৬ শ্রাবণ  ১৪২৬  সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

Menu Logo বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার
বিলেতে বিশ্বযুদ্ধ

৬ শ্রাবণ  ১৪২৬  সোমবার ২২ জুলাই ২০১৯ 

BREAKING NEWS

অর্ণব আইচ: শুটআউট এবার খাস কলকাতা শহরে। রাজাবাজার এলাকায় যুবকের উপর প্রকাশ্যে চলল গুলি। ঘটনাটি ঘটে বৃহস্পতিবার রাতে। পুলিশ সূত্রে খবর, আক্রান্তের নাম ইয়াসির মুস্তাফা। প্রায় চার থেকে পাঁচজন দুষ্কৃতী তাঁর উপর হামলা চালায় বলে অভিযোগ। আহত অবস্থায় ইয়াসিরকে এনআরএস হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে। ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে পুলিশ।

[ আরও পড়ুন: অনাস্থার মোকাবিলায় তৎপর সব্যসাচী, আইনজীবীদের দ্বারস্থ বিধাননগরের মেয়র ]

স্থানীয় সূত্রে খবর, বৃহস্পতিবার রাতে কেশবচন্দ্র স্ট্রিট ও আমহার্ট স্ট্রিটের সংযোগস্থলে ঘটনাটি ঘটে। দুই গোষ্ঠীর মধ্যে কোনও একটি বিষয় নিয়ে তীব্র বচসা হচ্ছিল। বচসা থেকেই হাতাহাতি হয়। আর এই সব ঝামেলার মধ্যেই চলে গুলি। ঘটনায় আহত হন ইয়াসির মুস্তাফা। তাঁর হাতে গুলি লাগে। গুলির শব্দে আশপাশের বাড়ি থেকে লোক বেরিয়ে আসে। তাদের দেখেই এলাকা ছেড়ে পালিয়ে যায় দুষ্কৃতীরা। প্রত্যক্ষদর্শীদের বক্তব্য, মোট চার-পাঁচ জন এদিন ঘটনাস্থলে এসেছিল। কোনও কারণে ইয়াসিরের সঙ্গে তাদের ঝামেলা হয়। অনুমান, পুরনো কোনও ঘটনার জেরেই অশান্তির সূত্রপাত। বচসার মাঝেই ঘটনাস্থল থেকে পালানোর চেষ্টা করেন ইয়াসির। তখনই দুষ্কৃতীরা গুলি চালায়। হাতে আঘাত লাগার ফলে লুটিয়ে পড়েন ইয়াসির। তাঁকে নীলরতন সরকার মেডিক্যাল কলেজ ও হাসপাতালে ভরতি করা হয়েছে।

ঘটনার তদন্ত শুরু করেছে আমহার্স্ট স্ট্রিট থানার পুলিশ। তারা জানিয়েছে, ইয়াসির নারকেলডাঙা নর্থ রোডের বাসিন্দা। তাঁর উপর কারা হামলা করেছিল, জানিয়েছেন ইয়াসির। এও বলেছেন, হামলাকারীদের তিনি আগে থেকেই চিনতেন। পুলিশের প্রাথমিক অনুমান, পুরনো কোনও শত্রুতার জেরেই ইয়াসিরের উপরে হামলা চালায় দুষ্কৃতীরা। তাঁর উপর বেশ কয়েক রাউন্ড গুলি চলে। ইয়াসিরের বয়ানের সূত্র ধরেই ৪ জনকে আটক করেছে পুলিশ। তাদের জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে। খুব সম্ভবত আজই তাদের গ্রেপ্তার করা হবে। এই ঘটনার পর রাজাবাজার এলাকায় আতঙ্ক ছড়িয়েছে। তবে পুলিশ আশ্বাস দিয়েছে, এলাকার দিকে নজর রাখা হচ্ছে। দুর্ঘটনা এড়াতে সবরকম ব্যবস্থা নিচ্ছে তারা।

[ আরও পড়ুন: ধোকলা-পনির অতীত, মাছ-রসগোল্লায় ‘বাঙালি’ হচ্ছে বিজেপি ]

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং