৫ আশ্বিন  ১৪২৫  শনিবার ২২ সেপ্টেম্বর ২০১৮  |  পুজোর বাকি আর ২৪ দিন

মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও রাশিয়ায় মহারণ ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

পুজো আসছে মানে এবার একটু রূপটানের দিকে নজরদানের প্রয়োজন। স্কিন কেয়ার থেকে শুরু করে হেয়ার কেয়ার- সবই থাকবে তালিকায়। পুজোয় চাই নতুন লুক। একটা স্টাইলিশ হেয়ার কাট, যা একটা ফ্রেশ লুক আনবে।

কার্ল এজেস

কার্লি হেয়ার এ বছর ইন। স্পাইরাল কার্ল করা চুলে আপনাকে দারুণ মানাতে পারে। শুধু নিজের ফিচার্সটা বুঝে নিতে হবে। পুরো মাথা জুড়ে একঢাল কার্ল চুল একেবারে নিচে গোড়া পর্যন্ত। চুলের মধ্যভাগ থেকে শেষ অবধি একটু ঘন কার্ল হবে পরপর সিরিজের মতো।

থিকার কার্ল

যাদের শর্ট হেয়ার, থিকার কার্ল তাদের জন্য। মাথার ওপর থেকে ইঞ্চি গ্যাপ দিয়ে কার্ল হবে চুল।

লেয়ার্ড কার্ভস

গোলাকৃতি মুখের জন্য দারুণ মানানসই এই কাট। লেয়ার্ড হবে চুল। কাটিংটা হবে এমনভাবে যে, গোল মুখের চারপাশ দিয়ে কার্ভ হয়ে নামবে। যেন চুল দিয়ে মুখ ঘেরা রয়েছে।

গয়না ছাড়া পুজোর সাজ হয় নাকি! জেনে নিন কোনটা ফ্যাশনে ইন ]

হাফ পাফ

মিডিয়াম লেন্থ চুলের জন্য এই স্টাইলিং দারুণ। কোনও স্টেটমেন্ট কাট দেওয়ার দরকার নেই। হেয়ার স্প্রে দিয়ে সেট করে চুলে হালকা ওয়েভ নিয়ে আসুন। নিচের অংশতে গিয়ে শেষ হবে।

সাইড সুইপ্ট ব্যাংস

গাল যাঁদের একটু ভারী, তাঁদের জন্য পুজোর এই কাটিং একটা নতুন লুক দেবে। স্ট্রেট হেয়ারেই করতে পারেন কাটিং। লেয়ার্ড চুলেও করা যায়। একপাশে চুল ছোট থেকে বড় করে এমনভাবে কাটতে হবে যাতে চিন এরিয়াতে এসে কাটিং শেষ হয়। একটু সাইডের দিক করে হবে এই হেয়ার কাট। গালের একটা অংশ ঢেকে যাবে।

লং বব

বব কাট সবসময়ই ইন। চুল কাঁধ পর্যন্ত হলে লং বব কাট দারুণ মানাবে। স্ট্রেট অথবা কার্ল যে কোনও চুলে বব মানানসই। ববে সামনের দিকের চুল একটি লম্বা থাকে। একে অ্যাংগেলড ববও বলা হয়।

ব্লান্ট

ব্লান্ট কাট সবসময় পপুলার। ব্লান্ট কাটে একটা সফ্‌ট লুক আনার জন্য লং ফ্রিঞ্জেস রাখুন কপালের দিকে।

পিক্সি কাট

শর্ট হেয়ার যাঁদের, তাঁদের জন্য পুজোর সেরা বাছাই পিক্সি কাট। পিছন ও দু’পাশ একেবারে শর্ট, সামনের অংশের চুল লম্বা থাকবে। একটু শার্প এজেস থাকবে কাট-এ।

লেয়ার্ড কার্লি কাট

চুলের ওপরের অংশ থেকে লেয়ার্ড করে মধ্যভাগ থেকে কার্লি চুল। কার্লি হেয়ারও লেয়ার্ডই কাটা থাকবে।

স্ট্রেট টপ উইথ কার্লি এন্ডস

চুলের ঊর্ধ্বভাগ থেকে গালের দুই পাশ পর্যন্ত স্ট্রেট করে নিচের অংশ একটু লুজ কার্ল। এতে একটু ঘন দেখাবে। চাইলে সামনে শর্ট বা লং ফ্রিঞ্জেস রাখতে পারেন।

ফিশটেল ব্রেইড

যাঁরা খুব বেশি চুল নিয়ে এক্সপেরিমেন্ট পছন্দ করেন না, তাঁরা পুজোয় নানারকম ব্রেইড বা বিনুনি করতেই পারেন। ফিশটেল ব্রেড সবসময় ভারতীয় মহিলাদের জন্য উপযোগী ও পপুলার স্টাইল। গোড়া থেকে লুজ বিনুনি একেবারে নিচে শেষ প্রান্ত পর্যন্ত গিয়ে শেষ হবে। ওপরের দিকটা চাইলে অনেকটা ওপেন রেখে মধ্যবর্তী অংশ থেকেও করতে পারেন। আবার গোড়া থেকে করা যায়।

সুন্দর চুল চান? রাতে ঘুমোতে যাওয়ার আগে এই কাজগুলি অবশ্যই করুন ]

ওয়াটারফল ব্রেড

চুলের পিছনে একপাশ থেকে অন্যপাশ পর্যন্ত ব্যান্ডের মতো করে একটা বিনুনি করুন, নিচের চুল সম্পূর্ণ খোলা থাকবে। এতে চুল খুলে স্টাইলও করা গেল ওপরের দিকটা নিট থাকল।

লো মেসি বান

যাকে বলা হয় আলুথালু ঘাড়খোঁপা। স্টেটমেন্ট স্টাইল একটু মেসি করে একেবারে ঘাড়ের কাছে খোঁপা করে ক্লিপ করুন।

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং