BREAKING NEWS

১৮ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  সোমবার ৫ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

SSC দুর্নীতি মামলায় সুবীরেশ ভট্টাচার্যকে জেরা নিয়ে ধোঁয়াশা, সিবিআইকে তীব্র ভর্ৎসনা আদালতের

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: September 26, 2022 3:20 pm|    Updated: September 26, 2022 4:11 pm

SSC scam: CBI faces Alipur Court heat after grilling Subiresh Bhattacharya | Sangbad Pratidin

অর্ণব আইচ: এসএসসি দুর্নীতি নিয়োগ মামলার তদন্ত নিয়ে আলিপুর আদালতের তীব্র ভর্ৎসনার মুখে সিবিআই (CBI)। কমিশনের প্রাক্তন চেয়ারম্যান সুবীরেশ ভট্টাচার্যকে কীভাবে জেরা করা হচ্ছে, আদৌ তদন্ত চলছে কি না, কেস ডায়েরিতে কোনও কিছুর উল্লেখ নেই কেন  – বিচারপতির একাধিক প্রশ্নের উত্তর কার্যত দিতেই পারলেন না সিবিআইয়ের তদন্তকারী অফিসার। তাতেই ব্যাপক ক্ষুব্ধ বিচারপতি। ক্ষোভের সঙ্গে তাঁর মন্তব্য, ”আসলে আপনারা তদন্ত করতে চেয়েছিলেন, কিন্তু পারেননি।” সিবিআই তদন্তের আবেদন খারিজ করে সুবীরেশকে ১০ অক্টোবর পর্যন্ত জেল হেফাজতের নির্দেশ দেন বিচারপতি। পুজোর সময়টা জেলেই কাটাতে হবে তাঁকে। 

৭ দিনের সিবিআই হেফাজতের পর সোমবার সুবীরেশ ভট্টাচার্যকে ফের পেশ করা হয়েছিল আলিপুর আদালতে। তাঁকে আদালতে পেশ করতে কেন দেরি হল এত, তা নিয়ে প্রথমেই ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিচারপতি। যানজটের দোহাই দেন সিবিআই আধিকারিকরা। তাতে ক্ষুব্ধ হন বিচারপতি। এরপর সিবিআই ফের সুবীরেশকে চারদিনের জন্য ফের জেল হেফাজতের আবেদন করেন। তাঁদের অভিযোগ, তদন্তে সহযোগিতা করছেন না সুবীরেশ, বৃহত্তর ষড়যন্ত্র রয়েছে এর নেপথ্য়ে। কেন্দ্রীয় তদন্তাকারীদের অভিযোগ, ওএমআর (OMR) শিটে কারচুপি করে কম নম্বর পাওয়া প্রার্থীদের চাকরি পাইয়ে দেওয়া হয়েছে।  নথি নষ্টের অভিযোগও তোলা হয়।

[আরও পড়ুন: উৎসবের মরশুমেও অশনি সংকেত, টাকার দামে রেকর্ড পতন]

পালটা সরকারি আইনজীবী সওয়াল করেন, ৭ দিন ধরে সিবিআই কী জেরা করেছেন? তিনি তো সিবিআইয়ের হেফাজতে ছিলেন, তাহলে নথি কীভাবে নষ্ট হল? সিবিআই যে বাড়তি সম্পত্তির কথা বলছেন, সেটা কোথায়? আদালতের নির্দেশ ছিল, সুবীরেশের জেরার সময় একঘণ্টা আইনজীবীর উপস্থিত থাকার কথা। সিবিআইয়ের তরফেই তাঁকে ফোন করে বা এসএমএস পাঠিয়ে তা জানানোর কথা। কিন্তু সুবীরেশের আইনজীবীরা জানান, এসএমএস বা ফোন হয়নি। ২২,২৩,২৪,২৫ সেপ্টেম্বর – চারদিনের প্রতিদিনই ১ ঘণ্টার জন্য নিজাম প্যালেসে গিয়েছিলেন আইনজীবী। কিন্তু কোনও জেরা হয়নি। তাতে আইনজীবীদের দাবি, হয় সিবিআই আদালতের নির্দেশ অবজ্ঞা করেছে, নইলে কোনও জেরাই হয়নি। কেস ডায়েরিতেও জেরার কথা উল্লেখ নেই।

[আরও পড়ুন: ‘পুজোর পবিত্রতা নষ্ট করেছেন মুখ্যমন্ত্রী’, অভিযোগ দিলীপের, পালটা দিল তৃণমূল]

বিচারপতি এ বিষয়ে তদন্তকারী অফিসারকে প্রশ্ন করলে তিনি চুপ করে ছিলেন। তাতে বিচারপতি ভর্ৎসনা করে বলেন, ”কেস ডায়েরি ছাড়া, নথি ছাড়া কী করে তদন্ত চলছে? তদন্তের অগ্রগতি নেই কেন?  আসলে আপনারা তদন্ত করতে চেয়েছেন কিন্তু পারেননি।”

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে