৩০ ভাদ্র  ১৪২৬  মঙ্গলবার ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৯ 

Menu Logo পুজো ২০১৯ মহানগর রাজ্য দেশ ওপার বাংলা বিদেশ খেলা বিনোদন লাইফস্টাইল এছাড়াও বাঁকা কথা ফটো গ্যালারি ভিডিও গ্যালারি ই-পেপার

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: পুজো প্রায় দোরগোড়ায় কড়া নাড়ছে। তার আগে গড়িয়াহাট থেকে ধর্মতলা কিংবা শ্যামবাজার সর্বত্র লোকে লোকারণ্য। কেনাকাটির ভিড় সামলাতে গিয়ে ক্লান্ত দোকানিরা। পুজোয় মোহময়ী হয়ে ওঠার জন্য কেনাকাটা যে অত্যন্ত প্রয়োজন, তা আর কে না জানে? তাই ইতিমধ্যে আপনিও নিশ্চয় পুজোর শপিং শুরু করে দিয়েছেন? কিন্তু ভাল লাগল বলেই হাত বাড়িয়ে জামাকাপড় কিনে ফেললেই তো হল না। বরং এমন পোশাক কিনতে হবে যাতে পুজোয় একঝলক দেখে সকলেই বুঝতে পারেন আপনি ঠিক কতটা ট্রেন্ডি এবং স্টাইলিশ। পুজোর আগে সেভাবে সেজে ওঠার জন্য রইল টিপস।

কেনাকাটি করতে যাওয়ার আগে মাথায় রাখবেন পোশাক দেখতে ভাল মানেই আপনাকে মানাবে তা নয়। তাই পুজোর বাজার করতে যাওয়ার আগে নিজেকে কোন পোশাক মানাবে, সে সম্পর্কে স্পষ্ট ধারণা তৈরি করুন। টাইট নাকি ঢিলেঢালা পোশাকে আপনি স্বচ্ছন্দ্য, কেনাকাটার আগে সেই ধারণা থাকাও অত্যন্ত গুরুত্বপূর্ণ। বারবার বদলের ঝঞ্ঝাট এড়াতে ট্রায়াল দিয়ে পোশাক কিনুন।

[আরও পড়ুন: শরীরে শোভা পাচ্ছে দুর্গা-ট্যাটু, নতুন ফ্যাশনে মাতোয়ারা তিলোত্তমা]

এখন প্রশ্ন হল, চলতি বছরের পুজোর শপিংয়ে ইন কোন পোশাক? বাজার ছেয়ে গিয়েছে ট্রেন্ড ক্রপ টপ এবং হাই ওয়েস্ট জিনস। রং এবং মাপ বাছাই করে কিনে ফেলুন। তবে মনে রাখবেন, এ ধরনের পোশাকের সঙ্গে কিন্তু যা তা জুতো পায়ে পরে নিলেই চলবে না। তাই ক্রপ টপ এবং হাই ওয়েস্ট জিনসের সঙ্গে পায়ে থাক স্টিলেটোস। তবে এই জুতো পরে ভিড় ঠেলে মণ্ডপে মণ্ডপে ঘুরে ঠাকুর দেখা কষ্টের। তাই পায়ে সেই সময় না হয় ট্রেন্ডি স্নিকার্স পরুন। আপনাকে ট্রেন্ডি লাগতে বাধ্য।

Crop-Top

জেন-ওয়াইদের পুজোর কেনাকাটিতে জিনস থাকবে না তা হতেই পারেনা। হাতের সামনে যা পেলেন আর তা কিনে ফেললেই তো হবে না। চলতি বছর ফ্যাশনে ইন রিপড জিনস। কালো বা ডার্ক ডেনিমের স্লিম ফিট কিংবা বয়ফ্রেন্ড জিনস কিনতেই পারেন। ট্র্যাকসুটের মতো স্ট্রাইপড জিনস এখন বাজার কাঁপাচ্ছে। সরু বেল্ট দিয়ে ওই জিনস এবং তার সঙ্গে নিত্যনতুন ডিজাইনের টপ পরলে ভিড়ে মাঝেও আপনি হয়ে উঠতে পারেন অনন্যা।

Ripped jeans

টপের ক্ষেত্রে বর্তমানে ব্যাগি টিজের দিকে বেশি ঝুঁকছেন ফ্যাশনিয়েস্তারা। ফুল কিংবা হাফ স্লিভের এই পোশাক আপনাকে ট্রেন্ডি লুক যে দেবে তা আর নতুন করে বলার কিছুই নেই।

Baggy-jeans

[আরও পড়ুন: ব্ল্যাকহেডস দূর করতে চান? জেনে নিন ঘরোয়া টোটকা]

ওয়ান পিসেরও এখন রমরমা। পুজোর কটাদিন জিনস, টপ না পরতে চাইলে সেজে ওঠুন এই পোশাকে। একঘেয়ে পোশাকের ক্লান্তি কাটিয়ে ট্রেন্ডি হয়ে ওঠার জন্য ওয়ান পিসের কোনও বিকল্প হয় না।

One pieceএ তো নয় গেল জেন-ওয়াইদের কথা। কিন্তু যাঁরা এথনিক পোশাক পরতে অভ্যস্ত, তাঁরা কী পরবেন? তাই কেনাকাটি করতে যাওয়ার আগে বেশ কয়েকটি টিপস রইল আপনাদের জন্য।

একটু লম্বা ঝুলের কুর্তি এখন ফ্যাশনে ইন। কিনে ফেলুন রাউন্ড শেপড কুর্তি। ওই পোশাকের সঙ্গে পরুন লেগিংস বা সিগারেট প্যান্ট। পরতে পারেন পালাজোও। কানে থাকুক একটু বেশি ঝুলের কানের দুল। কে বলতে পারে এই লুকেই হয়তো কতজনের মন চুরি করে ফেলবেন আপনি।

Kurti

সারা বছর তো জিনস পরেন। নিজেকে একটু অন্যরকমভাবে দেখতে চাইলে কিনে ফেলুন পালাজো। ছোট ঝুলের টপ কিংবা কুর্তির সঙ্গে দিব্যি মানাবে।

Palazo

বাঙালির পুজোর কেনাকাটিতে শাড়ি থাকবে না তা হতেই পারে না। কিন্তু একঘেয়ে তাঁত কিংবা সিল্ক ছেড়ে এবার মন দিন অন্য দিকে। কারণ বর্তমানে ফ্যাশনে ইন হ্যান্ডলুম। থ্রি কোয়ার্টার কিংবা স্লিভলেস ব্লাউজের সঙ্গে পরে আয়নার সামনে দাঁড়ালে নিজেকে চিনতে পারবেন না আপনি।

Saree

 

[আরও পড়ুন: বাতিল পোশাকেই হয়ে উঠুন মোহময়ী, পথ দেখালেন ফ্যাশন ডিজাইনার রেট]

শুধু পোশাক পরলেই তো হল না। সঙ্গে মানানসই গয়নাগাটিও অত্যন্ত প্রয়োজন। তাই একবার ঢুঁ মারুন গড়িয়াহাট কিংবা হাতিবাগানে। একটু ঘুরে খুব কম টাকা খরচেই পেতে পারেন জাঙ্ক জুয়েলারি। পুজোয় বেড়াতে যাওয়ার আগে পোশাকের সঙ্গে মানানসই গয়না পরলেই কেল্লাফতে! দেখবেন ভিড়ের মাঝে আপনার দিকেই চোখ আটকে গিয়েছে সকলের।

Jewellery

আরও পড়ুন

আরও পড়ুন

ট্রেন্ডিং