Advertisement
Advertisement

Breaking News

Kaali Poster Controversy

Kaali Poster Row: ‘কালী বিতর্কে কথা বলার অধিকার নেই BJP’র’, দিলীপের পুরনো মন্তব্যকে হাতিয়ার করে পালটা কুণালের

দিলীপ ঘোষ মা দুর্গাকে অপমান করেছিলেন, দাবি তৃণমূলের।

TMC leader Kunal Ghosh slams BJP over Kaali Poster Controversy | Sangbad Pratidin
Published by: Paramita Paul
  • Posted:July 7, 2022 5:33 pm
  • Updated:July 7, 2022 5:50 pm

ধ্রুবজ্যোতি বন্দ্যোপাধ্যায়: ‘কালী’ পোস্টার বিতর্কে সরব হয়েছে বিজেপি (BJP)। তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রের বিরুদ্ধে রাজ্যের বিভিন্ন থানায় অভিযোগ দায়ের করছে তারা। কিন্তু বিজেপির এই ইস্যুতে কথা বলার অধিকার নেই বলেই দাবি রাজ্যের শাসকদল তৃণমূলের। কারণ, বিজেপির প্রাক্তন রাজ্য সভাপতি দিলীপ ঘোষ (Dilip Ghosh) মা দুর্গাকে তীব্র অপমান করেছিলেন। প্রশ্ন তুলেছিলেন তাঁর পিতৃপরিচয় নিয়ে। বর্তমানে সোশ্যাল মিডিয়ায় আরও একবার ভাইরাল হয়েছে সেই ভিডিও।  

‘কালী’ বিতর্কে মহুয়ার বিরুদ্ধে একাধিক এফআইআর করেছে বিজেপি (BJP)। বৃহস্পতিবারও দিল্লিতে অভিযোগ দায়ের করেছে গেরুয়া শিবির। তৃণমূল সাংসদের তুমুল সমালোচনা করছে। এমনকী, ‘কালী’ তথ্যচিত্রের পরিচালকের বিরুদ্ধে অভিযোগ দায়ের করছে গেরুয়া শিবির। তাদের এহেন আচরণের সমালোচনা করে কুণাল ঘোষ বলেন,”বিজেপি বা দিলীপ ঘোষের কোনও কিছু বলার অধিকার নেই। কারণ তিনি এর আগে মা দুর্গাকে অপমান করেছেন।”

Advertisement

[আরও পড়ুন: কেন্দ্রীয় নিরাপত্তা প্রত্যাহার: অর্জুন সিংকে মামলা দায়েরের অনুমতি কলকাতা হাই কোর্টের]

উল্লেখ্য, সোশ্যাল মিডিয়ায় দিলীপ ঘোষের পুরনো একটি মন্তব্য ভাইরাল হয়েছে। যেখানে দেবী দুর্গার পরিবারের পরিচয় নিয়ে প্রশ্ন তুলেছিলেন তিনি। দিলীপ ঘোষ বলেছিলেন, “মা দুর্গার ১৪ পুরুষের কোনও ঠিকানা নেই।”

Advertisement

এদিকে ‘কালী’ পোস্টার (Kaali Poster Row) নিয়ে তৃণমূল সাংসদ মহুয়া মৈত্রের (TMC MP Mahua Moitra) মন্তব্যকে সমর্থন করেনি তৃণমূল। বৃহস্পতিবার রাজভবন থেকে বেরিয়ে এই ইস্যুতে ঘাসফুল শিবিরের অবস্থান আরও একবার স্পষ্ট করে দিলেন দলীয় মুখপাত্র কুণাল ঘোষ (Kunal Ghosh)। বললেন, “আমাদের বক্তব্য, মা কালীকে নিয়ে কারও ধর্মীয় ভাবাবেগে আঘাত করলে তার মধ্যে তৃণমূল কংগ্রেস নেই। কিন্তু এর মধ্যে কোনও কিছু বিকৃত করে দেখালে সেগুলোকে সমর্থন করছি না।” তিনি আরও বলেন, “মা কালী সকলের শ্রদ্ধেয়। মা কালীর উপাসনার একেক রকম ধরন আছে। একেকরকম পূজারী একেক পদ্ধতিতে আরাধনা করেন। সেখানে তাঁকে কী নিবেদন করা হয় সেগুলি আদি পুস্তকে উল্লেখ করা আছে।”

[আরও পড়ুন: রাজভবনে কোন রাজ্যের কত লোক চাকরি করছেন? নিয়োগ বিতর্কে এবার প্রশ্ন স্পিকারের]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ