BREAKING NEWS

২৭ আষাঢ়  ১৪২৭  রবিবার ১২ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

জলমগ্ন লাইনে আটকে ট্রেন, খবর পেয়ে যাত্রীদের উদ্ধার রেল পুলিশের

Published by: Tiyasha Sarkar |    Posted: August 17, 2019 3:25 pm|    Updated: May 18, 2020 4:10 pm

An Images

অর্ণব আইচ: বৃষ্টিতে নাজেহাল অবস্থা কলকাতার। চারপাশে জল থইথই দশা। কার্যত ঘরবন্দি মানুষ। এরই মাঝে রাস্তায় বেরিয়ে বিপদে পড়েছেন অনেকেই। কোনওক্রমে নিরাপদ আশ্রয়ে ফিরতে পেরেছেন অনেকে। কেউ আবার আটকে পড়েছেন। এভাবেই পথে বেরিয়ে বিপদে পড়ে রেল কর্তৃপক্ষ ও জিআরপির সহযোগিতায় নিরাপদে ঘরে ফিরলেন বেশ কয়েকজন যাত্রী। রেল কর্তৃপক্ষকে ধন্যবাদ জানিয়েছেন তাঁরা৷

[আরও পড়ুন: বারাসতে পুলিশ কর্মীর ছেলের রহস্যমৃত্যু, খুনের অভিযোগ দায়ের পরিবারের]

শুক্রবার বিকেল থেকে যে বৃষ্টি শুরু হয়েছে,  সন্ধে পেরিয়ে তার গতি কিছুটা কমলেও শেষরাত থেকে ফের হাঁকিয়ে ব্যাট করতে শুরু করে দিয়েছে। শনিবার সকালেও বৃষ্টির কোনও বিরাম নেই। আবহাওয়া দপ্তরের পূর্বাভাস মতোই জলমগ্ন জেলা থেকে শহর কলকাতা। বৃষ্টির জেরে হাওড়ার কারশেডে জল জমে রেল পরিষেবা ব্যাহত হয়েছে। বাতিল হয়েছে বিভিন্ন লাইনের ট্রেন।

জানা গিয়েছে, শনিবার সকাল পৌনে এগারোটা নাগাদ একটি ফোন যায় রেলের কন্ট্রোল রুমে। এক মহিলা জানান, তিনি এবং আরও কয়েকজন যাত্রী বিবাদী বাগ ও বড় বাজারের মাঝে ট্রেনে আটকে পড়েছেন লাইনে জল জমে থাকার কারণে। ওই মহিলার দেওয়া তথ্যের ভিত্তিতে ঘটনাস্থলে যায় উদ্ধারকারীরা। রেলের আধিকারিকদের তৎপরতায় ট্রেনটি নিয়ে যাওয়া হয় বড়বাজার স্টেশনে। জানা গিয়েছে, সব যাত্রীদের নিরাপদেই ট্রেন থেকে উদ্ধার করা সম্ভব হয়েছে।

শুধু ট্রেন নয়। শুক্রবার বিকেল থেকে শুরু হওয়া টানা বৃষ্টির জেরে অনেক জায়গায় জল জমে যায়। জল জমে রয়েছে কলেজ স্ট্রিট, সেন্ট্রাল অ্যাভেনিউ, মহাত্মা গান্ধী রোড, ঠনঠনিয়া, আমহার্স্ট স্ট্রিট, মুক্তারাম বাবু স্ট্রিট এবং বড়বাজার এলাকায় নিচু জায়গায়। রাতভর বৃষ্টিতে আলিপুর, একবালপুর, বেহালার মতো জায়গায় হাঁটু পর্যন্ত জল জমে যায়। ফলে রাস্তায় বাস থেকে ট্যাক্সি সব কিছু সংখ্যাই অন্যান্য দিনের থেকে অনেকটাই কম। ফলে ভোগান্তির শিকার হচ্ছেন নিত্যযাত্রীরা। এই পরিস্থিতিতে রেল কর্তৃপক্ষের সাহায্য তাঁদের অনেকটাই আশ্বস্ত করেছে৷

[আরও পড়ুন: বোমাবাজির অভিযোগে ধৃত কাউন্সিলর, প্রতিবাদে বিজেপির পথ অবরোধ নৈহাটিতে]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement