BREAKING NEWS

২৮ শ্রাবণ  ১৪২৭  বৃহস্পতিবার ১৩ আগস্ট ২০২০ 

Advertisement

বর্ণবৈষম্য নিয়ে বিক্ষোভের জের, ‘Fair & Lovely’ থেকে বাদ পড়ল ‘ফেয়ার’ শব্দটি

Published by: Sulaya Singha |    Posted: June 25, 2020 5:00 pm|    Updated: June 25, 2020 5:15 pm

An Images

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: গায়ের রং বড় বালাই। শ্যামবর্ণ হলে কারও নেকনজরে পড়াই কঠিন। কিন্তু ত্বক যদি উজ্জ্বল হয়, গায়ের রং ফেটে পড়ে, তাহলে আপনার চেয়ে আকর্ষণীয় আর কেউ নেই। ‘ফেয়ার অ্যান্ড লাভলি’র (Fair & Lovely) বিজ্ঞাপনের মোদ্দা কথাটা ছিল এমনটাই। যা নিয়ে দীর্ঘদিন ধরেই চলছে বিতর্ক। কিন্তু এবার সেই বিতর্কের আগুন এতটাই তীব্র যে ‘ফেয়ার অ্যান্ড লাভলি’ থেকে ‘ফেয়ার’ শব্দটিই বাদ দেওয়ার সিদ্ধান্ত নিল হিন্দুস্তান ইউনিলিভার (Hindustan Unilever)।

ফেয়ারনেস ক্রিমের এই ব্র্যান্ডটি ভারতীয় বাজারে পৌঁছে দেয় হিন্দুস্তান ইউনিলিভার। তাদের তরফে বৃহস্পতিবার জানানো হয়েছে, ব্র্যান্ডের নাম থেকে ফেয়ার শব্দটি সরিয়ে দেওয়া হচ্ছে। শীঘ্রই ক্রিমের নতুন নাম জানানো হবে। একইসঙ্গে বিজ্ঞাপনের ভাষাতেও আনা হবে বদল। ত্বকের যত্ন নেওয়ার কথা তুলে ধরা হবে। এককথায় গায়ের রং দিয়ে আর সৌন্দর্যের বিচার করা হবে না।

[আরও পড়ুন: বেসরকারি সংস্থার জন্য মহাকাশ গবেষণার দরজা ‘আনলক’ করল কেন্দ্র]

এই ফেয়ারনেস ক্রিমের বিজ্ঞাপনে নিশ্চয়ই খেয়াল করেছেন, ফেয়ার বা ফেয়ারনেস, হোয়াইট বা হোয়াইটনিং এবং লাইট অথবা লাইটেনিং শব্দগুলির উপর অত্যন্ত জোর দেওয়া হয়। এমনকী, এই ক্রিমের ব্যবহারে কীভাবে আপনার ত্বক ফর্সা হয়ে যায় তা, ‘ফেয়ারনেস স্কেল’ দিয়ে মেপেও দেখানো হত। হিন্দুস্তান ইউনিলিভার সাফ জানিয়ে দিয়েছে, প্রোডাক্টটির প্যাকেজিং থেকেও এই বিষয়গুলি সরিয়ে দেওয়া হবে। এমন কোনও প্রচার আর ব্যবহার করা হবে না। বিউটি অ্যান্ড পার্সোনাল কেয়ার-এর প্রেসিডেন্ট সানি জৈন বলেন, “আমরা সৌন্দর্যের সংজ্ঞাকে অন্যভাবে ব্যক্ত করতে চাই। ‘ফেয়ার’, ‘লাইট’-এই শব্দগুলো বড্ড একপেশে। এ দিয়ে সঠিকভাবে সৌন্দর্যের ব্যাখ্যা হয় না। তাই এই প্রোডাক্ট শুধুমাত্র ত্বকে যত্নের কথা বলবে।”

fairness-cream-N

 

আমেরিকায় কৃষ্ণাঙ্গ জর্জ ফ্লয়েডের মৃত্যুর পর থেকেই বর্ণবৈষম্য নিয়ে উত্তাল হয়েছে গোটা বিশ্ব। প্রতিবাদে সরব হয়েছে বিনোদুনিয়া থেকে খেলার জগতের তারকারা। তারই মধ্যে সম্প্রতি রোষের মুখে পড়ে Shaadi.com-এর স্কিন কালার ফিল্টারটিও। তুমুল সমালোচনায় বিদ্ধ হয়ে শেষমেশ সেই ফিল্টারটি সরিয়ে দেয় এই ম্যাট্রিমনিয়াল সাইট। এবার বর্ণবৈষম্য ঘোচাতে বদলে যাচ্ছে বহু বছরের প্রোডাক্ট ‘ফেয়ার অ্যান্ড লাভলি’র পরিচয়ও।

[আরও পড়ুন: করোনা চিকিৎসার নামে প্রতারণা! দুই রাজ্যে নিষিদ্ধ পতঞ্জলির তৈরি ওষুধ ‘করোনিল’]

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement

Advertisement