ad
ad

Breaking News

চোখে করোনা

সুস্থ হয়ে ওঠার পরেও চোখে লুকিয়ে থাকতে পারে করোনা, নয়া গবেষণায় চাঞ্চল্য

চোখে কংজাংটিভাইটিস দেখা দিতে পারে।

Corona virus can linger in patients' eyes for days after symptoms disappear
Published by: Paramita Paul
  • Posted:April 25, 2020 8:04 pm
  • Updated:April 25, 2020 8:04 pm

সংবাদ প্রতিদিন ডিজিটাল ডেস্ক: নাকে কিংবা গলায় নয়, করোনা থাকতে পারে চোখেও। চোখের থেকেও ছড়াতে পারে সংক্রমণ। সুস্থও হয়ে ওঠার পরেও আক্রান্তের চোখের মধ্যে নোভেল করোনার জীবাণু লুকিয়ে থাকতে পারে বলে দাবি করছেন চিকিৎসকদের একাংশ। ফলে দেখা দিতে পারে কংজাইটিভাইটিস। সম্প্রতি ইটালিতে অনলাইনে প্রকাশিত এক মেডিক্যাল জার্নালে এমন তথ্য উঠে এসেছে। যার জেরে নতুন করে চাঞ্চল্য ছড়িয়ছে।

প্রতিবেদন থেকে জানা গিয়েছে, ইটালির প্রথম করে্ানা আক্রান্তের চোখে বাসা বেঁধেছিল এই মারণ জীবাণু। ৬৫ বছরের ওই মহিলা চিনের ইউহান প্রদেশ থেকে ফিরেছিলেন। এর পাঁচদিনের মাথায় তাঁর দেহে একাধিক উপসর্গ দেখা দেয়। সঙ্গে সঙ্গে তাঁকে হাসপাতালে ভরতি করা হয়। প্রথমদিকে শুকনো কাশি, গলা ব্যথা, নাকে অসম্ভব জ্বালা দেখা দেয়। একইসঙ্গে তাঁর চোখে কংজাইটিভাইটিসের উপসর্গও ধরা পড়ে। পরে লালারস পরীক্ষা করে দেখা যায়, তিনি করোনায় আক্রান্ত হয়েছেন।

[আরও পড়ুন : এয়ারটেলের দুর্দান্ত অফার, এই প্ল্যানে রিচার্জ করলেই Disney+ ও Hotstar VIP সাবস্ক্রিপশন ফ্রি]

হাসপাতাল সূত্রে খবর, আক্রান্ত হওয়ার তিনদিনের মাথায় তাঁর চোখ থেকে সোয়্যাবের নমুনা সংগ্রহ করেন চিকিৎসকরা। সেই নমুনায় করোনার জীবাণুর RNA’র হদিশ মেলে। হাসপাতালে তিনি যতদিন ছিলেন, সেইসময় একটানা তাঁর চোখ দিয়ে জল পড়ত। ইটালির National Institute for Infectious Diseases’র গবেষক জানান, কোনও রোগী সুস্থ হয়ে ওটার ২১ দিন পরেও তাঁর চোখে করোনার জীবাণু থাকতে পারে। সেখান থেকে এই মারণ রোগের সংক্রমণ ছড়াতেও পারে। এমনকী সেই সময় নাক থেকে সংগৃহীত নমুণায় করোনার জীবাণু নাও থাকতে পারে। কিন্তু চোখের জলে ক্রমাগত বংশবিস্তার করতে পারে এই মারণ জীবাণুষ তাই এই সময় ঘনঘন চোখ-নাক-মুখ স্পর্শ করতে বারণ করছেন চিকিৎসকরা। ইটালির ওই আক্রান্তের সুস্থ হয়ে ওঠার ২৭ দিন পরেও চোখের তরলে করোনার হদিশ মিলেছিল।

[আরও পড়ুন :লকডাউনে জন্ম নিয়ন্ত্রণ শিকেয়, বাড়িতে কন্ডোম পৌঁছে দিচ্ছে যোগী প্রশাসন]

Sangbad Pratidin News App

খবরের টাটকা আপডেট পেতে ডাউনলোড করুন সংবাদ প্রতিদিন অ্যাপ