BREAKING NEWS

১৫ অগ্রহায়ণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ৩ ডিসেম্বর ২০২০ 

Advertisement

দেশের তুলনায় রাজ্যে ঊর্ধ্বমুখী করোনা গ্রাফ, মমতাকে সতর্কতার পরামর্শ ‘উদ্বিগ্ন’ ধনকড়ের

Published by: Sayani Sen |    Posted: October 24, 2020 9:31 am|    Updated: October 24, 2020 9:46 am

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: উৎসবের মরশুমে রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি ঊর্ধ্বমুখী হওয়ার পূর্বাভাস ছিলই। সেই আশঙ্কাকেই যেন সত্যি করে গত কয়েকদিনে হু হু করে বেড়েছে সংক্রমণ। তবে মহাসপ্তমীর দিন কিছুটা নিম্নমুখী ছিল করোনা (Coronavirus) গ্রাফ। কিন্তু আশঙ্কা কাটেনি। তাই আর পাঁচজনের মতো এ বিষয়ে চিন্তিত খোদ রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড় (Jagdeep Dhankhar)। টুইটে উদ্বেগ প্রকাশ করলেন তিনি। পরিস্থিতি নিয়ন্ত্রণে মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে আরও কড়া সতর্কতা জারির পরামর্শও দিলেন।

মহাসপ্তমীর সকালেই রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়ে উদ্বেগ প্রকাশ করে টুইট করেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। তিনি ২২ অক্টোবর রাজ্য স্বাস্থ্যদপ্তরের প্রকাশিত বুলেটিনে পাওয়া করোনা আক্রান্ত এবং মৃতের খতিয়ান তুলে ধরেন ওই টুইটে। গোটা দেশে যেখানে করোনা গ্রাফ বেশ নিম্নমুখী সেখানে বাংলার চিত্র অন্যরকম হওয়ায় আশঙ্কা প্রকাশ করেন তিনি। ১০০ শতাংশ কোভিডবিধি মেনে চলার আরজি জানান। ওই টুইটেই মুখ্যমন্ত্রী মমতা বন্দ্যোপাধ্যায়কে (Mamata Banerjee) ট্যাগ করে বেলাগাম করোনা সংক্রমণ ঠেকাতে আরও কঠোরভাবে সতর্কতা জারি পরামর্শ দেন রাজ্যের সাংবিধানিক প্রধান।

[আরও পড়ুন: ‘মা দুর্গাই মুছে দেবে সব দুঃখ’, মহাসপ্তমীর সকালে টুইট রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়ের]

দায়িত্ব নেওয়ার পর থেকে বারবার রাজ্য প্রশাসনের সঙ্গে সংঘাতে জড়িয়েছেন রাজ্যপাল জগদীপ ধনকড়। কখনও শিক্ষাক্ষেত্র আবার কখনও প্রশাসনিক ক্ষেত্রে দুর্নীতির অভিযোগ সরব হয়েছেন তিনি। রাজ্যের করোনা পরিস্থিতি নিয়েও বারবার প্রশ্ন করেছেন। করোনা সংক্রান্ত খরচ নিয়ে প্রশ্নও তুলেছেন। তবে এবার আর কোনও বিরোধ নেই। সাংবিধানিক প্রধান হিসাবে রাজ্যের প্রশাসনিক প্রধান অর্থাৎ মুখ্যমন্ত্রী সতর্কতা অবলম্বনের পরামর্শ দিয়েছেন তিনি। যা রাজভবন এবং নবান্নের দুঃসম্পর্কের মাঝে বেশ উল্লেখযোগ্য।

[আরও পড়ুন: ফের বদল সময়সূচিতে, জেনে নিন সপ্তমী থেকে দশমী কখন মিলবে মেট্রো পরিষেবা]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement