BREAKING NEWS

৬ আশ্বিন  ১৪২৮  বৃহস্পতিবার ২৩ সেপ্টেম্বর ২০২১ 

READ IN APP

Advertisement

‘তুমি যে আমার বউ’, বিয়ের জাল সার্টিফিকেট বানিয়ে ৪ লক্ষ টাকা হাতাল খড়দহের যুবক!

Published by: Sulaya Singha |    Posted: January 4, 2021 10:30 pm|    Updated: January 4, 2021 10:30 pm

Youth made fake marriage certificate to grab money from a woman | Sangbad Pratidin

ছবি: প্রতীকী

অর্ণব আইচ: ‘তুমি যে আমার বউ। এখন আমায় আরও টাকা দাও।’

পরিচিত যুবকের এই দাবি শুনে আকাশ থেকে পড়েন যুবতী! কখনও যে তাঁর সঙ্গে ওই যুবকের বিয়ে নিয়ে কথাই হয়নি! অথচ তাঁর সই জাল করে রীতিমতো ‘ম্যারেজ সার্টিফিকেট’ তৈরি করে ফেলেছে যুবক। ততদিনে তাঁর কাছ থেকে অভিযুক্ত ৪ লাখ ৩০ হাজার টাকা হাতিয়ে নিয়েছে। খাতায় কলমে থাকা এই বউয়ের কাছ থেকে আরও টাকা চাইতে শুরু করে যুবক। শেষ পর্যন্ত অত্যাচারের সীমা ছাড়িয়ে যাওয়ার পর আদালতের দ্বারস্থ হন যুবতী। আদালতের নির্দেশ অনুযায়ী উল্টোডাঙা থানায় তিনি অভিযোগ দায়ের করেন। ওই যুবকের বিরুদ্ধে পুলিশ জালিয়াতি ও প্রতারণার মামলা শুরু করেছে।

পুলিশ জানিয়েছে, বাবার অসুস্থতার কারণে ওই যুবতী উল্টোডাঙার (Bidhannagar) আরিফ রোডে তাঁদের পারিবারিক ওষুধের দোকান চালান। সেই সূত্রেই উত্তর ২৪ পরগনার খড়দহের পানিহাটির বাসিন্দা ওই যুবক এসে হাজির হয় তাঁর দোকানে। প্রথমে পেশাদারী কথাবার্তা চলে। ক্রমে যুবতীর সঙ্গে বন্ধুত্বের সম্পর্ক তৈরি করে সে। কিছু ওষুধ দেওয়ার আছিলায় ভুয়ো চালানে যুবতীকে সই করতে বলে। এর মধ্যে বন্ধুত্বের খাতিরে মা-বাবার শারীরিক অসুস্থতা দেখিয়ে যুবতীর কাছে টাকা নিতে শুরু করে ওই যুবক। কখনও ই-ওয়ালেট আবার কখনও চেকের মাধ্যমে প্রায় ৩ লাখ ১০ হাজার টাকা নেয় সে। এছাড়াও নগদে নেয় ১ লাখ ২০ হাজার টাকা। কয়েক মাস আগে বিশেষ প্রয়োজনে যুবতী টাকা ফেরত চান। তখনই সে আসল মূর্তি ধারণ করে।

[আরও পড়ুন: ব্যাংক দুর্নীতি মামলার তদন্তে সহযোগিতার আশ্বাস, ইডি দপ্তরে হাজিরা সঞ্জয় রাউতের স্ত্রীর]

তাঁর দোকানে এসে বলে, টাকা ফেরত দেবে কেন? যুবতী যে তার স্ত্রী! যুবতী হতবাক হলে সে জানায়, তাদের যে বিয়ে হয়েছে সেই প্রমাণ রয়েছে ম্যারেজ সার্টিফিকেটে। যুবতীর সইগুলি জাল করেই তৈরি হয়েছে সেই শংসাপত্র। যুবক উলটে আরও টাকা চাইতে শুরু করে যুবতীর কাছে। গত পুজোর সময় যুবতী বন্ধুদের সঙ্গে বাইরে খেতে বেরিয়েছিলেন। তখন তাঁর পিছু নেয় ওই যুবক। রাস্তায় তাঁর সঙ্গে অভব্য আচরণ করে।

এমনকী, বিয়ের শংসাপত্র যুবতীর পরিবারের লোককেও দেখাবে বলে ব্ল্যাকমেল করে। এমনকী, স্ত্রী দাবি করে অন্য জায়গায় নিয়ে গিয়ে তাঁকে বিক্রি করে দেওয়া হবে, সেই হুমকিও দেওয়া হয়। এভাবে দিনের পর দিন চলতে থাকে মানসিক অত্যাচার। আদালতে করা যুবতীর অভিযোগ অনুযায়ী, প্রথমে পুলিশের কাছে গিয়ে লাভ হয়নি। তাই তিনি আদালতের দ্বারস্থ হন। যুবতীর অভিযোগের ভিত্তিতে অভিযুক্ত যুবকের সন্ধান চলছে। অভিযোগ প্রমাণিত হলে তার বিরুদ্ধে আইনি ব্যবস্থা নেওয়া হবে বলে জানিয়েছে পুলিশ।

[আরও পড়ুন: দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক বৃদ্ধিতে জোর, শ্রীলঙ্কা সফরে যাচ্ছেন এস জয়শঙ্কর]

Sangbad Pratidin News App: খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ
নিয়মিত খবরে থাকতে লাইক করুন ফেসবুকে ও ফলো করুন টুইটারে

Advertisement

Advertisement

×