১২ জ্যৈষ্ঠ  ১৪২৯  শনিবার ২৮ মে ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

সিরিয়ালে মগ্ন পরিবার, দিব্যি লুঠপাট সেরে পালাল দুষ্কৃতীরা

Published by: Suparna Majumder |    Posted: January 18, 2022 8:26 am|    Updated: January 18, 2022 8:27 am

Thief steals money and other things while whole Family was watching serial | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

অর্ণব আইচ: একতলার ঘরে বসে সিরিয়াল দেখছিলেন পরিবারের সদস্যরা। ছাদ দিয়ে দোতলার ঘরে ঢুকে কয়েক লক্ষ টাকার গয়না ও নগদ নিয়ে পালাল দুষ্কৃতীরা। রবিবার রাতে দক্ষিণ কলকাতার (South Kolkata) কসবা এলাকায় ঘটেছে এই ঘটনা।

পুলিশ জানিয়েছে, কসবার কলুপাড়া লেনের দোতলা বাড়িতে থাকে গোপাল হালদারের পরিবার। রবিবার বিকেলে গোপালবাবু পরিবার নিয়ে বাইরে বেরিয়ে ছিলেন। তখন বাড়িতে ছিলেন তাঁর মা, বোন ও ভাগ্নি। একতলার ঘরে বসে সিরিয়াল দেখছিলেন তাঁরা। রাত আটটার পর গোপালবাবু পরিবার নিয়ে বাড়িতে ফিরে আসেন। তাঁর ছেলে দোতলায় উঠে দেখেন, ছাদ লাগোয়া একটি গেটের লক ভাঙা। চিৎকার শুনে সবাই উপরে উঠে যান। দেখা যায়, ঘরের ভিতরটা লন্ডভন্ড করা হয়েছে। ভেঙে ফেলা হয়েছে আলমারির লক। আলমারির ভিতর থেকে নগদ প্রায় তিন লক্ষ টাকা ও প্রায় আড়াই লক্ষ টাকার গয়না দুষ্কৃতীরা লুট করে পালিয়ে গিয়েছে, অভিযোগ এমনই।

[আরও পড়ুন: Coronavirus Update: ১২ দিন পর রাজ্যের দৈনিক সংক্রমণ দশ হাজারের নিচে, নিম্নমুখী অ্যাকটিভ কেসও]

সঙ্গে সঙ্গেই বিষয়টি কসবা থানায় জানানো হয়। প্রাথমিক তদন্তের পর পুলিশের ধারণা, পাইপ বেয়ে এক বা দুই জন দুষ্কৃতী ছাদে ওঠে। তারা ছাদের গেটের লক ভেঙে দোতালায় নেমে এসে লুঠপাট চালায়। যেভাবে আলমারির লক ভাঙা হয়েছে, তা পেশাদার দুষ্কৃতীদের কাজ বলে পুলিশের ধারণা।

সম্ভবত সন্ধ্যা সাতটা থেকে রাত আটটার মধ্যে এই লুঠপাট চলে। পুলিশ আধিকারিকদের মতে, ওই সময়ে পরিবারের অন্যরা টিভি সিরিয়াল দেখতে ব্যস্ত ছিলেন। টিভির শব্দ কিছুটা জোরে থাকার কারণে উপরে তালা বা আলমারির লক ভাঙার শব্দ টের পাননি বাড়ির লোকেরা। তবে দুষ্কৃতীরাও যতটা নিঃশব্দে সম্ভব, লুঠপাট করেছে। তদন্ত শুরু করে পুলিশ এলাকার CCTV ফুটেজের সন্ধান চালাচ্ছে। এ ছাড়াও দুষ্কৃতীদের সন্ধানে কলকাতা ও দক্ষিণ ২৪ পরগনার কয়েকটি জায়গায় তল্লাশি চলছে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: লটারিতে এক কোটি টাকা জিতলেন অনুব্রত মণ্ডল! শোরগোল বীরভূমে]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে