২৬ আষাঢ়  ১৪২৭  শনিবার ১১ জুলাই ২০২০ 

Advertisement

লকডাউনে বন্ধ পার্লার, বাড়িতে বসে কয়েক মিনিটেই সারুন রূপচর্চা

Published by: Bishakha Pal |    Posted: April 27, 2020 4:37 pm|    Updated: April 27, 2020 4:37 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: লকডাউনে ঘরবন্দি সকলে। কাজকর্ম হচ্ছে বাড়িতে বসেই। ফলে অফিস যাওয়ার তোড়জোড় নেই। আর সেই কারণেই রূপচর্চাতেও এসেছে ঢিলেমি। কিন্তু দীর্ঘক্ষণ রূপচর্চা না করলেও এই সময় একেবারেই যেন নিজের যত্ন নেওয়া ছেড়ে দেবেন না। সপ্তাহে রোজ নয়, মাঝে মধ্যে অন্তত নিজের ত্বক ও চুলের জন্য ১০-১৫ মিনিট সময় ব্যয় করুন। জেনে নিন বাড়িতে বসে কম সময়ে সহজ উপায়ে কীভাবে ধরে রাখবেন উজ্জ্বলতা।

চুলের যত্ন
চুল লম্বা হলে তার যত্ন নেওয়া বেশ সমস্যার ব্যাপার। তার উপর চুলের উজ্জ্বলতা ধরে রাখাও সহজ কথা নয়। অন্য সময় না হয় পার্লার থাকে। কিন্তু এই লকডাউনের মধ্যে সেই রাস্তাও বন্ধ। এই সময় তুলের পরিচর্যায় আপনি ব্যবহার করতে পারেন পিঁয়াজের রস। নারকেল তেলের সঙ্গে পিঁয়াজের রস মিশিয়ে চুলে ব্যবহার করলে চুলের উজ্জ্বলতা বাড়ে। পিঁয়াজের মধ্যস্থিত সালফার চিলের বৃদ্ধিতে সহায়তা করে। এছাড়া চুলের জন্য দই, ডিম ও মধুর মিশ্রনও ব্যবহার করতে পারেন। দই আপনার চুল ও স্পাল্পকে পরিষ্কার রাখে। পাশাপাশি ত্বকের মৃত কোষও সরিয়ে দেয় দেয়। শুষ্ক চচুল হলে এই প্যাক ব্যবহার করে দেখতে পারেন।

Hair

[ আরও পড়ুন: পার্লার বন্ধে ফ্যাশনের দফারফা? লকডাউনে নিজে হাতে বাড়িতে বসেই ফিরে পান সুন্দর ভ্রূ ]

লকডাউন স্পেশ্যাল ফেস মাস্ক
মুখের যত্ন নিতে হলে প্রয়োজন মাত্র তিনটি উপাদান। দই, হলুদ ও মধু। এই তিনটি মিশিয়ে মুখে মাখুন। তারপর ১৫ মিনিট রেখে ধুয়ে ফেলুন। হলুদের অ্যান্টি-ইনফ্লেমেটারি ও অ্যান্টি-অক্সিডেন্ট উপাদান ত্বকের উজ্জ্বলতা ধরে রাখতে সাহায্য করে। এছাড়া ত্বকের ক্লান্তিভাব এবং ব্রনও দূর করে হলুদ। দই এবং মধু ত্বককে মশ্চরাইজ করে।

নেলপলিশ রিমুভার
সাধারণ নেলপলিশের জন্য রিমুভার থাকলেও জেল নেল পেন্ট সহজে তোলা যায় না। কারণ এতে শুধু নেলপলিশ থাকে না। উজ্জ্বলাত আনার জন্য এক্ষেত্রে আরও অনেক কিছু ব্যবহার করতে হয়। তাই এগুলি তোলা বেশ কঠিন। এর জন্য সবেচেয়ে ভাল ও সুবিধাজনক হল বিউটি পার্লারষ কিন্তু লকডাউনের মধ্যে তা তো আর সম্ভব নয়। তাই বাড়িতে কীভাবে সহজেই জেল নেল পেইন্টস রিমুখ করবেন জেনে নিন। অ্যাসিটোনে কিছু তুলোর ভিজিয়ে আপনার নখের উপরে রাখুন। তারপর সেগুলোকি ফয়েল দিয়ে ঢেকে দিন। কিছুক্ষণ পর খুলে দেখুন, পরিষ্কার হয়ে গিয়েছে।

খেয়াল রাখুন ঠোঁটেরও
ফেস মাস্কের মতো ঠোঁটের জন্য আলাদা করে কোনও মাস্ক হয় না। কিন্তু মুখের অন্যতম সেনসেটিভ অংশ ঠোঁট। ফাটা ঠোঁট দেখতেও যেমন খারাপ লাগে তেমনই অস্বস্তিকর। বাড়িতে বসে এই সময় লিপস্টিক লাগানো হচ্ছে না। ফলে ঠোঁটও লিপবাম বা পেট্রোলিয়াম জেলি থেকে বঞ্ছিত থাকছে। এমনটা হতে দেবেন না একেবারেই। ঠোঁট যেন শুষ্ক না থাকে। তাহলেই ঠোঁট ফাটবে।। তাই অন্তত রাতে শুতে যাওয়ার আগে বা স্নান করে ঠোঁটে লিপবাম বা পেট্রোলিয়াম জেলি লাগান। এতে ঠোঁটের ময়শ্চার বজায় থাকবে।

[ আরও পড়ুন: পার্লার বন্ধ! বাড়িতেই মোজা দিয়ে হেয়ারস্টাইল কার্ল করার পদ্ধতি জানুন   ]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement