১১ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৭  সোমবার ২৫ মে ২০২০ 

Advertisement

হবু স্বামীকে ‘কেড়ে নিয়ে’ বিয়ে করল বোন, ভগ্নিপতির বিরুদ্ধে ধর্ষণের অভিযোগ দিদির

Published by: Sucheta Chakrabarty |    Posted: February 20, 2020 9:11 am|    Updated: February 20, 2020 9:45 am

An Images

ছবিটি প্রতীকী

অর্ণব আইচ: পাঁচ বছর ধরে বিয়ের প্রতিশ্রুতি দিয়ে সহবাসের পর শেষে বোনকে বিয়ে। উত্তর কলকাতার বাসিন্দা তরুণী হঠাৎই জানতে পারেন যে, তাঁরই হবু স্বামী এখন তাঁর ‘ভগ্নিপতি’। ওই যুবকের কাছে তাঁর আর কোনও জায়গা নেই। তাঁর বোনই ‘কেড়ে নিয়েছে’ হবু স্বামীকে। এই আঘাত মেনে নিতে পারেননি অভিযোগকারিণী। দিন কয়েক আগে বিয়ে হওয়া ওই ‘ভগ্নিপতি’র বিরুদ্ধে সিঁথি থানায় ধর্ষণের অভিযোগ দায়ের করেছেন তরুণী। তার সঙ্গে মারধরেরও অভিযোগ করেন তরুণী।

ঘটনার সূত্রপাত ২০১৫ সালে। সিঁথির দমদম রোডের বাসিন্দা অভিযুক্ত যুবকের সঙ্গে পরিচয় হয় উত্তর কলকাতারই বাসিন্দা ওই তরুণীর। তখন থেকেই দু’জনের মধ্যে ঘনিষ্ঠতা বাড়তে থাকে। তরুণীর অভিযোগ, ”নাবালিকা থাকাকালীনই অভিযুক্ত যুবক তাঁকে বিয়ে করার প্রতিশ্রুতি দেয়।যুবক তাঁকে জানায় সাবালিকা হলেই বিয়ে করবে তাকে।” এই প্রতিশ্রুতি দিয়ে তরুণীকে ওই ‘বন্ধু’ যুবক দমদম রোডে নিজের বাড়িতে নিয়ে যায়। তাকে ওই বাড়ির মধ্যে একাধিকবার ধর্ষণ করে বলেও অভিযোগ করেন তরুণী। এর পর তাঁকে কয়েকটি জায়গায় বেড়াতে নিয়ে গিয়েও যুবক ধর্ষণ করে বলে অভিযোগে জানান তরুণী। সাবালিকা হওয়ার পর যুবককে বিয়ে করতে বলেন তিনি। কিন্তু যুবক বিয়ের প্রসঙ্গ এলেই তাঁকে এড়িয়ে যেত। তরুণী জোর করতে শুরু করলে তাঁকে মারধর করা হয়। সঙ্গে হুমকি দিতে থাকে এই যুবক। যদিও এর মধ্যে অভিযোগকারিণীর সঙ্গে সম্পর্ক ছেড়ে দেয়নি ওই যুবক।

[আরও পড়ুন: রাজ্যের পরামর্শে পুরভোট ইভিএমের বদলে ব্যালটে করার ভাবনা কমিশনের]

চলতি বছরের প্রথমদিকেও অভিযোগকারিণীকে ধর্ষণ করা হয় বলে অভিযোগ। অন্যদিকে তরুণীর সঙ্গে ঘনিষ্ঠ হওয়ার সুবাদে তাঁর বোনের সঙ্গে পরিচয় হয় যুবকের। তরুণী বুঝতে পারেননি যে, তাঁর চোখ এড়িয়ে তাঁরই ‘হবু স্বামী’ ধীরে ধীরে তাঁর বোনের ঘনিষ্ঠ হতে শুরু করেছে। তাঁরই চোখের আড়ালে দু’জনের মধ্যে তৈরি হয়েছে ঘণিষ্ঠ সম্পর্ক। তরুণী জানান, গত মাসেই বিষয়টি সামনে আসে। পাশাপাশি বাড়ির লোকের সামনে তরুণীর বোন জানায়, দিদির ‘হবু স্বামীকে’ই তিনিই বিয়ে করবেন। আর তাতে রাজিও হয়েছে ওই যুবক ও তার পরিবারের লোকেরা। এর মধ্যে তরুণীর বোনের চাপে বাড়ির লোকেরাও ওই যুবকের সঙ্গে বাড়ির ছোট মেয়েকেই বিয়ে দেন। এরপরই তরুণী ভেঙে পড়েন ও সিঁথি থানায় ধর্ষণ, মারধরের অভিযোগ জানান।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement