২১ অগ্রহায়ণ  ১৪২৯  বৃহস্পতিবার ৮ ডিসেম্বর ২০২২ 

READ IN APP

Advertisement

Advertisement

শপথ নেওয়ার পরই দিল্লির পথে রাজ্যপাল, স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী-প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে সাক্ষাতের সম্ভাবনা

Published by: Subhajit Mandal |    Posted: November 23, 2022 7:33 pm|    Updated: November 23, 2022 7:36 pm

West Bengal Guv CV Ananda Bose to meet PM Modi and Amit Shah | Sangbad Pratidin

নন্দিতা রায়, নয়াদিল্লি: বুধবার বাংলার রাজ্যপাল পদে শপথ নিয়েছেন সিভি আনন্দ বোস। বৃহস্পতিবারই দিল্লি যেতে পারেন তিনি। সূত্রের খবর, দিল্লি গিয়ে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রী অমিত শাহ (Amit Shah) এবং প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির সঙ্গে দেখা করতে পারেন তিনি। যদিও তাঁর সফরসূচি এখনও চুড়ান্ত নয়।

সূত্রের খবর, প্রোটোকল মেনেই রাজ্যপাল পদে শপথ নেওয়ার পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে রিপোর্ট করবেন সিভি আনন্দ বোস। পরে প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির (Narendra Modi) সঙ্গেও দেখা করতে পারেন তিনি। সেই উদ্দেশ্যেই চারদিনের দিল্লি সফরে বৃহস্পতিবার উড়ে যেতে পারেন তিনি। রাজ্যপাল পদে শপথ নেওয়ার পর স্বরাষ্ট্রমন্ত্রকে রিপোর্ট করাটা নিয়মের মধ্যেই পড়ে। তবে, বাংলার সাম্প্রতিক পরিস্থিতির নিরিখে রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোসের শাহী সাক্ষাৎ বেশ তাৎপর্যপূর্ণ।

[আরও পড়ুন: ‘কাতারকে কড়া বার্তা দেবে ভারত’, জাকির নায়কের বক্তৃতার বিরোধিতায় সরব কেন্দ্রীয় মন্ত্রী]

আসলে নিজের শপথগ্রহণ ঘিরেই নজিরবিহীন রাজনৈতিক টানাপোড়েনের সাক্ষী থেকেছেন রাজ্যপাল সিভি আনন্দ বোস। স্রেফ বসার আসন পছন্দ না হওয়ায় শপথগ্রহণ অনুষ্ঠান বয়কট করেছেন বিরোধী দলনেতা শুভেন্দু অধিকারী (Suvendu Adhikari)। পরে আবার আলাদা করে রাজ্যপালের সঙ্গে সৌজন্য বিনিময় করে এসেছেন তিনি। শুভেন্দু যে রাজ্যপালের কাছে সরকারের নামে খুব একটা সুখ্যাতি করে আসেননি, সেটা বোঝার জন্য বিশেষজ্ঞ হওয়ার দরকার পড়ে না। আবার এদিনই প্রদেশ কংগ্রেস সভাপতি অধীর চৌধুরী (Adhir Chowdhury) ঝালদা পুর এলাকায় ‘শাসকদলের সন্ত্রাস’ নিয়ে অভিযোগ করে একটি চিঠি দিয়েছেন। অমিত শাহর সঙ্গে রাজ্যপালের সাক্ষাতে সেই প্রসঙ্গ গুলিও উঠতে পারে।  তবে রাজ্যপাল প্রধানমন্ত্রীর সঙ্গে কবে দেখা করবেন, সেটা এখনও স্পষ্ট নয়। 

[আরও পড়ুন: শাহরুখের ছবির গান ব্যবহার করে শ্রদ্ধা খুন নিয়ে ভিডিও! নেটিজেনদের রোষানলে ইনস্টাগ্রাম স্টার]

উল্লেখ্য, জগদীপ ধনকড় (Jagdeep Dhankar) রাজ্যপাল থাকাকালীন একাধিকবার রাজ্যের শাসকদল তৃণমূল কংগ্রেস অভিযোগ করেছে, বাংলার রাজভবন নিয়ন্ত্রিত হচ্ছে স্বরাষ্ট্রমন্ত্রক থেকে। সিভি আনন্দ বোস অবশ্য শুরু থেকেই বার্তা দিয়ে আসছেন, রাজ্য সরকারের সঙ্গে সহাবস্থান বজায় রেখে সাংবিধানিক সীমারেখা বজায় রেখেই তিনি কাজ করবেন।

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে