১৬ অগ্রহায়ণ  ১৪২৮  শুক্রবার ৩ ডিসেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

ক্যাশলেস হওয়ার পথে কলকাতা বইমেলাও

Published by: Sangbad Pratidin Digital |    Posted: December 14, 2016 9:57 am|    Updated: December 14, 2016 9:57 am

This year Kolkata Book Fair will be Cashless

স্টাফ রিপোর্টার: এক দুই নয়৷ অন্যান্যবারের তুলনায় বইমেলায় পাঁচগুণ হচ্ছে এটিএম-এর সংখ্যা৷ বই কিনতে গিয়ে নগদের অভাব হলেও তাই সমস্যা নেই৷ কার্ড ঘষেই বের করে নেওয়া যাবে প্রয়োজনীয় টাকা৷ সমস্ত স্টলেই থাকবে পিওএস মেশিন৷ পছন্দের বইটা বগলদাবা করে ডেবিটকার্ডেই দেওয়া যাবে মূল্য৷ সাধারণ ক্রেতারা অনেকেই ই-ওয়ালেট বিষয়টি সম্বন্ধে অবহিত নন৷ পাবলিশার্স অ্যান্ড বুকসেলার্স গিল্ডের সাধারণ সম্পাদক ত্রিদিব চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, “যতগুলি ই-ওয়ালেট সংস্থা আছে, আমরা সকলকে আহ্বান করছি আমাদের সঙ্গে যোগাযোগ করুন৷ সাধারণ মানুষ যেন বই কিনেই বাড়ি ফিরতে পারেন৷”

অন্যান্য বার বইমেলার মাঠে তিন থেকে চারটি এটিএম থাকে৷ এবার সেখানে পনেরোটি এটিএম রাখার চেষ্টা করা হচ্ছে৷ এ বিষয়ে স্টেট ব্যাঙ্কের সিজেএম পার্থপ্রতিম সেনগুপ্তর প্রাথমিক কথা হয়েছে পাবলিশার্স অ্যান্ড বুক সেলার্স গিল্ডের৷ তবে এটিএম মেশিনগুলি নগদের অভাবে ভুগতে পারে বলে এদিন আশঙ্কা প্রকাশ করেছেন গিল্ড সভাপতি সুধাংশুশেখর দে৷ তাঁর কথায়, “শহরের রাস্তায় এটিএমে টাকা ভরলে সাধারণ মানুষ ভিড় করছেন৷ কিছুক্ষণের মধ্যেই সে টাকা শেষ হয়ে যাচ্ছে৷ বইমেলায় যেন এটিএম খালি দেখে ক্রেতাদের ফিরে যেতে না হয়৷” এবছর বইমেলায় অংশ নেওয়ার জন্য প্রায় ২০০০টি আবেদনপত্র জমা পড়েছিল৷ ত্রিদিববাবু জানিয়েছেন কোনও আবেদনই ফিরিয়ে দেওয়া হয়নি৷

শীতের মাঝামাঝি পরিযায়ী পাখীদের ডানায় ভর করেই শহরে ফি বছর ফিরে আসে বই উৎসব৷ হামিং বার্ডের রাজধানী কোস্টা রিকা ৪১তম কলকাতা বইমেলার থিম কাণ্ট্রি৷ যে দেশে কোনও সেনাবাহিনী নেই৷ কিন্তু স্বাক্ষরতার হার ৯৭.৮ শতাংশ৷ এ বছরই ভারত-রাশিয়া কূটনৈতিক সম্পর্কের ৭০ বছর পূর্তি৷ বইমেলায় তাই বিশেষ স্থান দেওয়া হবে আলেকজান্ডার পুশকিনের দেশকে৷ রাশিয়ার প্যাভিলিয়নে মিলবে একাধিক না দেখা সাহিত্যের নিদর্শন৷ থাকবে ১১টি লাতিন আমেরিকার দেশ সহ বাংলাদেশের প্যাভিলিয়ন৷

২৫ জানুয়ারি কলকাতা বইমেলার উদ্বোধন করছেন মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়৷ দক্ষিণ ভারতের একাধিক প্রকাশনা সংস্থা আসছে বইমেলায়৷ এবার বইমেলায় ২ ফেব্রুয়ারি থেকে ৪ ফেব্রুয়ারি পর্যন্ত চলবে কলকাতা লিটরেচার ফেস্টিভ্যাল৷ বইমেলায় প্রায় ৮০০টি বইয়ের স্টল দেখা যাবে৷ ত্রিদিব চট্টোপাধ্যায় জানিয়েছেন, নোট বাতিলের জেরে বইমেলায় কমতে পারে বইয়ের সংখ্যা৷ তবে ক্রেতাদের উৎসাহিত করতে আকর্ষণীয় ছাড়ের পরিকল্পনা করছে গিল্ড৷

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে