BREAKING NEWS

২৪ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  রবিবার ৭ জুন ২০২০ 

Advertisement

ধোকলা-পনির অতীত, মাছ-রসগোল্লায় ‘বাঙালি’ হচ্ছে বিজেপি

Published by: Tanujit Das |    Posted: July 12, 2019 1:42 pm|    Updated: July 12, 2019 1:42 pm

An Images

রূপায়ণ গঙ্গোপাধ্যায়: ধোকলা-পনির অতীত। বিজেপি এখন মাছ-ভাতে। বাংলার জমি দখলে গত কয়েক মাস ধরে পুরোপুরি আম বাঙালির পার্টি হয়ে উঠতে কোমর বেঁধেছে বিজেপি। আচারে, ব্যবহারে, কথায়। খাবারের প্লেটে তাই লাড্ডুর জায়গায় এখন দেখা মিলছে রসগোল্লা-সন্দেশের। নিরামিষ পদের বদলে খাবারের মেনুতে মাছ আর ভাত।

[ আরও পড়ুন: বলিউডে সুযোগ দেওয়ার নামে লক্ষাধিক টাকার জালিয়াতি, প্রতারিত দমদমের মহিলা]

এই সেদিনও এ রাজ্যে অনেকে কটাক্ষ করে বলতেন বিজেপি মানে বড়বাজারের পার্টি। কিন্তু গত কয়েক বছরে সেই তকমা ঘুচিয়ে বাঙালির মনে যথেষ্ট প্রভাব বিস্তার করেছে বিজেপি। ভোটব্যাংকেও। পাল্লা দিয়ে বদলেছে কর্মকাণ্ড, ভাবনাচিন্তার চেহারাও। দলের কর্মসূচিতে আজ বাংলার সংস্কৃতিকে ধরে রাখা, জনসভায় বাংলার মনীষীদের স্মরণ, দলীয় উদ্যোগে জেলায় রবীন্দ্রনাথ, বঙ্কিমচন্দ্রের মতো বিভিন্ন মনীষীর জন্মদিন পালন অতি চেনা ছবি। বিজেপির অনুষ্ঠান মঞ্চে আজ দেবী সরস্বতীর ছবি শোভা পায়। বাঙালির সবচেয়ে বড় উৎসব দুর্গাপুজোর সময় জেলায় জেলায় হয় বুকস্টল।

গত কয়েক মাস ধরেই দলের যে কোনও সভা-অনুষ্ঠানে কিংবা উৎসব উদযাপনের মিষ্টিমুখে চিরাচরিত লাড্ডু-পেড়া-গোলাপ জামুনের বদলে জায়গা পাচ্ছে রসগোল্লা, কমলাভোগ কিংবা কড়াপাকের তালশাঁস। দলীয় সভা বা অনুষ্ঠানে দুপুরের খাবারের মেনুতেও এসেছে পরিবর্তন। সেই বহু চেনা ধোকা-মটর পনির-নবরত্ন সবজির নিরামিষ থালি কার্যত উধাও। বদলে এখন ভাত, ডাল, তরকারি আর মাছের ঝোলই গেরুয়া শিবিরের নিয়মিত মেনু। রাজ্য বিজেপির অন্যতম সাধারণ সম্পাদক প্রতাপ বন্দ্যোপাধ্যায়ের কথায়, শুধু রাজনীতির আঙিনায় নয়, ভাবনায়-আচরণেও বাঙালির মন আজ জয় করেছে বিজেপি। বিজেপি এখন আম বাঙালির পার্টি।

[ আরও পড়ুন: খুলছে বিমানবন্দরগামী রাস্তা, আজই শুরু উল্টোডাঙা উড়ালপুলের মেরামতির কাজ ]

গত কয়েক বছর ধরে বঙ্গে ক্রমশ প্রভাব বাড়াচ্ছে পদ্ম শিবির। বাড়ছে জনসমর্থন। সদ্য হওয়া লোকসভা নির্বাচনের ভোটবাক্সেই যার প্রমাণ মিলেছে। এ রাজ্যে বাম-কংগ্রেসকে পিছনে ফেলে এখন শাসক তৃণমূলের প্রধান প্রতিপক্ষ হয়ে উঠেছে নরেন্দ্র মোদির দল। পশ্চিমবঙ্গে লোকসভার ৪২টি আসনের মধ্যে ১৮টি আসনই নিজেদের ঝুলিতে পুরেছে তারা। দলের প্রাপ্ত ভোট ৪০ শতাংশে পৌঁছে গিয়েছে। আর তাতেই আরও বেশি করে আম বাঙালির পার্টি হয়ে উঠতে উঠেপড়ে লেগেছে পদ্ম শিবির।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement