BREAKING NEWS

১২ আশ্বিন  ১৪২৭  বুধবার ৩০ সেপ্টেম্বর ২০২০ 

Advertisement

লকডাউনে কেনাকাটা শিকেয়? আলমারির পুরনো শাড়ি দিয়েই বানিয়ে ফেলুন নতুন পোশাক

Published by: Sucheta Sengupta |    Posted: July 26, 2020 11:06 pm|    Updated: July 26, 2020 11:07 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনে (Lockdown) ঘরবন্দি। ভাল ভাল শাড়ি পরে বেরনোর কোনও সুযোগই মিলছে না? আলমারিতে বন্দি থেকে ভাঁজে ভাঁজে নষ্ট হয়ে যাওয়ার আশঙ্কা করছেন নিশ্চয়ই? ভাববেন না, মুশকিল আসান হয়ে যাবে একটা ছোট্ট টিপসে। একটু পুরনো শাড়ি যেগুলো, সেগুলো এভাবে ফেলে রেখে নষ্ট হতে দেবেন না। বরং শাড়িগুলো ব্যবহার করে বানিয়ে নিন অন্য কোনও পছন্দমতো পোশাক। রিসাইক্লিং (Recycling) যাকে বলে। দেখবেন, পুরনো কাপড় দিয়েই এক্কেবারে নতুন পোশাক চলে এল আপনার হাতে। ভাবছেন, কীভাবে? রইল কয়েকটি টিপস –

[আরও পড়ুন: পার্লার যেতে ভয়? পায়ের অবাঞ্ছিত লোমের বৃদ্ধি রুখতে পারেন এই ঘরোয়া উপায়ে]

লং ড্রেস
পুরনো শাড়ি দিয়ে সবচেয়ে সহজে তৈরি করা যায় লং ড্রেস। সুতির বা লিনেন শাড়ি হলে, তা দিয়ে খুব সহজেই বানিয়ে ফেলতে পারেন গোড়ালি পর্যন্ত ঢাকা পোশাক। তাতে শাড়িতে কাটাছেঁড়া করতে হয় কম। সময়ও কম লাগে। গরমকালে হালকা সুতির এই পোশাক আরামদায়কও হয়।

Long-dress

স্কার্ট বা লেহেঙ্গা
এই দুই পোশাক তৈরির জন্য সিল্ক বা মসলিনের শাড়ি খুবই ভাল। লেহেঙ্গার জন্য যে কোনও মসলিন উপযুক্ত। এক রঙের মসলিন লেহেঙ্গার মতো কেটে তাতে সোনালি কিংবা রুপোলি জরি অথবা হালকা জারদৌসি কাজ করিয়ে নিলে, কারও বোঝার সাধ্যিই নেই যে ওটা পুরনো শাড়ি দিয়ে তৈরি। বরং আপাত সাদামাটা দেখতে ওই লেহেঙ্গাই সকলের নজর কাড়বে তার নতুনত্বে।

Lehenga

আর যে কোনও ঘের বা ঝুলের স্কার্ট তৈরির জন্য বেছে নিন সিল্ক। হাঁটুঝুল ওয়েস্টার্ন স্টাইলের স্কার্টই হোক বা লম্বা ব়্যাপার স্টাইল – সিল্ক অনবদ্য। প্রিন্টেড হলে তো কথাই নেই। একরঙা সিল্ক হলে, তা দিয়েই স্কার্ট বানান। এই ধরনের ব়্যাপারের সঙ্গে একটু জমকালো ছোট ঝুলের টপ – ব্যস, আপনাকে আর দেখে কে! আপনার পোশাক দেখে অন্যেরা নতুন আইডিয়া পাবেন, নিশ্চিত।

Skirt

কুর্তি-পাটিয়ালা
চেক অথবা কলামকারি প্রিন্টেড শাড়ি দিয়ে কুর্তি বা টপ ইদানিং ট্রেন্ডিং। কুর্তির জন্য সুতির চেক শাড়ি বেছে নিতে পারেন। তবে তা মাল্টিকালারড হলেই সবচেয়ে ভাল। দেখতে আকর্ষণীয় লাগবে। আর টপ তৈরি করতে হলে যে কোনও প্রিন্টেড শাড়ি বাছুন। লম্বা হাতা, খাটো ঝুলের টপ – একেবারে অনন্য। কুর্তি বা টপ তৈরিতে যেহেতু বেশি কাপড় লাগে না, তাই এক শাড়িতে দু’রকম ডিজাইনের দুটি জিনিস তৈরি করে ফেলতেই পারেন।

kurti

এবার নিশ্চয়ই চিন্তা দূর হল? তাহলে আর দেরি কেন? আলমারি খুলে পুনর্ব্যবহারের জন্য শাড়ি বেছে ফেলুন। পুরনো যাক, আসুক নতুন পোশাক।

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement