BREAKING NEWS

২৩ শ্রাবণ  ১৪২৭  শনিবার ৮ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

এসএসসি চাকরিপ্রার্থীদের পাশে সুবোধ সরকার, মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপের দাবি

Published by: Sayani Sen |    Posted: March 26, 2019 12:22 pm|    Updated: March 26, 2019 12:26 pm

An Images

দীপঙ্কর মণ্ডল: কষ্ট হচ্ছে, তবে অনশন চালিয়ে যাওয়ার সিদ্ধান্তে অনড় এসএসসি চাকরিপ্রার্থীরা৷ যতক্ষণ না নম্বর-সহ এসএসসি তালিকাপ্রকাশ হবে, ততক্ষণ আন্দোলন চলবে বলেই সাফ জানিয়ে দিয়েছেন অনশনকারীরা৷ মঙ্গলবার ২৭তম দিনে বিকাশ ভবনে গিয়ে বিভিন্ন নথিপত্র জমা দেওয়ার কথা আন্দোলনকারীদের৷ এদিকে, এই পরিস্থিতিতে অনশনকারীদের পাশে দাঁড়ালেন সুবোধ সরকার৷ এ বিষয়টিতে মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি করেন তিনি৷

আরও পড়ুন: ভোট বাজারে ছোট-বড় একত্রে, সিপিএম প্রার্থীর নামে দেওয়াল লিখল শিশুশিল্পী]

২০১৬ সালের পরীক্ষার ফলপ্রকাশের পর যে তালিকাপ্রকাশ হয়, সেখানে কারও নম্বর উল্লেখ করা হয়নি। যা কি না ব্যতিক্রমী। কলেজ,  বিশ্ববিদ্যালয়ে ভরতিই হোক বা যে কোনও নিয়োগের পরীক্ষা, পাশ করা প্রার্থীদের নম্বর উল্লেখ করাই নিয়ম। অনশনকারীদের অভিযোগ, বেআইনি কায়দায় নিয়োগ করতেই নম্বর উল্লেখ করেনি এসএসসি। এই অভিযোগে গত ২৮ ফেব্রুয়ারি থেকে ধর্মতলায় অনশনে বসেছেন এসএসসি চাকরিপ্রার্থীরা। মঙ্গলবার তা ২৭তম দিনে পা রেখেছে৷ এতদিন মাথার উপর ত্রিপল ছিল আন্দোলনকারীদের৷ অভিযোগ, সোমবার পুলিশ এসে তা-ও খুলে দিয়েছে৷ অনশনের জেরে অসুস্থ হয়ে পড়েছেন অনেকেই৷ কারও বুকে ব্যথা তো কারও জ্বর৷ গরম থেকে বাঁচতে তালপাতার হাতপাখাই ভরসা অনশনকারীদের৷ কষ্ট হচ্ছে ঠিকই, তবে আন্দোলন প্রত্যাহারের কোনও চিন্তাভাবনা নেই তাঁদের৷ আন্দোলনকারীদের বক্তব্য, যাঁদের পাশে থাকার দরকার ছিল, তাঁরা নেই৷ তবে পাশে রয়েছেন পরিজনেরা৷ যতই কষ্ট হোক না কেন পরিজনদের মুখ চেয়ে দাঁতে দাঁত চেপে আন্দোলন জারি রাখার সিদ্ধান্ত নিয়েছেন অনশনকারীরা৷

[ আরও পড়ুন: এসএসসি তালিকায় নম্বর উল্লেখ করলেই আন্দোলন প্রত্যাহার, ঘোষণা চাকরিপ্রার্থীদের]

আন্দোলনকারীদের পাশে দাঁড়িয়েছেন বিশিষ্টরা৷ সোমবারই অনশন মঞ্চে যান নাট্যব্যক্তিত্ব রুদ্রপ্রসাদ সেনগুপ্ত, শিক্ষাবিদ মীরাতুন নাহার, সমাজকর্মী সুজাত ভদ্র, মানবাধিকার কর্মী বিনায়ক সেন, শিল্পী সমীর আইচ, অভিনেত্রী পাপিয়া অধিকারী, পরিচালক তরুণ মজুমদার, শিল্পী ওয়াসিম কাপুর-সহ অনেকেই৷ সুবোধ সরকারও আন্দোলনকারীদের সঙ্গে কথা বলেন৷ মুখ্যমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ দাবি করে সোশ্যাল মিডিয়ায় একটি পোস্টও করেছেন তিনি৷

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement