BREAKING NEWS

২৮ চৈত্র  ১৪২৭  রবিবার ১১ এপ্রিল ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

Bengal Election 2021: পুজোর স্টাইলে ভোটেও থিমের হোর্ডিং, তৃণমূলের প্রচারে 'হীরক রাজার দেশে'র গানের প্যারোডি

Published by: Sulaya Singha |    Posted: March 31, 2021 5:29 pm|    Updated: March 31, 2021 5:29 pm

An Images

কৃষ্ণকুমার দাস: দুর্গাপুজোর পর এবার ভোটের (Bengal Election 2021) প্রচারেও কলকাতাজুড়ে থিমের দাপট। শুধুমাত্র হোর্ডিং বা দেওয়াল লিখন নয়, পোস্টার, মাস্ক-গেঞ্জি থেকে শুরু করে ট্যাবলো ও ডিজিটাল ভ্যানেও প্রার্থীদের পক্ষে থিমের প্রচারে অভিনবত্ব চোখে পড়ছে মহানগর থেকে জেলাতেও। শুধুমাত্র থিমের বস্তুনিষ্ঠ ‘ফিজিক্যাল’ প্রচার নয়, ডিজিটাল মিডিয়াতেও বিজেপির পালটা থিমের ‘কার্পেট-বম্বিং’ শুরু করেছে তৃণমূল (TMC)।

নতুন প্রজন্মের ছাত্র-যুবর হাত ধরে থিমের পাশাপাশি দলের জনসভায় এই প্রথম বাজছে বাম-বিজেপিকে আক্রমণ করে তৃণমূলের তরফে জনপ্রিয় গানের প্যারোডি। ব্যতিক্রমী এই প্রচার দক্ষিণ কলকাতা যুব তৃণমূল সভাপতি বাপ্পাদিত্য দাশগুপ্তর হাত ধরে শুরু হলেও থিম-হোর্ডিং ও কার্টুন, গত কয়েকদিনে ভাইরাল হয়েছে জেলার নানা বিধানসভা কেন্দ্রেও। ২০০৪ সালে প্রয়াত অজিত পাঁজার বিরুদ্ধে লোকসভা ভোটে উত্তর কলকাতায় দাঁড়িয়ে প্রথম থিমের হোর্ডিং দেন বামপ্রার্থী মহম্মদ সেলিম (Md Salim)। এবার সেই অস্ত্রেই বাম-বিজেপির বিরুদ্ধে আক্রমণ শানাচ্ছে জোড়াফুল। অবশ্য এবারেও হুগলির চণ্ডীতলায় বিধানসভার প্রার্থী হয়ে থিমের হোর্ডিং-ব্যানারে ভরিয়ে দিয়েছেন সংযুক্ত মোর্চার সেলিম।

[আরও পড়ুন: ‘বর্গি’দের তাড়াতে গর্জে উঠলেন ‘বাঘিনী’ মমতা, প্রকাশ্যে ‘ফাইটার দিদি’র তৃতীয় ভিডিও]

লকডাউনের পুজোয় ‘পরিযায়ী শ্রমিক’ থিম করে হইচই ফেলে দিয়েছিল দক্ষিণের নাকতলা উদয়ণ সংঘ। প্রতিবছর শুধু থিম নয়, কবীর সুমনকে দিয়ে থিমের গান, অভিনেত্রী ঋতুপর্ণা সেনগুপ্ত ও গায়ক রশিদ খানদের নিয়ে শারদোৎসবের প্রচারে নামেন পুজোর কর্তা বাপ্পাদিত্য। আর এবার তিনিই তৃণমূল যুব সংগঠনের জেলা সভাপতি হয়ে বিধানসভা ভোটে দলের দশ প্রার্থীর হয়ে থিমের প্রচার করে চমকে দিয়েছেন শাসক-বিরোধী, উভয়পক্ষকে। ব্রিগেড সভা নিয়ে বামেদের টুম্পা গানের পালটা প্যারোডি লিখে বাপ্পা হইচই ফেলে দিয়েছেন শহরে। শুধু তাই নয়, ১ এপ্রিল ফের ‘হীরক রাজার দেশে’র সুপার-ডুপার হিট ‘কতই রঙ্গ দেখি দুনিয়ায়’ গানের সুরে নতুন প্যারোডি ছাড়ছেন তিনি। গান গাইছেন ‘বারান্দায় রোদ্দুর’ গানের সুপারহিট শিল্পী সুরজিৎ।

বাসে চলতে চলতে নিজের মোবাইল ফোনে দলের সমর্থনে যে কার্টুন ও মিম দেখছেন সেটাই রাস্তার হোর্ডিং কিংবা ট্যাবলোয় চোখে পড়ছে। যাদবপুরে তৃণমূলের মিছিলে দলের ছাত্র-যুবরা যে ক্যাপশন-স্লোগান নিয়ে হাঁটছেন, সেটাই ভবানীপুর কেন্দ্রে গিয়ে শুনছেন, দেখছেন। বেহালায় পঞ্চমবারের জন্য বিধায়ক হওয়ার দৌড়ে শিক্ষামন্ত্রী পার্থ চট্টোপাধ্যায়ের সমর্থনে হোর্ডিংয়ে ‘আমার বিধায়ক আমার পাশে’, একই স্লোগান ফুটে উঠেছে টালিগঞ্জে অরূপ বিশ্বাস বা বন্দরের প্রার্থী ফিরহাদ হাকিমের প্রচারে। কার্টুনে এসেছে ‘অধিকারী পরিবার’ থেকে দীনেশ ত্রিবেদী, অর্জুন সিং, এমনকী মিঠুন চক্রবর্তীর ‘এক ছোবলে ছবি’র মতো বিতর্কিত বিষয়।

[আরও পড়ুন: এখানে রাজনৈতিক আলোচনা নয়! চায়ের দোকানের পোস্টার দেখে অবাক নেটিজেনরা]

প্রার্থীর ছবিওয়ালা গেঞ্জিতে ‘মনের মাঝে শুধু তৃণমূল’ থিম যেমন শ’য়ে শ’য়ে ছাড়া হয়েছে, তেমনই প্রতিটি ব্লকে ২০০ হোর্ডিং দিয়েছে যুব তৃণমূল। ৮৪টি ওয়ার্ডে একই থিম শুরু হলেও থিমের ওই ব্যানার, মাস্কের অনুকরণ পৌঁছে গিয়েছে বারুইপুর থেকে বোলপুর, বেলদা থেকে মালদহে। থিমের প্রচারে দলের পালে জোর ‘হাওয়া’ এনে দিয়েছে বলে স্বীকার করছেন বাপ্পাদিত্য। বলছেন, “টুম্পা গানের পালটা প্যারেডি বামেদের চেয়ে অর্ধেকের কম সময়ে দ্বিগুণ ‘লাইক’ পেয়েছে। থিমের হোর্ডিং অনুকরণ হচ্ছে, পাড়ায় পাড়ায় ‘না রে না গান’ ঘুরছে।” শুধু দক্ষিণ কলকাতা জেলা যুব তৃণমূল নয়, রাসবিহারীর প্রার্থী দেবাশিস কুমার নিজের কেন্দ্রজুড়ে বিশাল মাপের বহু থিম-হোর্ডিং দিয়েছেন। লেখা, “রাসবিহারীর মর্যাদা, সবার পাশে দেবাদা।” তবে চণ্ডীতলার সেলিমের স্লোগান ও হোর্ডিং এবারও সবার নজর কাড়ছে, প্রভাব ফেলছে।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement