্যন্ত কোনও প্রতিক্রিয়া পাওয়া যায়নি।

[আরও পড়ুন: দ্বন্দ্বের মাঝেও আলোচনার পথেই রাজ্য, জাতীয় শিক্ষানীতি নিয়ে কেন্দ্রের বৈঠকে থাকবেন পার্থ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement