১৪ মাঘ  ১৪২৮  শুক্রবার ২৮ জানুয়ারি ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

WBJEE 2021 ফলপ্রকাশ: ৯৯.৫% পরীক্ষার্থীর নাম মেধাতালিকায়, কাউন্সেলিং শুরু আগামী সপ্তাহেই

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: August 6, 2021 3:09 pm|    Updated: August 7, 2021 1:28 pm

WBJEE results are out: 99.5% students are in the merit list | Sangbad Pratidin

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: করোনা আবহে স্বাস্থ্যবিধি মেনে হলে বসে পরীক্ষা নিয়েছিল পশ্চিমবঙ্গ জয়েন্ট বোর্ড (WBJEE)। ১৭ জুলাই রাজ্য জয়েন্ট পরীক্ষার ফলাফল শুক্রবার প্রকাশিত হল। দুপুর আড়াইটে নাগাদ ফলপ্রকাশ করেন বোর্ডের চেয়ারম্যান মলয়েন্দু সাহা। তিনি জানালেন, ৯৯.৫ শতাংশ পরীক্ষার্থী এবার rank পেয়েছে। তাঁরা সকলেই রাজ্যের ১১৫টি সরকারি ও বেসরকারি কলেজে কোনও না কোনও বিষয় নিয়ে পড়াশোনার সুযোগ পাবে। আগামী ১৩ তারিখ থেকে কাউন্সেলিং প্রক্রিয়াও শুরু হয়ে যাবে বলে জানালেন চেয়ারম্যান। তিনটি ধাপে হবে কাউন্সেলিং (Counselling)। ফলাফল জানা যাবে – www.wbjeeb.nic.in/ www.wbjeeb.in, এই দুটি ওয়েবসাইটে।

চলতি বছর রাজ্য জয়েন্ট এন্ট্রান্স পরীক্ষায় বসেছিলেন মোট ৬৫ হাজার ১৭০ জন। এর মধ্যে rank পেয়েছেন ৯৯.৫ শতাংশ অর্থাৎ ৬৪ হাজার ৮৫০ জন। মেধাতালিকায় প্রথম, দ্বিতীয়, তৃতীয় স্থানাধিকারীর নামও ঘোষণা করেছেন জয়েন্ট বোর্ডের চেয়ারম্যান। প্রথম হয়েছেন রহড়া রামকৃষ্ণ মিশনের ছাত্র পাঞ্চজন্য দে, দ্বিতীয় বাঁকুড়া জেলা স্কুলের সৌম্যজিৎ দত্ত এবং তৃতীয় স্থানে রয়েছেন শান্তিপুরের ব্রতীন মণ্ডল। এদিন ফলাফল ঘোষণার আগেই কাউন্সেলিং পদ্ধতি নিয়ে বিস্তারিত জানিয়েছেন চেয়ারম্যান। এবার এই পদ্ধতি খানিকটা সরলীকরণ করা হয়েছে। দেখে নিন নিজের পছন্দের বিষয় নিয়ে পছন্দের কলেজে ভরতি হওয়ার পদ্ধতি।

[আরও পড়ুন: যাত্রীবাহী বিমানের ভিতরে সাপ! Dum Dum বিমানবন্দরে ছড়াল তীব্র চাঞ্চল্য]

কাউন্সেলিংয়ে অংশগ্রহণের আগে যেন বোর্ডের ওয়েবসাইটে দেওয়া ব্রোশিওয়র বা পুস্তিকাটি ভালভাবে পড়ে নেন পরীক্ষার্থীরা, সেই পরামর্শ দিচ্ছেন বোর্ড চেয়ারম্যান। তাতে যেমন ছাত্রছাত্রীদের ধারণা স্পষ্ট হবে, তেমনই বোর্ডের ক্ষেত্রেও ভরতি প্রক্রিয়া সহজ হবে। তাঁর আরও পরামর্শ, কাউন্সেলিংয়ে যোগ দেওয়ার আগে ‘হোমওয়ার্ক’ করে নিন। কোন কলেজে কোন বিভাগে পড়ার সুযোগ পাবেন, তাও জেনে নিন –

প্রথম ধাপ – অ্যালটমেন্ট রাউন্ড। এতে কলেজ বাছাইয়ের সুযোগ থাকছে। যত বেশি সম্ভব কলেজের নাম ‘চয়েজ’ হিসেবে দেওয়ার পরামর্শ দিচ্ছেন জয়েন্ট বোর্ডের চেয়ারম্যান।

দ্বিতীয় ধাপ – আপগ্রেডেশন রাউন্ড। প্রথম ধাপে শিক্ষা প্রতিষ্ঠান নির্বাচনের পর সেই প্রতিষ্ঠানের নিয়মকানুন মেনে যাবতীয় ভরতি প্রক্রিয়া সম্পন্ন করা যাবে।

তৃতীয় ধাপ – প্রতিষ্ঠান বা পড়াশোনার বিষয় বদল করতে চাইলে থাকছে সেই সুযোগ।

[আরও পড়ুন: IPS অফিসার পরিচয়ে আর্থিক প্রতারণা! কলকাতা পুলিশের জালে ভুয়ো আধিকারিক]

১৩ আগস্ট থেকে কাউন্সেলিং প্রক্রিয়া শুরু হবে। ত্রিস্তরীয় কাউন্সেলিং শেষ হয়ে যাবে ১১ সেপ্টেম্বরের মধ্যে। অর্থাৎ তারই মধ্যে আগ্রহী পড়ুয়ারা কলেজ নির্বাচন করে ভরতি হয়ে যেতে পারবেন। 

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে