BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  মঙ্গলবার ১ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

বিজেপিকে বিপর্যয়ের তকমা, ‘নিরাপদ’ জানিয়ে রেজিস্টারের আবেদন তৃণমূলের

Published by: Sayani Sen |    Posted: October 24, 2020 10:23 am|    Updated: October 24, 2020 10:23 am

An Images

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: বিজেপি অতিমারী, রাস্তায় নেমে স্লোগান তুলেছিলেন তৃণমূলনেত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায় (Mamata Banerjee)। তাঁর সেই স্লোগানকে সামনে রেখে বিজেপিকে বিপর্যয়ের তকমা দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় নতুন ক্যাম্পেন শুরু করল রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস। ঠিক যেভাবে কোনও বিপর্যয়ের মুখে ফেসবুক জানতে চায় কোথায় কতজন সুস্থ আছেন, নিরাপদে আছেন তা চিহ্নিত করে জানাতে। একেবারে সেই পদ্ধতি। আনুষ্ঠানিক স্লোগান “নিজেকে বিজেপির থেকে সুরক্ষিত চিহ্নিত করুন” (Mark Yourself Safe from BJP)। এই কর্মসূচিতে রেজিস্টার করিয়ে প্রাক ভোট জনমত তৈরির কাজটা এভাবেই শুরু করে দিচ্ছে তৃণমূল। দায়িত্বে সেই প্রশান্ত কিশোরের দল আইপ্যাক।

ক্যাম্পেনে মূলত সামনে রাখা হয়েছে পরিযায়ী শ্রমিক, দলিত নিগ্রহ, দাঙ্গার মত ইস্যুগুলোকে। এক শীর্ষ নেতার কথায়, “এতে দু’টো লাভ হবে। বিজেপি (BJP) বিরোধী মত জানা যাবে। দ্বিতীয়ত, কোথাও কেউ বিজেপির হাতে অত্যাচারিত কিনা, সেটাও সামনে আসবে। তাতে প্রশাসনকেও সতর্ক করা যাবে। আবার সেই ঘটনা মানুষও জানতে পারবে।”
প্রকাশ্যে বিজেপি বিরোধিতা একপ্রকার। কিন্তু বিজেপি বিরোধী মতামত রয়েছে, আবার সেই মতপ্রকাশ করতে পারছেন না, এমন হলে চুপিসাড়ে সেই মত একেবারে রেজিস্টার করিয়ে নেওয়ার সুযোগ রেখেছে তৃণমূল। ‘বাংলার গর্ব মমতা’, ‘দিদিকে বলো’ এসব নানা পেজে এই ক্যাম্পেন চালাচ্ছে তৃণমূল। সেখানে পরপর প্রশ্নের জবাব দিয়ে নিজের মত জানিয়ে দেওয়া যাবে।

[আরও পড়ুন: দেশের তুলনায় রাজ্যে ঊর্ধ্বমুখী করোনা গ্রাফ, মমতাকে সতর্কতার পরামর্শ ‘উদ্বিগ্ন’ ধনকড়ের]

বস্তুত, পুজোর মরশুমে এই ধরনের ক্যাম্পেন বা রাজনৈতিক উদ্যোগ নেওয়ার নজির আগেও রয়েছে বিভিন্ন দলের। বছর ঘুরলেই বিধানসভা ভোট। তার দামামা ইতিমধ্যে বেজে গিয়েছে। বিজেপি বা তৃণমূল উভয়েই নানা কর্মসূচি নিচ্ছে। করোনা (Coronavirus), দুর্গাপুজোর মত ইস্যুও বাদ যাচ্ছে না সেই পর্বে। বিরোধী দল থেকে গুরুত্বপূর্ণ নেতাদের তৃণমূলে যোগ দেওয়ার পালাও চলছে। তার মধ্যেই এই ধরনের নতুন সোশ্যাল মিডিয়া লড়াই শুরু করে দিল শাসক দল। তবে বিজেপিকে বিপর্যয় তকমা দিয়ে সোশ্যাল মিডিয়ায় মত জোগাড় করাটা কি লড়াইয়ের অঙ্গ? এক রাজ্য নেতা স্পষ্ট জানিয়ে দিয়েছেন লড়াইয়ে সব পথিই পথ। তাঁর কথায়, “ভোটের লড়াই গণতান্ত্রিক পদ্ধতিতে হওয়া উচিত। সেই পথে না গিয়ে বিজেপি মানুষকে দাঙ্গা, অসাম্য, নিগ্রহের দিকে ঠেলে দিয়েছে। এটা বিপর্যয়েরই আরেক রূপ। সেই কারণেই মানুষের মত নেওয়া জরুরি। কারণ মানুষই আসল সত্য।”

[আরও পড়ুন: ফের বদল সময়সূচিতে, জেনে নিন সপ্তমী থেকে দশমী কখন মিলবে মেট্রো পরিষেবা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement